ঢাকা রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬
২৮ °সে


আওয়ামী লীগ নেতা রুহুল রিমান্ডে

খাল থেকে হত্যায় ব্যবহূত বোরকা উদ্ধার পরিকল্পনাকারী রানা কক্সবাজারে গ্রেফতার আদালতে জাবেদ ও মনির জবানবন্দি
আওয়ামী লীগ নেতা রুহুল রিমান্ডে

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় সোনাগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রুহুল আমিনকে শনিবার রিমান্ডে নিয়েছে পিবিআই। তার ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এদিকে এই হত্যাকাণ্ডের অন্যতম পরিকল্পনাকারী ইফতেখার উদ্দিন রানাকে (২১) গ্রেফতার করেছে পিবিআই। পিবিআইয়ের চট্টগ্রাম মেট্রো অঞ্চলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মঈনউদ্দিন জানান, গতকাল শনিবার ভোর রাতে রাঙামাটি সদরের টিঅ্যান্ডটি আবাসিক এলাকার একটি বাসা থেকে রানাকে গ্রেফতার করা হয়। সোনাগাজীর চরগনেশ এলাকার জামাল উদ্দিনের ছেলে রানা ওই হত্যাকাণ্ডের পর রাঙামাটিতে পালিয়ে ছিলেন।

এদিকে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ফেনীর পিবিআই পরিদর্শক শাহ আলম জানান, নুসরাতের সহপাঠী রিমান্ডে থাকা জোবায়েরের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল দুপুরে সোনাগাজী সরকারি কলেজের পেছনের খাল থেকে তারা একটি বোরকা উদ্ধার করেন। জোবায়ের এই মামলার এজাহারভুক্ত আট আসামির একজন। তাকে গত ৯ এপ্রিল সোনাগাজী থেকে গ্রেফতার করে পিবিআই। গতকাল বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড শেষে জাবেদ ও কামরুন্নাহার মনিকে আদালতে হাজির করে পিবিআই। এরপর তারা আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

পরিদর্শক শাহ আলম বলেন, নুসরাতের সহপাঠী জোবায়ের এই হত্যাকাণ্ডে সরাসরি অংশ নিয়েছিলেন। এর আগে গত শুক্রবার দুপুরে অপর আসামি কামরুন্নাহার মনির দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পিবিআই জেনেছে সোনাগাজী পৌরশহরের মানিক মিয়া প­াজার একটি দোকান থেকে মনি বোরকা কেনেন। হত্যাকাণ্ডে অংশ নেওয়া পুরুষদের গায়ে যে তিনটি বোরকা ছিল তার একটি উদ্ধার করলো পিবিআই।

পিবিআইর পরিদর্শক ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শাহ আলম জানান, আসামির পরিহিত বোরকাটি এ হত্যা মামলার অন্যতম আলামত। এর আগে হত্যা মামলায় গ্রেফতার নুরুদ্দিন ও শাহাদাত হোসেন শামীমের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে জানা যায়, বোরকা পরে পাঁচজন এ হত্যাকাণ্ডে অংশ নিয়েছিল। শুক্রবার মনিকে নিয়ে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা ভবনের ছাদ ও বোরকার দোকান পরিদর্শন করে পিবিআই।

নুসরাত হত্যার ঘটনায় অধ্যক্ষ ও কমিটির সদস্যসহ আটজনের নাম উলে­খ করে এবং অজ্ঞাত আরো কয়েকজনকে আসামি করে নুসরাতের ভাই মাহমুদুল হাসান নোমান ৮ এপ্রিল সোনাগাজী থানায় মামলা করেন। বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত এ মামলায় এজাহারভুক্ত আটজনসহ ১৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের মধ্যে জাবেদ ও মনিসহ ৬ জন হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। অন্যরা রিমান্ডে আছেন।

নুসরাত হত্যায় আর্থিক লেনদেনের তথ্য পেয়েছে সিআইডি: নুসরাতকে হত্যার ঘটনা তদন্তে আর্থিক লেনদেনের কিছু সুনির্দিষ্ট তথ্য পেয়েছে সিআইডি। গতকাল সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় গিয়ে বিভিন্ন বিষয়ে তদন্তের পর এ কথা জানান পুলিশ সদর দপ্তরের তদন্ত দলের সদস্য সিআইডির পুলিশ সুপার সম্রাট মোস্তফা কামাল। তিনি বলেন, আগামী দু-এক দিনের মধ্যে সিআইডির একটি বিশেষ দল এসে মানি লন্ডারিং বিষয়ে খোঁজখবর নেবেন। তদন্তের প্রতিবেদন সাত দিনের মধ্যে পুলিশ সদর দপ্তর ও পুলিশ মহাপরিদর্শকের কাছে জমা দেবেন। এদিকে নুসরাত হত্যার বিচার ও অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলার ফাঁসির দাবিতে গতকাল সকালে সোনাগাজীতে ছয়টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৮ আগস্ট, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন