রুটিন

প্রকাশ : ০৮ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  ফারজানা রহমান শিমু

সাত সকালে সূয্যি মামার মন রাঙে

অ্যালার্ম বেলে আমার তখন ঘুম ভাঙে।

ব্রাশ করে আর মুখ ধুয়ে যাই ডাইনিংয়ে

চমকে উঠি ডোরবেলের ঐ ক্রিং ক্রিংয়ে।

ড্রেস পরি মা’র বকবকানির এক ফাঁকে

হাত বাড়িয়ে আঁকড়ে ধরি ব্যাগটাকে।

ছুটতে থাকি বুয়াখালার হাত ধরে

ব্যাগের মধ্যে টিফিন বক্সটি না ভরে।

অবসরে খিদের জ্বালায় বুক জ্বলে

মাঝে মাঝে টিচারদেরও মন গলে।

গুণে গুণে পাঁচটি ঘণ্টা শেষ হলে

বাড়ির পানে ছুটতে থাকি এক দলে।

ফেরার পরও সুখ থাকে না, তাই শোনো

প্রাইভেটেরও থামাথামি নেই কোনো।

হুজুর এলে মন হয়ে যায় বড্ড ভার

পড়াশোনার ইচ্ছে তখন থাকে আর!

মনের মধ্যে খেলাধুলার রাজ্যপাট

কোত্থেকে সব ছুটে এসে বসায় হাট।

রাত্রি এলে স্বপ্নগুলো ভিড় করে

নানা রঙের খেল দেখিয়ে মন ভরে।