ঢাকা সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬
৩৩ °সে


বংশীর বুকে অসংখ্য অবৈধ স্থাপনা

বংশীর বুকে অসংখ্য অবৈধ স্থাপনা

কালিয়াকৈর অংশে নদী ভরাট করে গড়ে তোলা

হয়েছে ঘরবাড়ি, রাইস মিল, ইটভাটা

আরিফ হোসেন খোকন, কালিয়াকৈর (গাজীপুর) সংবাদদাতা

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে এককালের প্রমত্তা বংশী নদী তার নাব্য হারিয়ে জবরদখলের কারণে এখন সরু খালে পরিণত হয়েছে। নদীতীরবর্তী বহু সেচ প্রকল্প বন্ধ হয়ে গেছে। নদীর জমিতে অবৈধভাবে গড়ে উঠেছে ঘরবাড়ি, ইটভাটাসহ শত শত অবৈধ স্থাপনা। স্থানীয় প্রভাবশালী মহল অবৈধভাবে নদীর বুক ভরাট করে চাষাবাদ করছে। সুযোগ বুঝে স্থানীয় ঠিকাদাররা নদী থেকে নির্বিঘ্নে লাখ লাখ টাকার মাটি কেটে নিয়ে কলকারখানায় পাচার করছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, বংশী নদী পুরাতন ব্রক্ষপুত্রের শাখা নদী। এর দৈর্ঘ্য মোট ২৩৮ কিলোমিটার। নদীটি জামালপুরে ব্রহ্মপুত্র নদ থেকে উত্পন্ন হয়ে দক্ষিণে টাঙ্গাইল ও গাজীপুর জেলা অতিক্রম করে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধের পাশ দিয়ে প্রবাহিত হয়ে আমিনবাজারে এসে তুরাগ নদের সঙ্গে মিলিত হয়েছে। এই নদী চারটি জেলা যথাক্রমে জামালপুর, টাঙ্গাইল, গাজীপুর ও ঢাকার ১০টি উপজেলার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। বংশী নদীর কালিয়াকৈর উপজেলার উত্তর হিজলতলী থেকে ধামরাই পর্যন্ত গতিপথের প্রায় ২০ কিলোমিটারই নাব্য হারিয়ে সরু খালে পরিণত হয়েছে। দুই দশক আগেও কালিয়াকৈর থেকে ধামরাই ত্রিমোহনা পর্যন্ত নদীপথের দুই ধারে শতাধিক সেচ প্রকল্প চালু ছিল। উপজেলার উত্তর হিজলতলী, বরইতলী, নয়ানগর, বাজহিজলতলী, বলিয়াদী, ডুবাইল, বেগুনবাড়ীসহ বিভিন্ন এলাকায় নদীর জমি জবরদখল করে অবৈধভাবে ঘরবাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান নির্মাণ করায় এর পানির প্রবাহ বন্ধ হয়ে গেছে। এতে জমিতে সেচের সুবিধাও বন্ধ হয়ে গেছে।

উপজেলায় বংশী নদীর শতকরা ৫০ ভাগ জায়গাই এখন বেদখল হয়ে গেছে। স্থানীয় প্রভাবশালী মহল ভরাট হওয়া নদীর বেশির ভাগ জায়গাতেই ঘরবাড়ি, ইটভাটাসহ কয়েকশ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান নির্মাণ করেছে। সরকারিভাবে কাউকে লিজ দেওয়া না হলেও প্রভাবশালী ব্যক্তিরা ‘জোর যার মুল্লুক তার’ নীতিতে নদীর বুক ভরাট করে হাজার হাজার বিঘা জমি দখল করে সম্পূর্ণ অবৈধভাবে চাষাবাদ করছে। বংশী নদীর চরাঞ্চল ও তীর মেপে পিলার বসিয়ে দখলকৃত জমি সরকারি দখলে নিয়ে নদীটি খনন করার দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২১ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন