ঢাকা বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬
২৭ °সে


‘মানব ইতিহাসে রোহিঙ্গা ইস্যু ভয়াবহ বর্বরতা’

গোলটেবিল বৈঠক
‘মানব ইতিহাসে রোহিঙ্গা ইস্যু ভয়াবহ বর্বরতা’

ইত্তেফাক রিপোর্ট

‘রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর মানবিক মর্যাদা : বাংলাদেশ প্রেক্ষিত’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে বিশিষ্ট কলামিস্ট ও গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেছেন, মানবজাতির ইতিহাসে রোহিঙ্গা ইস্যু একটা ভয়াবহ বর্বরতা। এই মুহূর্তে পৃথিবীতে অং সান সু সুচির চেয়ে ঘৃণিত ব্যক্তি আর নেই। একের পর এক তাঁর পদকগুলো ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে তাঁর যেভাবে ভূমিকা পালন করা উচিত ছিল, তা তিনি করেননি। তাই পদকগুলো ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। গতকাল স্থানীয় একটি হোটেলে আয়োজিত এক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। কোস্টাল অ্যাসোসিয়েশন ফর সোশ্যাল ট্রান্সফরমেশন ট্রাস্ট (কোস্ট) এবং দৈনিক সমকালের যৌথ উদ্যোগে গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শরণার্থী, ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার আবুল কালাম আজাদ, ইউএনএইচসিআর এর বাংলাদেশ প্রতিনিধি স্টিভেন কর্লিক্স, কোস্টের নির্বাহী পরিচালক রেজাউল কমির চৌধুরী, কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি আবু মোর্শেদ চৌধুরী প্রমুখ। স্টিভেন কর্লিক্স বলেন, রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ জাতি গর্ববোধ করতে পারে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ সরকারের ভূমিকা প্রশংসনীয়। এদের ফেরত দেওয়ার আগ পর্যন্ত মানবিক মর্যাদা নিশ্চিত করতে হবে।

আবুল কালাম আজাদ বলেছেন, রোহিঙ্গাদের পজিটিভ দিক আছে। রোহিঙ্গা মানে ইয়াবা নয়। ইয়াবার গডফাদাররা আমাদের দেশের। তারা রোহিঙ্গাদের ব্যবহার করছে। নানা কারণে রোহিঙ্গাদের মধ্যে অস্থিরতার সৃষ্টি হয়েছে। কারণ তারা তাদের ভবিষ্যত্ দেখতে পাচ্ছে না। রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো হবে স্থায়ী সমাধান।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৭ জুলাই, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন