‘জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন’

‘জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন’
বক্তব্য রাখছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। ছবি : ইত্তেফাক

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, স্বাধীনতার চেতনাকে সমুন্নত রাখতে যুদ্ধাপরাধী, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস, মাদক ও দুর্নীতিকে প্রতিহত করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব অপরাধের বিচার নিশ্চিত করে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন। অথচ জিয়াউর রহমান, এরশাদ ও খালেদা জিয়া এদেশে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের রাজনীতিতে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। এ জঞ্জাল সরিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।

রবিবার পিরোজপুর মুক্ত দিবস উপলক্ষে গোপালকৃষ্ণ টাউন ক্লাব মাঠে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে সংসদ সদস্য শেখ এ্যানী রহমান, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন, পৌর মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের প্রশাসক নাহিদ ফারজানা সিদ্দিকী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা এম. এ হাকিম হাওলাদার, মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক জেলা ও দায়রা জজ আব্দুস সালাম সিকদার, মুক্তিযোদ্ধা গৌতম চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি রেজাউল করিম শিকদার মন্টু বক্তব্য রাখেন।

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, পিরোজপুর মুক্ত দিবসে উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাদের শপথ নিতে হবে। যারা মুক্তিযোদ্ধাদের নির্বিচারে ফাঁসিতে ঝুলিয়েছে, যারা রাজাকার আলবদরদের এদেশের প্রধানমন্ত্রী-মন্ত্রী বানিয়েছে তাদের সঙ্গে কোন সম্পর্ক করা যাবে না।

আরো পড়ুন : সচিবালয়ের চারপাশ হর্ন বিহীন এলাকা ঘোষণা

তিনি বলেন, বেগম জিয়া ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুর খুনি ফারুক রহমানকে সংসদে বিরোধী দলের নেতা বানিয়ে ছিলেন। পাকিস্তান পুনরুদ্ধার কমিটির সভাপতি গেলাম আজমকে পাকিস্তানি পাসপোর্ট নিয়ে বাংলাদেশে এসে দেশ বিরোধী কর্মকাণ্ড পরিচালনার সুযোগ করে দিয়েছিলেন জিয়াউর রহমান।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত