বুড়িগঙ্গার পাড়ে সুয়্যারেজ লাইন থাকলে বন্ধ করুন: হাইকোর্ট

প্রকাশ : ০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ইত্তেফাক রিপোর্ট

ওয়াসাসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের ৬৮টি সুয়্যারেজ লাইন ছাড়া বুড়িগঙ্গার দুই পাড়ে আর কোনো সুয়্যারেজ লাইন থাকলে তা ৭ জানুয়ারির মধ্যে বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। এ সময়ের মধ্যে ঐসব সুয়্যারেজ লাইন বন্ধ করে আদালতে বিআইডব্লিউটিএকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল মঙ্গলবার এই আদেশ দেন। আদালত বলেছে, বুড়িগঙ্গায় ৬৮টি যে সুয়্যারেজ লাইন আছে তা বন্ধ করতে হবে ওয়াসাকেই। আদালতের আদেশের বিষয়টি সাংবাদিকদের জানান রিটকারী আইনজীবী মনজিল মোরসেদ।

এদিকে পুরান ঢাকার শ্যামপুরে ২৭টি প্রতিষ্ঠানের বাইরে আর কোনো প্রতিষ্ঠান পরিবেশগত ছাড়পত্র ছাড়া পরিচালিত হচ্ছে কিনা সে বিষয়ে প্রতিবেদন চেয়েছে হাইকোর্ট। এর আগে পরিবেশ অধিদপ্তর হাইকোর্টে প্রতিবেদন দিয়ে বলেছিল, ১০টি হাসপাতাল এবং ১৭টি বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠান পরিবেশগত ছাড়পত্র ছাড়াই তাদের প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছে। ঐ সময় হাইকোর্ট বলেছিল, যেসব প্রতিষ্ঠান ইটিপি স্থাপন করেনি, তাদের তিন মাস সময় দেওয়া হলো। এই সময়ের মধ্যে ইটিপি স্থাপন করতে না পারলে ঐ সব প্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হলো। আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে আইনজীবী মনজিল মোরসেদ, পরিবেশ অধিদপ্তরের পক্ষে আমাতুল করিম ও ওয়াসার পক্ষে এ এম মাছুম, বিআইডব্লিউটিএর পক্ষে সৈয়দ মফিজুর রহমান শুনানি করেন।