ঢাকা সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯, ৯ বৈশাখ ১৪২৬
২৪ °সে

ঝিনাইদহে সংযোগ সড়কবিহীন ব্রিজ উপকারে আসছে না

ঝিনাইদহে সংযোগ সড়কবিহীন ব্রিজ উপকারে আসছে না
ঝিনাইদহ:সদর উপজেলার গাছা কুতুবপুর গ্রামে সড়কবিহীন ব্রিজ —ইত্তেফাক

ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গাছা কুতুবপুর গ্রামে রাস্তা নেই। অথচ শিরিষবাট খালের ওপর একটি ব্রিজ নির্মাণ করেছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়। ২০১৫ - ২০১৬ অর্থ বছরে ৪০ ফুট দৈর্ঘ ব্রিজটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ৪০ লাখ ৯০ হাজার টাকা। এখন এটি এলাকাবাসীর কোনো উপকারে আসছে না।

এলাকাবাসী জানান, শিরিশকাট খালের এক পাশে আছে কুমড়োবাড়িয়া ইউনিয়ন, অপর পাশে মহারাজপুর ইউনিয়ন। নির্মিত ব্রিজের পূর্ব পাশে এক’শ গজ দূরে আব্দুলের বাড়ির কাছ পর্যন্ত সরকারি একটি কাঁচা রাস্তা শেষ হয়েছে। এরপর আর সরকারি রেকর্ডভুক্ত রাস্তা নেই। ব্যক্তি মালিকানার জমি। ডেফলবাড়ি গ্রামের মোতালেব মন্ডলের অভিযোগ রাস্তাহীন স্থানে ব্রিজটি নির্মাণ করা হয়। রাস্তা করতে হলে তাদের পুকুর ভরাট করতে হবে। তা ছাড়াও পারিবারিক কবর সরাতে হবে। গাছপালা কাটতে হবে। এটা সম্ভব নয়। অপর দিকে গ্রামবাসী ছানারুদ্দিনের অভিযোগ ব্রিজের পশ্চিম মাথায় তাদের পাঁচ শরিকের ৩৫ শতক জমি আছে। এ জমিতে বাড়িঘর ও কবরস্থান আছে। রাস্তা করতে হলে বাড়িঘর ভাঙতে হবে। তাদের অন্য কোনো জমি নেই।

মহারাজপুর ইউপি মেম্বর জালাল উদ্দিন বলেন, ব্রিজ যেখানে করা দরকার ছিল সেখানে করা হয়নি। নির্মিত ব্রিজটি মানুষের কোনো উপকারে আসছে না।

মহারাজপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবু বকর বলেন, ব্রিজের পশ্চিম পাশে রাস্তার জন্য জমি দিতে চেয়েছিলেন মালিকরা। তারপর গত নির্বাচনে তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে পারেননি। জমির মালিকরা তাদের প্রতিশ্রুতি থেকে সরে যান।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী হাসিবুর রহমান জানান, প্রথমে আমরা ব্রিজ নির্মাণের প্রস্তাবটি বাতিল করে দিই। কিন্তু সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকরের রাস্তা করার জমির প্রতিশ্রুতি পেয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরে নতুন করে প্রকল্প পাঠিয়ে ব্রিজটি অনুমোদন করা হয়। রাস্তাটি করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ এপ্রিল, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন