ঢাকা রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬
৩০ °সে


উত্সবের অর্থনীতি

কেনাকাটায় চাঙ্গা ঈদবাজার

কেনাকাটায় চাঙ্গা  ঈদবাজার

বিভিন্ন উত্সব ঘিরে নানা ধরনের ব্যবসায়িক কর্মকান্ড অর্থনৈতিক গতি প্রবাহ বাড়িয়ে তোলে। বিপর্যস্ত, ঝিমিয়ে পড়া, স্থবির অর্থনীতিতে নতুন আশার আলো জাগিয়ে তোলে

রেজাউল করিম খোকন

ঈদ উত্সবের আমেজে অর্থনীতিতে চাঙাভাব সৃষ্টি হয়েছে। অর্থনীতি আবর্তিত হচ্ছে রমজান ও ঈদবাজারকে ঘিরে। শহর থেকে প্রত্যন্ত গ্রাম পর্যন্ত ঈদের কেনাকাটায় ব্যস্ত সবাই। ব্যবসা বাণিজ্য ও পণ্য উত্পাদনে আলাদা গতির সঞ্চার হয়েছে। ঈদবাজারকে ঘিরে এবার কয়েক হাজার কোটি টাকার আর্থিক লেনদেন হবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্ট মহল।

রাজধানী ঢাকা থেকে শুরু করে সকল বিভাগীয় শহর জেলা শহর, উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন মার্কেট, বিপণি বিতানে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত বিভিন্ন দোকানে ক্রেতাদের ভিড় এবং কেনাকাটার ব্যস্ততা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। এখন দর্জির দোকানগুলোতে রাতদিন সমানে কাজ চলছে। দেদারসে নতুন পোশাক তৈরির অর্ডার নিচ্ছেন দোকানিরা। এভাবে চলবে ঈদের আগ পর্যন্ত। ঈদ উত্সবে আয় উপার্জনের নানা উপায় সৃষ্টি হয় বলে বাড়তি আয়ের আশায় নগরীতে ছুটে আসছে বিভিন্ন পেশাজীবী মানুষ। সব শ্রেণি পেশার মানুষের আয় উপার্জন বৃদ্ধির প্রচেষ্টা জানান দিচ্ছে উত্সবের। বড় বড় বিপণি কেন্দ্র, সুপার মার্কেটে বিশেষভাবে সাজসজ্জা করা হয়েছে, ক্রেতাদের আকৃষ্ট করতে কেনাকাটার জন্য লাকি কুপন দেওয়া হচ্ছে। যাতে অনেক মূল্যবান পুরস্কার সামগ্রীর ব্যবস্থা রয়েছে। পুরস্কারের আশায় অনেকে তেমন বিপণি বিতান ও সুপার মার্কেটে ঈদের কেনাকাটা করতে পরিবারের সবাইকে নিয়ে ভিড় করছেন। ঈদ উত্সবের কেনাকাটা এখন শুধু, পোশাক-আশাক, গয়নাগাটিতে সীমাবদ্ধ নয়। ঈদে বেতনের অতিরিক্ত বোনাসের টাকায় কেউ কেউ ঘরের পুরনো টিভি, ফ্রিজ, এয়ার কন্ডিশনার বদলে নতুন মডেলের ইলেকট্রনিক পণ্য কিনতে দোকানে ভিড় করছেন। ফলে ইলেকট্রনিক বাজারও বেশ জমজমাট বলা যায়। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে উত্সবগুলোতে বিভিন্ন পণ্যের মূল্য ছাড় দেওয়ার ব্যবস্থা থাকলেও আমাদের এখানে ঈদ উত্সবে বিভিন্ন পণ্য সামগ্রীর মূল্য বাড়িয়ে দেন ব্যবসায়ীরা।

ঈদের লম্বা ছুটিতে বাবা মা, প্রিয়জনদের সঙ্গে উত্সবের আনন্দময় মুহূর্তগুলো কাটাতে গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার আয়োজন শুরু করেছেন অনেকেই। এ কারণে ট্রেন বাস লঞ্চের অগ্রিম টিকিট সংগ্রহ করতে কাউন্টারের সামনে আগ্রহী ক্রেতার জমজমাট ভিড় লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সুযোগ বুঝে অনেক পরিবহন কোম্পানি ঈদ যাত্রায় যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি, অনেক ক্ষেত্রে দ্বিগুণ হারে ভাড়া দাবি করছেন। ঈদ উত্সবে আজকাল অনেকে নাগরিক কোলাহল, ব্যস্ততা, মানসিক চাপ থেকে খানিকটা মুক্তি পেতে বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রে পরিবার পরিজনসহ বেড়াতে যান। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। ইতোমধ্যে পর্যটন নগরী কক্সবাজারের বেশির ভাগ হোটেল, রিসোর্টের সব রুম বুক হয়ে গেছে বলে জানা যায়। একই অবস্থা রাঙ্গামাটি, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার হোটেল এবং রিসোর্টগুলোতে লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ঈদ উত্সবে পর্যটন শিল্পেও নতুন গতির সঞ্চার হয় আজকাল।

ঈদ উত্সবকে কেন্দ্র করে ব্যাংকিং লেনদেন বেড়েছে কয়েকগুণ। পাশাপাশি ঈদ উপলক্ষে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের পরিমাণ বেড়েছে। প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের অর্থ ঈদ উপলক্ষে কেনাকাটায়, ভোগবিলাস, খাওয়া দাওয়ায় খরচ করা হয় সাধারণত। ঈদ বাজারে ফলশ্রুতিতে অর্থ প্রবাহ বেড়ে গেছে। ঈদ উত্সবে যাকাত ফেতরার পাশাপাশি আলাদাভাবে দান খয়রাত দুস্থ দরিদ্র শ্রেণির সাময়িক আর্থিক ওয়েভ সৃষ্টি করেছে। ঈদ উত্সবে আর্থিক প্রবাহ বৃদ্ধির প্রকাশ ব্যাংকিং সেক্টরে বাড়তি চাপ সৃষ্টি করে। ব্যাংকের শাখাগুলোতে টাকা তোলা ও জমা করার পরিমাণ বেড়ে গেছে ইতোমধ্যে। ফলে ছুটির দিনগুলোতেও ব্যাংক খোলা রাখতে হয় গ্রাহকদের সুবিধার্থে। ঈদ উত্সবে নতুন টাকার নোটের চাহিদা তুঙ্গে পৌঁছে। এবার বাংলাদেশ ব্যাংক ১৭ হাজার কোটি টাকার নতুন নোট বাজারে ছেড়েছে।

দুনিয়া জুড়ে উত্সবের অর্থনীতি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। বিভিন্ন উত্সব ঘিরে নানা ধরনের ব্যবসায়িক কর্মকান্ড অর্থনৈতিক গতি প্রবাহ বাড়িয়ে তোলে। বিপর্যস্ত, ঝিমিয়ে পড়া, স্থবির অর্থনীতিতে নতুন আশার আলো জাগিয়ে তোলে। বাংলাদেশে প্রায় তিন কোটির মতো মানুষ ছোট কিংবা বড় ব্যবসার সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত এবং বিভিন্ন উত্সবকে কেন্দ্র করে তাদের ব্যবসা হয়ে ওঠে রমরমা। ঈদকে কেন্দ্র করে ব্যবসায়ীদের ব্যবসার আকার বেড়ে যাওয়ায় দেশে অর্থনীতিতে অধিক পরিমানে অর্থের সঞ্চালন হচ্ছে। ফলে অর্থনীতিতে তেজিভাব সৃষ্টি হয়েছে, তা বলাই বাহুল্য।

ছবি: ইন্টারনেট

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৮ আগস্ট, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন