সমাবেশ করতে পারেনি বিএনপি, আজ বিক্ষোভ

সমাবেশ করতে পারেনি বিএনপি, আজ বিক্ষোভ
[ফাইল ছবি]

৩০ ডিসেম্বর গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালনের পূর্বঘোষিত সমাবেশে পুলিশি বাধায় আজ মঙ্গলবার ঢাকা মহানগরের থানায় থানায় বিক্ষোভ মিছিলের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। বিএনপির পক্ষ থেকে দলীয় কার্যালয় অথবা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এই সমাবেশের অনুমতি চাওয়া হয়। কিন্তু অনুমতি না দিয়ে গতকাল নয়া পল্টনের বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয় ঘিরে রাখে পুলিশ। এ পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল বেলা ১১টায় এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

রিজভী বলেন, আমাদের পূর্বঘোষিত সমাবেশ কর্মসূচিকে বানচাল করতে পোশাক ও সাদা পোশাকে পুলিশ সকাল থেকে দলীয় কার্যালয়ের সামনে ও আশপাশের সড়ক এবং অলিগলিতে অবস্থান নিয়ে যুদ্ধংদেহী পরিবেশ তৈরি করে রেখেছে। তিনি বলেন, এদেশে শুধুমাত্র একজনেরই গণতান্ত্রিক অধিকার আছে, তিনি হলেন শেখ হাসিনা। আর তার সরকারের দুঃশাসনে বিরোধী দলের নেতাকর্মী ও ভিন্নমতের মানুষরা সাবহিউম্যান পর্যায়ে।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ দিকে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে গতকাল আবারও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। গত কয়েকদিন যাবৎ কে বা কারা এখানে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হচ্ছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গতকাল সোমবার দুপুরে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনে ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রত্যাশীদের সাক্ষাত্কার চলাকালে এই ককটেল বিস্ফোরণ ঘটে। এ ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও কাউন্সিলর প্রার্থী ও নেতাকর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এ ককটেল বিস্ফোরণের পর দুপুর ১টার দিকে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আসেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

ইত্তেফাক/এমআর

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত