‘খালেদার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত বেআইনি’

‘খালেদার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত বেআইনি’
অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।  

দুর্নীতি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিদেশে গিয়ে চিকিৎসা নেওয়ার সুযোগ নেই বলে মতামত দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। তবে আইন মন্ত্রণালয়ের এ মতামত বেআইনি বলে অভিহিত করেছেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, আইন অনুযায়ী খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়ার আবেদন মঞ্জুর করতে পারছি না। কারণ সাজাপ্রাপ্ত আসামি হওয়ায় খালেদা জিয়ার বিদেশে যাওয়ার কোনো সুযোগ আইনে নেই।

এর আগে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানিয়েছেন, সাজাপ্রাপ্ত আসামি হওয়ায় খালেদা জিয়ার বিদেশে যাওয়ার কোনো সুযোগ আইনে নেই।

এ বিষয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, ‘খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের মতামত বেআইনি। ৪০১ ধারায় কোথাও বলা হয়নি যে, দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বিদেশে যেতে পারবে না। এ আইনটি করাই হয়েছে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের জন্য।’

খন্দকার মাহবুব বলেন, চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরে আসতে হবে- সরকার নতুন করে এই শর্ত দিতে পারতো। খালেদা জিয়া তিনবারের প্রধানমন্ত্রী। তার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত জটিল। বিদেশে তার চিকিৎসা প্রয়োজন। সরকার মানবিকভাবে বিষয়টি দেখতে পারত। তার চিকিৎসার ব্যাপারে সরকারের নিজেরই বরং উদ্যোগ নেওয়া উচিত। বিদেশে যাবার অনুমতি না দিয়ে সরকারের এতবড় ঝুঁকি নেওয়া ঠিক হয়নি। কেন না আল্লাহ না করুন, যদি কোনো অঘটন ঘটে যায় তখন সম্পূর্ণ দায়ভার কিন্তু সরকারকেই নিতে হবে।

খালেদা জিয়া গত ১০ এপ্রিল করোনায় আক্রান্ত হন। গত ২৭ এপ্রিল তাকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত সোমবার শ্বাসকষ্ট অনুভব করায় খালেদা জিয়াকে কেবিন থেকে হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে (সিসিইউ) স্থানান্তর করা হয়। সেখানেই তিনি চিকিৎসা নিচ্ছেন। তার শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে।

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x