ঢাকা মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২১ °সে


শুদ্ধি অভিযান চাই ঘরে বাইরে

শুদ্ধি অভিযান চাই ঘরে বাইরে

জয়নুল আবেদীন স্বপন

সৌন্দর্যের পেছনে কাজ করে চরিত্র। চরিত্র একটা শক্তি। উত্তম চরিত্র গাছের মতো ছায়া দেয়। মনের চোখ দিয়ে সৌন্দর্য দেখতে হয়। যার ভেতরটা সুন্দর সেই সুন্দর মানুষ। মাকাল ফল ওপরে ভালো কিন্তু ভেতরে কালো। মানুষের ভেতরের কুিসত চিন্তাগুলো দূর করতে না পারলে শুদ্ধ মানুষ হওয়া যাবে না। মানুষের মানবিক বোধগুলো বিবেকগুলো কুলষিত হলে জীবন ধ্বংসের দিকে চলে যায়। শুদ্ধ হতে গেলে মনের বর্জ্য সাফ করতে হবে। পরিশুদ্ধ ও পবিত্র মন নিয়ে কাজ না করলে সৌন্দর্যের আলোতে আলোকিত হওয়া যায় না। মানুষ জন্মগতভাবে খারাপ থাকে না। পরিবেশগত কারণে খারাপ হয়। অপরের ভালো করতে না পারলেও কারো ক্ষতির চিন্তা করা যাবে না। সাধ্যমতো ভালো থাকার, নিজেকে শুদ্ধ করার চেষ্টা করতে হবে।

বর্তমানে পরিচ্ছন্ন দেশপ্রেমিক ও সত্ নেতার বড়ো অভাব। ভদ্রবেশী প্রতারকদের আক্রমণে অতিষ্ঠ মানুষের জীবন। নিরীহ ও ভীত মানুষগুলো প্রতারণার শিকার হচ্ছে দিন দিন। দালালদের খপ্পরে পড়ে বিদেশ যেতে, দেশে চাকরি পেতে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে হচ্ছে। হাজারো ধরনের প্রতারণার মধ্যে অনলাইন প্রতারণা, ফেসবুক প্রতারণা, শিক্ষায় প্রতারণা, চিকিত্সায় প্রতারণা, ব্যাংকে প্রতারণা, রাজনৈতিক প্রতারণা, পারিবারিক প্রতারণা উল্লেখযোগ্য। অনেকে গুজব ছড়িয়ে প্রতারণা করেও সুবিধা নেয়। প্রতারকরা মানুষকে লোভ দেখিয়ে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয়। সব ধরনের প্রতারককে চিহ্নিত করে শুদ্ধি অভিযান চালাতে হবে। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘দলের ভেতরে শুদ্ধি অভিযান চলছে, চলবে। যতোদিন সন্ত্রাস, মাদক ও দুর্নীতি বন্ধ না হবে, ততোদিন অভিযান চলবে।’ গৌরবোজ্জল ঐতিহ্যকে ফিরিয়ে আনার জন্য ইতিমধ্যে ছাত্রলীগ ও যুবলীগেও শুদ্ধি অভিযান চলছে। গ্রেফতার এড়াতে অনেকে বিদেশে পালিয়ে যাচ্ছে। সমাজের বিভিন্ন অপকর্ম, দুর্নীতি ও অন্যায়ের পেছনে যারা কাজ করছে তাদেরও গ্রেফতার করা হোক। পরিচ্ছন্ন, দেশপ্রেমিক ও সত্ নেতাদের সম্মুখে আসার সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। এতে সাধারণ মানুষ আশ্বস্ত হবে।

সমাজের রন্ধ্রে রন্ধে দুর্নীতি ব্যাধির রূপ নিয়েছে। টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি, মাদক, জুয়ার আসর রোধ করতে না পারলে দেশ উন্নত হবে না। দুর্নীতিবাজ, দখলবাজ, ঘুষখোর, ধর্ষক অপরাধী যেই হোক ছাড় দেওয়া যাবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুদ্ধি অভিযান দেশে বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। শুদ্ধি অভিযান তৃণমূলেও চলুক। উদার গণতন্ত্র ও সুশাসন উপহার দেওয়াই ছিল এই সরকারের রাজনৈতিক অঙ্গীকার। প্রতিক্ষেত্রে সরকারের কাছে আমরা ভালো কিছু আশা করি। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর বিতর্কিত কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধেও শুদ্ধি অভিযান চালাতে হবে। এক কথায়, অপকর্ম যারা করবে তারাই যেন নজরদারিতে থাকে। সচ্ছলভাবে, মর্যাদা নিয়ে বাঁচার অধিকার সবার আছে। সবার জীবনে সমৃদ্ধি আনতে একসঙ্গে অন্যায়-অসত্য রুখে দাঁড়াতে হবে। আমরা মনের গভীরে সুখের আলো জ্বালাতে চাই।

গাজীপুর

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১০ ডিসেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন