ঢাকা সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬
৩৩ °সে


রাবি ছাত্রলীগের সিট বাণিজ্য

রাবি ছাত্রলীগের সিট বাণিজ্য

সুযোগ মিলছে বহিরাগতদেরও

রাবি সংবাদদাতা

কর্তৃপক্ষকে তোয়াক্কা না করে রাজনীতি করার শর্তে এবং টাকার বিনিময়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে আবাসিকতার সুযোগ করে দিচ্ছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, দলীয় কর্মী কিংবা পছন্দের ছোটো ভাইকে কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়াই হলে সিট করে দিচ্ছে তারা। অথচ হলে সংযুক্তি আছে অথবা হল প্রশাসন আবাসিক সুযোগ দিয়েছে এমন কোনো শিক্ষার্থীরও ছাত্রলীগের সুপারিশ ছাড়া হলে ওঠার সুযোগ নেই। বাধ্য হয়ে শিক্ষার্থীদের সিটের জন্য হল কর্তৃপক্ষের বদলে ছাত্রলীগ নেতাদের কাছে ধর্না দিতে হচ্ছে। নেতাকর্মীদের এমন বেপরোয়া সিট-বাণিজ্যে কোণঠাসা হয়ে পড়েছে প্রশাসন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ছাত্র হলের এক প্রাধ্যক্ষ বলেন, গায়ের জোরে কিংবা দল ভারি করা যা-ই হোক না কেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা হলগুলোতে এসব করছে। আমাদের কিছু করার নেই। যারা অবৈধ তাদের হল থেকে বের করে দিলে বা কিছু বললে আমাদের ওপর চড়াও হয়। আবার দলীয় চাপও আছে।

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শের-ই-বাংলা এ কে ফজলুল হক, মাদার বখশ্, নওয়াব আবদুুল লতিফ, শহীদ সোহ্রাওয়ার্দী, শহীদ হবিবুর রহমানসহ প্রায় সব ছাত্র হলেই অবৈধভাবে সিট দখল করে রেখেছে ছাত্রলীগ। হলগুলোতে ‘পলিটিক্যাল ব্লক’ নাম দিয়ে সেখানে অবৈধভাবে দলীয় কর্মী ও বহিরাগতদের সিট দিচ্ছে নেতাকর্মীরা।

এ বিষয়ে রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, আমরা দু-একদিনের মধ্যেই হলের দায়িত্বে থাকা নেতাকর্মীদের নিয়ে বসব। হলগুলোতে স্বাভাবিক পরিস্থিতি যেন বজায় থাকে সে চেষ্টা করব। হল প্রাধ্যক্ষ পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক রেজাউল করিম বকসী বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে শুনেছি। আগামী দুয়েক দিনের মধ্যেই উপাচার্যের সঙ্গে বসে এগুলো কীভাবে বন্ধ করা যায়, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেব।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২১ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন