ঢাকা সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
৩৪ °সে


দুদক আসছে জেনে ভাণ্ডারে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে গেলেন স্টোরকিপার

দুদক আসছে জেনে ভাণ্ডারে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে গেলেন স্টোরকিপার

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

দুদক কর্মকর্তারা হাসপাতাল চত্বরে পৌঁঁছাতেই ভাণ্ডারে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে গেলেন সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের স্টোরকিপার ফজলুল হক। তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। এমনকি তার মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া গেছে। বুধবার এ ঘটনা ঘটে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল সংলগ্ন সিভিল সার্জন অফিসে। এ ঘটনায় তাকে কারণ দর্শানোর নোটিস দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. রফিকুল ইসলাম।

২০১৭-১৮ অর্থ বছরে তিনটি পৃথক টেন্ডারে বরাদ্দকৃত ১৮ কোটি টাকার চিকিত্সা সরঞ্জাম ক্রয় না করে তা লোপাট করা হয়েছে— এমন অভিযোগে সাতক্ষীরাসহ জাতীয় পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। এ নিয়ে সাতক্ষীরার নাগরিক সমাজ আন্দোলন করছে। পত্রপত্রিকায় এসব খবর দেখে বুধবার দুদক খুলনা অফিস থেকে সহকারী পরিচালক শাওন মিয়াসহ দুদকের চার কর্মকর্তা সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে প্রাথমিক তদন্তে আসেন। তারা হাসপাতাল চত্বরে পৌঁছাতেই স্টোরকিপার ফজলুল হক ভাণ্ডারে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যান। ফজলুল হকের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে আগের দুটি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে দুদক।

দুদক কর্মকর্তা শাওন মিয়া জানান, তিনি বিষয়টি সিভিল সার্জনকে জানিয়ে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ করেছেন। তিনি জানান, স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নে বরাদ্দ ১৮ কোটি টাকার চিকিত্সা সরঞ্জাম অনিয়ম সংক্রান্ত যাবতীয় কাগজপত্র জব্দ করা হয়েছে।

সিভিল সার্জন ডা. রফিকুল ইসলাম জানান, অফিস চলাকালে কোনো কারণ ছাড়াই ভাণ্ডারে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে যাওয়ায় কারণ দর্শানোর জন্য নোটিস দেওয়া হবে স্টোর কিপারকে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২০ মে, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন