কিছুক্ষণের মধ্যেই মুক্তি পেতে পারেন খালেদা জিয়া

কিছুক্ষণের মধ্যেই মুক্তি পেতে পারেন খালেদা জিয়া
বেগম খালেদা জিয়া [ফাইল ছবি]

বয়স ও মানবিক বিবেচনায় দুর্নীতির মামলায় কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ছয় মাসের জন্য শর্তসাপেক্ষে মুক্তি দেওয়ার আদেশের নথি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হয়ে কারা কর্তৃপক্ষের কাছে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। বুধবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল খালেদা জিয়ার মুক্তির ফাইলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুমোদনের কথা জানান।

জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের পর বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ওই নথি মন্ত্রণালয়ে পৌছেছে। এই নথির ভিত্তিতে একটি প্রজ্ঞাপন তৈরি করে কারা কর্তৃপক্ষকে পাঠিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সবকিছু ঠিক থাকলে কিছুক্ষণের মধ্যেই মুক্তি পেতে পারেন খালেদা জিয়া।

এর আগে, মঙ্গলবার দুপুরে গুলশানের বাসভবনে এক ব্রিফিংয়ে সরকারের এমন সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাহী আদেশে শর্ত সাপেক্ষে ছয় মাসের জন্য মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে খালেদা জিয়া ঢাকায় নিজ বাসায় থেকে চিকিত্সা গ্রহণ করবেন। দেশের বাইরে যেতে পারবেন না। সরকার মানবিক কারণে সদয় হয়ে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ ধারা (উপধারা-১) অনুযায়ী মুক্তির ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাকে ছয় মাসের জন্য মুক্তি দেওয়ার সুপারিশ পাঠানো হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে। এখন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যখন তাকে মুক্তি দেবে, তখন থেকেই তা কার্যকর হবে। মুক্তি পাওয়ার পর খালেদা জিয়াকে কোথাও নেয়া হবে সে ব্যাপারে মঙ্গলবার পরিবারের সদস্যরা আলোচনায় বসেন। কথা বলেন লন্ডনে অবস্থানরত দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে।

জানতে চাইলে চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, বাড়ি রেডি আছে। বাড়িতে ম্যাডামের সিএসএফ (চেয়ারপারসন সিকিউরিটি ফোর্স) সদস্য ও তার সঙ্গে যারা থাকতেন তারা আছেন।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ড নিয়ে ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে খালেদা জিয়া। সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী এখন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৩৬টি মামলা রয়েছে। দুটি বাদে সব মামলায় তিনি জামিনে আছেন।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত