'বাংলাদেশকে আফগানিস্তান-পাকিস্তান হতে দেবো না'

'বাংলাদেশকে আফগানিস্তান-পাকিস্তান হতে দেবো না'
শিক্ষা উপ-মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। ছবি : সংগৃহীত

বাংলাদেশ অস্থিতিশীল হলে অনেক অস্ত্র ব্যবসায়ীর লাভ। তারা এখানে অস্ত্র ব্যবসা করবে। যেমন করে আফগানিস্তানে । আমরা বাংলাদেশকে আফগানিস্তান, পাকিস্তান হতে দেবো না। শনিবার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে নগরের চান্দগাঁও এলাকায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মাণকাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন শিক্ষা উপ-মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন।

তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০৪১ সালের মধ্যে একটা উন্নত বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলবো। সেখানে আমাদের সমৃদ্ধি হবে। সেখানে সহনশীলতা থাকবে। শান্তি থাকবে। শুধু পয়সা ইনকাম করলে শান্তি আসে না। পৃথিবীর অনেক দেশেই অনেক অর্থ আছে কিন্তু কোনো শান্তি নেই। স্থিতিশীলতা না থাকলে মানুষে মানুষে সদ্বভাব না থাকলে, বৈষম্য বেশি থাকলে শান্তি আসে না।

শিক্ষা উপ-মন্ত্রী বলেন, আমাদের সংবিধানে নির্দেশিত মূলনীতিগুলোর চর্চা করতে হবে। জাতির পিতা সহনশীল, ধর্ম নিরপেক্ষ সমাজের স্বপ্ন দেখিয়ে এই দেশকে স্বাধীন করেছিলেন। তার আদর্শ যদি আজকে ভুলন্ঠিত হয়, তাহলে কোনো বিনিয়োগেই সুফল আমরা পাবো না। কারণ অস্থিতিশীলতা, হানাহানি, সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় এই বাংলাদেশ ভরে যাবে। তাই নিজেদেরকে শিক্ষিত এবং প্রশিক্ষিত করার মাধ্যমে শেখ হাসিনার সরকার অর্থনৈতিক সম্ভাবনার যে দুয়ার খুলে দিয়েছে, সেখানে আমাদের ঢুকে পড়তে হবে। নিজেদের উন্নত করতে হবে।

ধর্ম নিয়ে রাজনীতি না করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, রাসুলের (স.) কোনো হাদিসে আপনারা দেখবেন না- তিনি বলেছেন যে, দ্বীন কায়েম করার জন্য রাজনীতি করো। কিন্তু আজকে অনেকে এটা করছে। এটা করে আমাদের যুব সমাজকে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দিচ্ছে, আমাদের নারী সমাজকেও এই বিষয়টা নানানভাবে মস্তিষ্কে ঢুকিয়ে দিয়ে তাদের পিছিয়ে দিচ্ছে।

নওফেল বলেন, দ্বীন ইসলামের নামে কেনো রাজনীতি করা যাবে না। এটা আমার কাছে যদি কেউ প্রশ্ন রাখে তাহলে বলবো- ঈমানের প্রশ্নে কোনো দ্বিমত করা যায় না। ঈমান ঈমান।

তিনি বলেন, রাজনীতি করলে মত থাকবে, দ্বিমত থাকবে, আপনার একটা কথা থাকবে, আমার একটা কথা থাকবে, বাদ-প্রতিবাদ থাকবে। কিন্তু দ্বীনের প্রশ্নে, ইসলামের প্রশ্নে কি আমরা কোনো দ্বিমত করতে পারি? সেটা নিয়ে কি কোনো বিরোধিতা করতে পারি?

শিক্ষা উপ-মন্ত্রী আরো বলেন, আমার দ্বীন, আমার ঈমান, এটা আমার জন্য অত্যন্ত পবিত্র। আমার ব্যক্তিগত বিষয়। এর মাধ্যমে মহান আল্লাহর সঙ্গে আমার রুহানী সম্পর্ক তৈরি হয়। এটা নিয়ে আমি রাজনীতি করতে পারি না।

ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করা পরাজিত শক্তির উত্থান ঠেকাতে মারমুখী আচরণ নয়, তাদের যুক্তি দিয়ে বুঝানোর আহ্বান জানান তিনি। নওফেল বলেন, মারমুখী হওয়ার দরকার নেই। আমরা যুক্তি দিয়ে, আলোচনার মাধ্যমে তাদের বুঝাবো। এই পরাজিত শক্তির উত্থান আমরা হতে দেবো না।

উল্লেখ্য, আইটি খাতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির লক্ষ্যে দেশের আটটি স্থানে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থাপন করছে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। এরই অংশ হিসেবে চট্টগ্রাম, সিলেট, রংপুর, নাটোর, কুমিল্লা, নেত্রকোনা, বরিশাল ও মাগুরায় স্থাপন করা হচ্ছে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার। বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে প্রায় ৫৩৩ কোটি টাকা ব্যয়ে এ প্রকল্পের কাজ ২০১৭ সালে শুরু হয়।

অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ করা হয় এবং চট্টগ্রাম সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে চারটি প্রতিষ্ঠানকে জায়গা বরাদ্দ দেয়া হয়।

আইসিটি বিভাগের অন্য একটি প্রকল্পের আওতায় সারাদেশে প্রায় ২ হাজার বিশেষভাবে সক্ষম ব্যক্তিকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে এবং ৫৭০ জনের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। চট্টগ্রামে যাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে তাদের মধ্য থেকে বাছাইকৃত ১২ জনকে ল্যাপটপ প্রদান করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক। এ সময় বিশেষভাবে সক্ষম ব্যক্তিদের ব্যবহার উপযোগী একটি ই-লার্নিং প্লাটফর্ম, জব পোর্টাল ও ডাটা বেইস উন্নয়নকাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে বলে জানান তিনি।

ইত্তেফাক/টিআর

Nogod
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত