ঢাকা রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬
২৮ °সে


বিএনপি চলছে যৌথ নেতৃত্বে : মির্জা ফখরুল

বিএনপি চলছে যৌথ নেতৃত্বে : মির্জা ফখরুল
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।ফাইল ছবি

দলের সব সিদ্ধান্ত ‘যৌথ নেতৃত্বে’ হচ্ছে দাবি করে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে আগামীতে গণ-আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, আমরা আনন্দের সঙ্গে বলতে চাই, খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার পরে আমরা একটা যৌথ নেতৃত্ব গড়ে তুলেছি। সেই যৌথ নেতৃত্বের মধ্য দিয়ে সব সিদ্ধান্ত নিয়ে আমরা জনগণের কাছে যাচ্ছি। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে, জনগণকে আন্দোলনে সম্পৃক্ত করে আজকে আমাদেরকে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে হবে। তাই আসুন, আমরা একসঙ্গে একটি গণ-আন্দোলন সৃষ্টি করি, যে আন্দোলনের মধ্য দিয়ে আমরা দেশনেত্রীকে মুক্ত করব, গণতন্ত্রকে মুক্ত করব, তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পারব।

গতকাল সোমবার জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সমাবেশে বিএনপি মহাসচিব এই মন্তব্য করেন।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ও বর্তমান ছাত্র ফোরামের উদ্যোগে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ছাত্রসমাজকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ছাত্ররা সারাজীবন সবসময়ই সবচেয়ে বেশি ত্যাগ স্বীকার করেছে, এই ছাত্ররা ভাষা আন্দোলনে বেশি রক্ত দিয়েছে, ৬৯ এর আন্দোলনে রক্ত দিয়েছে, ৯০ এর আন্দোলনে রক্ত দিয়েছে, একাত্তরের স্বাধীনতা যুদ্ধে তারা বুকের রক্ত দিয়ে তারা স্বাধীনতা অর্জন করেছে।

আজকে ছাত্র বলুন, তরুণ বলুন, যুবক বলুন, তাদের সবার ওপর মহান দায়িত্ব এসেছে। সেই দায়িত্ব হচ্ছে এ দেশকে রক্ষা করার জন্য, গণতন্ত্রকে রক্ষা করার জন্য, আমাদের গণতন্ত্রের মাতা দেশনেত্রীকে মুক্ত করার জন্য, তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

শ্রীলঙ্কায় হামলার নিন্দা—

শ্রীলঙ্কার কলম্বোয় বোমা হামলার নিন্দা জানিয়ে এতে প্রায় তিনশ মানুষের প্রাণহানিতে শোক প্রকাশ করেন বিএনপি মহাসচিব ফখরুল।

তিনি বলেন,আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, এই ধরনের হত্যাকাণ্ড, এই ধরনের টেরোরিস্ট এ্যাক্টিভিসকে আমরা নিন্দা জানাই, প্রতিবাদ করি। এর বিরুদ্ধে সারা বিশ্বে একটি আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।”

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাবেক ও বর্তমান ছাত্র ফোরামের উদ্যোগে এই সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সাবেক আহবায়ক আবদুল খালেক হাওলাদার। এতে বক্তব্য রাখেন সাবেক ছাত্রনেতা শামসুজ্জামান দুদু, আমানউল্লাহ আমান, আসাদুজ্জামান রিপন, খায়রুল কবির খোকন, এবিএম মোশাররফ হোসেন, আমিরুল ইসলাম খান আলিম, আনিসুর রহমান খান খোকন, আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আকরামুল হাসান।

এই অনুষ্ঠানে যাওয়ার আগে বিএনপি মহাসচিব কাকরাইলে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খানকে দেখতে যান। তার সঙ্গে ছিলেন এজেডএম জাহিদ হোসেন ও সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স।

ইত্তেফাক/আরকেজি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৮ আগস্ট, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন