ঢাকা বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬
২৭ °সে


সম্রাটের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র হচ্ছে: যুবলীগ চেয়ারম্যান

সম্রাটের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র হচ্ছে: যুবলীগ চেয়ারম্যান
যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী। ছবি: ফাইল, সংগৃহীত

যুবলীগের শ্রেষ্ঠ ইউনিটের শ্রেষ্ঠ সংগঠক ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে বলে জানিয়েছেন যুবলীগ চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ওমর ফারুক চৌধুরী। বুধবার বিকালে মিরপুরে এক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ঢাকা মহানগরের নেতাদের বিরুদ্ধে ক্যাসিনো চালানোর অভিযোগের বিষয়ে যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, ‘এটা কি বিরাজনীতিকরণের নীতি নিয়ে আসছেন? দলকে পঙ্গু করার কোনো ষড়যন্ত্রে আসছেন? নিষ্ক্রিয় করার ষড়যন্ত্রে আসছেন?’

এসময় যুবলীগে শৃঙ্খলা বজায় রাখতে তৃণমূল থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় নেতাদেরও বহিষ্কারের কথা বলেন ওমর ফারুক।

এক বিবৃতিতে যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, ‘তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে যুবলীগের কোনো নেতা বা শাখার (যে পর্যায়েরই হোক না কেন) বিরুদ্ধে ন্যুনতম অভিযোগেরও যদি সত্যতা পাওয়া যায়, তাহলে যুবলীগ ওই ব্যক্তি ও কমিটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।’

আরো পড়ুন: আরো তিন ক্লাবে অভিযান, জুয়ার ২৩ লাখ টাকা উদ্ধার

এর আগে গত শনিবার আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী পরিষদের সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘যুবলীগের সবার আমলনামা আমার হাতে এসেছে। আমি সবার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলে দিয়েছি।’

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘যুবলীগের ঢাকা মহানগরের একজন নেতা যা ইচ্ছে করে বেড়াচ্ছে, চাঁদাবাজি করছে। আরেকজন দিনের বেলায় প্রকাশ্যে অস্ত্র উঁচিয়ে চলেন। যারা অস্ত্রবাজি করেন, যারা ক্যাডার পোষেন, তারা সাবধান হয়ে যান। তা না হলে, যেভাবে জঙ্গি দমন করা হয়েছে, একইভাবে তাদেরকেও দমন করা হবে।’

যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের নেতা খালেদ মাহমুদ ভুঁইয়া ও ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটকে ইঙ্গিত করেই প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেছিলেন বলে কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

এদিকে যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। বুধবার সন্ধ্যায় তাকে তার গুলশানের বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, ‘আপনারা বলছেন ৬০টি ক্যাসিনো আছে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আপনারা ৬০ জনে কি এত দিন আঙুল চুষছিলেন? তাহলে যে ৬০ জায়গায় এই ক্যাসিনো, সেই ৬০ জায়গার থানাকে অ্যারেস্ট করা হোক। সেই ৬০ থানার যে র‌্যাব ছিল, তাদের অ্যারেস্ট করা হোক।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমাকে অ্যারেস্ট করবেন? করেন। আমি রাজনীতি করি। ১০০ বার অ্যারেস্ট হব। আমি অন্যায় করেছি। কিন্তু আপনারা কী করেছেন? আপনারা অ্যারেস্ট করবেন। আমি বসে থাকব না। আপনাকেও অ্যারেস্ট হতে হবে। কারণ, আপনি প্রশ্রয় দিয়েছেন।’

ইত্তেফাক/জেডএইচ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৩ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন