ঢাকা শনিবার, ২০ জুলাই ২০১৯, ৫ শ্রাবণ ১৪২৬
৩০ °সে


গানে নাচে বর্ষা বন্দনা

গানে নাচে  বর্ষা বন্দনা
গতকাল শিল্পকলা একাডেমির উদ্যোগে ও নিজস্ব মিলনায়তনে আয়োজিত ‘বর্ষামঙ্গল’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন —শামসুদ্দিন আহমেদ চারু

বৃষ্টি যেভাবে মানুষকে আকূল করে তা বোধহয় অন্য কোনো ঋতু তা করে না। ঝুম বৃষ্টি দেশজুড়ে। এ বর্ষায় বাঙালি মাত্রই হয়ে ওঠে বিরহী। তাই শিল্পীরা মেতে উঠেছিলেন বর্ষা বন্দনায়। তাই গতকাল বৃহস্পতিবার শিল্পকলা একাডেমি আয়োজিত অনুষ্ঠানের শিরোনাম ছিল ‘বর্ষামঙ্গল’। একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে বসে এ আয়োজন। অনুষ্ঠানের শুরুতে সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা কথনে অংশ নেন একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।

সমবেত গানের সুরে শুরু হয় পরিবেশনা পর্ব। গানের মাঝে ছিল মুদ্রার সঙ্গে অভিব্যক্তির সম্মিলনে নয়নজুড়ানো নৃত্য পরিবেশনা। বৃন্দ নৃত্য পরিবেশনায় অংশ নেয় একাডেমির শিল্পীরা। একক কণ্ঠের পরিবেশনায় হিমাদ্রী রায় গেয়ে শোনান ‘সখী বাঁধলো বাঁধলো ঝুল নিয়া’ শীর্ষক সংগীত। সোহানুর রহমানের কণ্ঠে গীত হয় ‘এই মেঘলা দিনে একলা ঘরে থাকে না মন’। ‘যদি মন কাঁদে তুমি চলে এসো’ শিরোনামের গান শোনান সুচিত্রা সূত্রধর। আবিদা রহমান সেতু গেয়ে শোনান ‘আকাশ মেঘে ঢাকা’। হীরক সর্দারের কণ্ঠে গীত হয় ‘সমুদ্রের কিনারে বসে’। রোখসানা আক্তার রূপসা শুনিয়েছেন ‘আষাঢ় মাইসা ভাসা পানি’। রাফিক তালুকদার পরিবেশন করেন ‘শ্রাবণের মেঘগুলো জড়ো হলো আকাশে’। এছাড়াও রবীন্দ্রসংগীত পরিবেশন করেন নবনীতা। ইয়াসমীন মুশতারি শুনিয়েছেন নজরুলসংগীত। আধুনিক গান গেয়েছেন রফিকুল আলম। লোকসংগীত পরিবেশন করেন আবু বকর সিদ্দীক। বর্ষানির্ভর কবিতা আবৃত্তি করেন কৃষ্টি হেফাজ।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২০ জুলাই, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন