ঢাকা রোববার, ০৫ এপ্রিল ২০২০, ২২ চৈত্র ১৪২৬
২৮ °সে

চসিক ও ২টি উপ-নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী ঘোষণা

চসিক ও ২টি উপ-নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী ঘোষণা
আবুল হোসেন আজাদ, ডা. শাহাদাত হোসেন ও একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির (ডানে) [ছবি: সংগৃহীত]

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, যশোর-৬ আসনে কেশবপুর থানা বিএনপির সভাপতি আবুল হোসেন আজাদ ও বগুড়া-১ আসনে সোনাতলা উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন।

গতকাল সোমবার রাতে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ ঘোষণা দেন। মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা এর আগে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেব না। কিন্তু আজকের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে সকল ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে অংশ নেব।

এর আগে সন্ধ্যা ৬টা থেকে ২০ জন মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীর সাক্ষাৎকার নেয় বিএনপির মনোনয়ন বোর্ড। সাক্ষাৎকার নেয়ার সময় লন্ডন থেকে স্কাইপের মাধ্যমে যুক্ত ছিলেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, ড. আব্দুল মঈন খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বেগম সেলিমা রহমান।

সাক্ষাৎকার শেষে ছয় মেয়র পদে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সঙ্গে একান্তে কথা বলেন তারেক রহমান। সবাইকে একযোগে দলের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার নির্দেশনাও দেন তিনি।

এর আগে ২৮ এপ্রিল ২০১৫ অনুষ্ঠিত চসিক নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন মঞ্জুর আলম। নির্বাচনের দিন সকাল ১১টায় কারচুপির অভিযোগ এনে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেয় বিএনপি। এবার মঞ্জুর আলম ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন।

গত মঙ্গলবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে চসিকের বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মাঝে মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু করে। চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির ছয় নেতা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন, সহসভাপতি নিয়াজ মোহাম্মাদ খান, সহসভাপতি সৈয়দ আজম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর ও সাবেক যুগ্ম-সম্পাদক মো. এরশাদ উল্লাহ ও ডা. লুসি খান।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ গত ১৫ ফেব্রুয়ারি চসিকের মেয়র পদে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক রেজাউল করিম চৌধুরী নৌকার প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করে। চসিকের মেয়র পদে বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনসহ মোট ১৯ জন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন।

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ থেকে ছাত্ররাজনীতিতে উঠে আসা এই নেতা ইতিপূর্বে দলের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। মেয়র পদে নির্বাচন করার আগ্রহের কারণে সাংগঠনিক সম্পাদক পদ ছেড়ে দিয়ে চট্টগ্রাম মহানগরের সভাপতি পদে আসেন।বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কারাবন্দী অবস্থায় ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন নগরীর কোতোয়ালী আসন থেকে।

বগুড়া-১ আসনের একেএম আহসানুল তৈয়ব জাকির বগুড়া জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য। তিনি দুই দফায় সোনাতলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন।

যশোর-৬ আসনে আবুল হোসেন আজাদ কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও কেশবপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি। একাদশ নির্বাচনেও তিনি বিএনপির প্রার্থী ছিলেন।

গত ১৮ জানুয়ারি বগুড়া-১ আসনের সাংসদ আব্দুল মান্নান এবং ২১ জানুয়ারি যশোর- ৬ আসনের সাংসদ ইসমাত আরা সাদেকের মৃত্যুতে আসন দুইটি শূন্য হয়।

ইত্তেফাক/এমআর

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
০৫ এপ্রিল, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন