ঢাকা শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ৯ ভাদ্র ১৪২৬
৩০ °সে


ঝালকাঠিতে কৃষক বাচ্চু মিয়ার জমির ধান কেটে দিল ছাত্ররা

ঝালকাঠিতে কৃষক বাচ্চু মিয়ার  জমির ধান কেটে দিল ছাত্ররা
ঝালকাঠী:জেলার নলছিটির ডহরপাড়া গ্রামের কৃষক বাচ্চু মিয়ার খেতের ধান কাটছে ছাত্ররা —ইত্তেফাক

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার মগর ইউনিয়নের ডহরপাড়া গ্রামের কৃষক বাচ্চু হাওলাদারের জমির ইরি ধান কেটে দিল ছাত্ররা। বৃহস্পতিবার বিকালে বরিশালের বিভিন্ন কলেজের ছাত্ররা কৃষক বাচ্চুর এক একরের ধান কেটে দেয়।

আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে শ্রমিক সংকট হওয়ায় এবং ধানের ন্যায্যমূল্য না থাকায় ছাত্ররা কৃষকের এই ধান কেটে দেওয়ার উদ্যোগ নেয়। বংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন বরিশালের আহবায়ক বিএম কলেজের স্নাতক বিভাগের শিক্ষার্থী নবীন আহম্মেদ এই দলের নেতৃত্ব দেন। তার সাথে সহযোগিতায় ছিলেন বরিশাল সিটি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক মানবিক শাখার ছাত্র সাইদুল ইসলাম শাকিব, পটুয়া খালীর কদমতলা কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের ছাত্র আরিফুর রহমান, বরিশাল পলিটেকনিক্যাল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মিশু মিয়া ও হাতেম আলী কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র মো. সেজান।

দলনেতা নবীন আহম্মেদ বলেন, সারাদেশে ভালো ফলন হলেও কৃষকরা ধানের ন্যায্য দাম পাচ্ছে না। এর পাশাপাশি শ্রমিক সংকট থাকায় অধিক মূল্যে পারিশ্রমিক দিয়ে কৃষকের ধান কাটা সম্ভব হচ্ছে না। তাই আমরা নলছিটির এই ডহরপাড়া গ্রামের কৃষক বাচ্চু মিয়ার জমির ধান কেটে তাকে সহযোগিতা করছি। আমরা ধান কেটে দেওয়ায় শ্রমিক মজুরি না দিয়ে কৃষক বাচ্চু মিয়া এই ধান বিক্রি করে হয়তো কিছুটা হলেও লাভবান হতে পারে।

অপর শিক্ষার্থী মিশু মিয়া বলেন, আমরা এই কৃষকের শুধু ধান কেটেই দেব না, বাড়ি পর্যন্ত ধান পৌঁছে দেব।

এ প্রসঙ্গে কৃষক বাচ্চু হাওলাদার জানান, অর্থাভাবে শ্রমিক দিয়ে আমার ধান কাটা সম্ভব হয়নি। সম্প্রতি ঘূর্ণিঝড় ফণীর প্রভাবে আমার এক একর জমির ধান পানিতে মিশে গেছে। তাই অগ্রিম এ ধান বিক্রির চেষ্টা করেও ব্যর্থ হওয়ায় এবং আমি শারীরিকভাবে অসুস্থতার কারণে এতদিন ধান কাটতে পারিনি। ছাত্ররা এসে আমার যে উপকার করেছে এজন্য আমি তাদের কাছে ঋণি হয়ে থাকব।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২৪ আগস্ট, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন