ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬
৩৪ °সে


লালপুরে আমে বিষ স্প্রে চলছে

লালপুরে আমে  বিষ স্প্রে চলছে
লালপুর (নাটোর) :আমে কীটনাশক স্প্রে করার ছবিটি উপজেলার টুসপাড়া থেকে তোলা —ইত্তেফাক

বিষের পরিবর্তে সেক্স ফেরোমিন ফাঁদ ব্যবহারের পরামর্শ

লালপুর (নাটোর) সংবাদদাতা

বাজারে আম আসতে শুরু করেছে। অথচ লালপুর উপজেলায় আম বাগানের আমে এখনো বিষ স্প্রে চলছে। বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, যেসব আম দেরিতে বাজারে আসবে কৃষি বিভাগের পরামর্শেই সেসব আম পোকার আক্রমণ থেকে রক্ষা করতে ও রঙ ভালো করতে তারা লিবারেল (বোরণ), ইফেক্ট (ল্যাম্বডাসইহেলোথ্রিন), নাটিভো, ক্যাবরিও ‘টপ’ ইত্যাদি ওষুধ স্প্রে করছেন। তবে কৃষি বিভাগ বলছে, পোকা দমনে তারা আমে বিষ প্রয়োগের পরিবর্তে সেক্স ফেরোমিন ফাঁদ ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছেন।

উপজেলার ঢুসপাড়া গ্রামের একটি আম বাগানে আমে বিষ স্প্রে করছিলেন আম ব্যবসায়ী আশরাফুল আলম। তিনি জানান, যেসব গাছের আমে বিষ দেওয়া হচ্ছে তা বাজারে আসতে সময় লাগবে এখনো এক মাস। আর যেসব আম গাছ থেকে নামানোর সময় হয়েছে বা ১০/১৫ দিনের মধ্যে নামানো হবে তাতে কোনো রকম ওষুধ প্রয়োগ করি না। তিনি দাবি করেন, প্রায় প্রতিমাসেই আম চাষ বিষয়ে তাদের প্রশিক্ষণ হয়। তাছাড়া কৃষি বিভাগের পরামর্শেই তারা আমে ওষুধ প্রয়োগ করেন। আশরাফুল বলেন, গত বছর আমে বিষ দেওয়া নিয়ে ভ্রান্ত প্রচারণার কারণে তার প্রায় ২৩ লাখ টাকা লোকসান গুণতে হয়েছে। দুই ট্রাক আম ঢাকায় নিয়ে ফেলে দিতে হয়েছে। তিনি আমে বিষ প্রয়োগ নিয়ে মানুষকে বিভ্রান্ত না করার জন্য গণমাধ্যম ও সরকাররের প্রতি আহবান জানান।

উপজেলার বাহাদীপুর গ্রামের আম ব্যবসায়ী মধু জানান, কিছু কিছু বাগানের আমে হপার নামে এক ধরনের পোকার আক্রমণ দেখা দিচ্ছে। ফলে খিরশাপাত, ফজলি, আশ্বিনাসহ যেসব আম পাকতে এখনো অনেক দেরি সে সব গাছে হালকা বিষ স্প্রে করা হচ্ছে।

লালপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, যেসব আম পাকতে এক থেকে দেড় মাস বাকি সে সব আমে পরিমিত ওষুধ প্রয়োগে তেমন সমস্যা নেই। তবে ওষুধ প্রয়োগের পরিবর্তে আমরা আম গাছে সেক্স ফেরোমিন ফাঁদ ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছি। কাউকেই আমে বিষ প্রয়োগে উত্সাহ দিচ্ছি না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উম্মুল বানীন দ্যুতি জানান, উপজেলার বিভিন্ন এলাকার আম বাগান ঘুরে আমে যে কোনো প্রকার বিষ বা রাসায়নিক ব্যবহারে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। কোনো বাগান মালিক বা ব্যবসায়ী আমে বিষ বা রাসায়নিক ব্যবহার করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন