ঢাকা সোমবার, ২২ জুলাই ২০১৯, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬
২৯ °সে


নরসিংদীতে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে নিহত ২

সুনামগঞ্জে ছুরিকাঘাতে এক নেতার মৃত্যু
নরসিংদীতে আওয়ামী লীগের  দুই গ্রুপে সংঘর্ষে নিহত ২

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার দুর্গম চরাঞ্চলের মির্জারচর ইউনিয়নে গতকাল মঙ্গলবার সকালে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই চেয়ারম্যান সমর্থকদের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে দুইজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১২ জন। নিহতরা হলেন- একই ইউনিয়নের বালুচর গ্রামের আহসান মিয়ার পুত্র ইকবাল মিয়া (২৭) ও রবি মিয়ার পুত্র আমান উল্লাহ (৩০)। নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হাসান সংঘর্ষের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মির্জারচর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পর থেকে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার কেন্দ্র করে বিজয়ী চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা জাফর ইকবাল মানিক ও পরাজিত চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক সরকারের সমর্থকদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে আগেও দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। এরপর থেকে ইউপি চেয়ারম্যান মানিকের সমর্থকরা এলাকা ছেড়ে অন্যত্র চলে যায়। এ ঘটনার মাত্র তিনদিন আগে এলাকা ছাড়া লোকজন পুনরায় এলাকায় ফিরে আসে। মঙ্গলবার ভোরে ফারুক সরকারের সমর্থকরা মানিকের সমর্থকদের ওপর আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে ১৪ জন গুলিবিদ্ধ হন। গুলিবিদ্ধ আহতদের নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিত্সক ২ জনকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতদের লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকির হাসান জানান, গুরুতর আহত ৯ জনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকি দুইজনকে নরসিংদী সদর হাসপাতালে চিকিত্সা দেওয়া হচ্ছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সুনামগঞ্জে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ

নেতা ছুরিকাঘাতে নিহত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, সদর উপজেলার ১নং জাহাঙ্গীর নগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জয়নাল আবেদীন (৩৮) দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৪ জনকে আটক করেছে। মঙ্গলবার ভোরের দিকে ঘটনাটি ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার ১নং জাহাঙ্গীরনগর ইউনিয়নের মঙ্গলকাটা বাজার ইসলামপুর গ্রামের ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জয়নাল আবেদীনকে সোমবার রাতে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। মঙ্গলবার ভোরে মঙ্গলকাটা বাজারের পাশের ধলাইপাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে রক্তাক্ত অবস্থায় তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দেয়।

সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ বরকতুল্লা খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি জানান, জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হবে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হবে। প্রথমিকভাবে জড়িত সন্দেহে চারজনকের আটক করা হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২২ জুলাই, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন