ঢাকা সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২০ °সে


ব্রাহামা জাতের গরুর কদর বাড়ছে

ব্রাহামা জাতের গরুর কদর বাড়ছে

আবুল কাসেম ভূঁইয়া

বাংলাদেশে গরুর মাংসের উত্পাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর ২০১৩ সালের দিকে যুক্তরাষ্ট্রের উন্নতজাতের গরু ব্রাহামার বীজ আমদানি করে। দেশের গরুর খামারিদের মাঝে ব্রাহামাজাতের গরুর বিজ বিনামূল্যে দেওয়া হচ্ছে। সরকার বিট ক্যাটল ডেভেলপ প্রকল্পের মাধ্যমে ব্রাহামা গরুর উত্পাদন বৃদ্ধির কাজ ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে। দেশের ১০০টিরও বেশি উপজেলায় এই প্রকল্পের কাজ চলছে।

ব্রাহামা জাতের গরু পালনের মাধ্যমে বাণিজ্যিকভাবে লাভবান হওয়ার যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে। কারণ ব্রাহামা জাতের গরু থেকে বাংলাদেশি গাভীকে সিমেন দেওয়া হলে সেখান থেকে জন্ম নেয়া বাছুর পরিণত বয়সে এক হাজার কেজি পর্যন্ত হতে পারে। ব্রাহামা জাতের গরুর দৈহিক বৃদ্ধি দৈনিক এক থেকে দেড় কেজি পর্যন্ত হয়। অপর দিকে, দেশি গরুর দৈহিক বৃদ্ধি দৈনিক ২০০ থেকে ২৫০ গ্রাম। এই ব্রাহামা জাতের গরু লালন পালন তেমন জটিল নয়। কারণ সাধারণ দেশি গরু যে খাবার খায় তার চেয়ে কম খাবার এরা খায়।

সাধারণত কাঁচা ঘাস, খড় আর ভুসি দিলেই এদের চলে। বাড়তি কোনো খাবার দিতে হয় না। স্বাভাবিকভাবে এরা দ্রুত বেড়ে ওঠে। গরুকে মোটা তাজা করণের জন্য স্টেরয়েড গ্রুপের নিষিদ্ধ কোনো ওষুধও খাওয়াতে হবে না। কিংবা বাড়তি হরমোন প্রয়োগের প্রয়োজন নেই। কৃত্রিম সব পন্থা ছাড়াই এই ব্রাহামা গরু সাধারণ গরুর চেয়ে সাত-আটগুণ মাংসের জোগান দিয়ে থাকে। ব্রাহামা জাতের গরুর ব্যাপারে গরু খামারিদের মাঝে ব্যাপক উত্সাহ দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে ১৫০ জন খামারি তাদের খামারে ব্রাহামা জাতের গরুর উত্পাদন করার ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

সরকার দেশে ব্রাহামা জাতের গরুর সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য ভর্তুকি দিয়ে এইজাতের গরুর সিমেন বিদেশ থেকে আমদানি করেছে। ব্রাহামাজাতের গরু দেখতে বিশাল আকৃতির হয়ে থাকে। এই গরুর মাংস খাওয়া নিয়ে অনেকের আপত্তির ব্যাপারে পুষ্টিবিদরা বলেন দেশি গরুর মাংস আর ব্রাহামা জাতের গরুর মাংসের মধ্যে কোনো প্রার্থক্য নেই। একই রন্ধন প্রক্রিয়ায় রান্না করলে মাংসের একই স্বাদ পাওয়া যায়। আমাদের দেশে কোরবানির ঈদের সময় অনেকে শখ করে ব্রাহামা জাতের গরু ক্রয় করে থাকেন। একটি ব্রাহামা জাতের গরুর দাম তিন থেকে চার লাখ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন