ঢাকা শনিবার, ৩০ মে ২০২০, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
৩১ °সে

তাবিথ-ইশরাকের হাতে মনোনয়ন পত্র তুলে দিলেন ফখরুল

তাবিথ-ইশরাকের হাতে মনোনয়ন পত্র তুলে দিলেন ফখরুল
ছবি: সংগৃহীত।

আসন্ন ঢাকা সিটি করপোরেশন (উত্তর ও দক্ষিণ) নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন আগেই চূড়ান্ত করে বিএনপি। ধানের শীষের এই মনোনয়নপত্র সোমবার রাতে গুলশান বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেয়া হয়।

ঢাকা সিটি উত্তরে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টুর ছেলে ও দলের নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল ও দক্ষিণ সিটিতে অবিভক্ত ঢাকা সিটির মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেনের হাতে দলীয় মনোনয়নপত্র তুলে দেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এর আগে গুলশান অফিসে দলটির স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে অংশ নেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যরিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু প্রমুখ।

এর আগে শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসন রাজনৈতিক কার্যালয়ে মেয়র পদে দুই প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন দলের মহাসচিব। তিনি উত্তরে তাবিথ আউয়ালকে ও দক্ষিণে প্রকৌশলী ইশরাক হোসেনের নাম ঘোষণা করেন।

উল্লেখ্য, আগামী ৩০ জানুয়ারি (বৃহস্পতিবার) ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ওইদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমার আজ ৩১ ডিসেম্বর, যাচাই-বাছাই ২ জানুয়ারি আর প্রত্যাহার ৯ জানুয়ারি। প্রতীক বরাদ্দ ১০ জানুয়ারি। পুরো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম)।

৫৪টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ১৮টি নারী সংরক্ষিত ওয়ার্ড নিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন গঠিত। এ নির্বাচনে ১ হাজার ৩৪৯টি ভোটকেন্দ্রের ৭ হাজার ৫১৬টি ভোটকক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মোট ৩০ লাখ ৩৫ হাজার ৬২১ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাবেন।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে ৭৫টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ২৫টি নারী সংরক্ষিত ওয়ার্ড রয়েছে। এ নির্বাচনে ১ হাজার ১২৪টি ভোটকেন্দ্রের ৫ হাজার ৯৯৮টি ভোটকক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মোট ২৩ লাখ ৬৭ হাজার ৪৮৮ ভোটার এ নির্বাচনে ভোটধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাবেন।

বিএনপির অফিসের সামনে ককটেল বিস্ফোরণ সরকারের পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র: বিএনপির নয়াপল্টন অফিসের সামনে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনাকে সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকারের পরিকল্পিত ষড়যন্ত্র বলে মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

গতকাল নয়াপল্টনে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, সিটি নির্বাচনকে ঘিরে দেশকে অস্থিতিশীল করতেই সরকারের এ অপতৎপরতা। অতীতের মতো বিএনপিকে হয়রানি করতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে।

ইত্তেফাক/আরকেজি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
৩০ মে, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন