ঢাকা সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ৪ ভাদ্র ১৪২৬
২৮ °সে


অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ফাইনালে ইংল্যান্ড

নতুন চ্যাম্পিয়ন পাচ্ছে বিশ্বকাপ

অস্ট্রেলিয়া ৪৯ ওভারে ২২৩ অলআউট: স্মিথ ৮৫, ওকস ৩/২০, রশিদ ৩/৫৪ ইংল্যান্ড ৩২.১ ওভারে ২২৬/২ : রয় ৮৫, রুট অপরাজিত ৪৯, মর্গান অপরাজিত ৪৫
নতুন চ্যাম্পিয়ন পাচ্ছে বিশ্বকাপ
অস্ট্রেলিয়াকে অল্প রানে আটকে রাখার পথে ক্রিস ওকসের আরেকটি উইকেট —এএফপি

অবশেষে নতুন বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন পেতে যাচ্ছে ক্রিকেট।

শিরোপাধারী অস্ট্রেলিয়াকে গতকাল বৃহস্পতিবার ৮ উইকেটে হারিয়ে ইংল্যান্ড বিষয়টি নিশ্চিত করল। এখন দেখার পালা আগামী রবিবারের ফাইনালে লর্ডসে স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও গতবারের ফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ডের মধ্যে কে হয় বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন।

ইংল্যান্ড ২৭ বছরের মধ্যে আবার কোনো ফাইনালে যোগ দিল। ১৯৯২ সালে সর্বশেষ ফাইনালে খেলেছিল দেশটি। মূলত দিনের শুরুতে নতুন বল হাতে ক্রিস ওকস ও জোফরা আর্চারের তাণ্ডবে অস্ট্রেলিয়া ১৪ রানেই ডেভিড ওয়ার্নার, অ্যারন ফিঞ্চ ও হ্যান্ডসকম্বকে হারালে খেলা চলে আসে আয়োজকদের অনুকূলে।

বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ও শেষ সেমিফাইনালে কাল এজবাস্টনে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া যেন ভিন্ন দুই উইকেটে খেলেছে। প্রথম ইনিংসে প্রাণান্ত চেষ্টা করে রান তুললো টস জিতে ব্যাটিং নেয়া অস্ট্রেলিয়া। বিপরীতে ইংল্যান্ডের ওপেনাররা রানের ফুলঝুরি ছোটালেন।

বোলার ও ব্যাটসম্যানদের কৃতিত্বে হেসে-খেলে ৩২.১ ওভারেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। অস্ট্রেলিয়া এর আগে ব্যাট করতে নেমে ৪৯ ওভারে ২২৩ রানে অলআউট হয়ে গিয়েছিল। ওকস ও আদিল রশিদ তিনটি করে উইকেট নেন। আর্চার পান দুইটি। ম্যান অব দ্য ম্যাচ হন ওকস।

জবাবি পালায় ১২৪ রানে প্রথম উইকেট হারায় ইংল্যান্ড। ৩৪ রান করে আউট হন ওপেনার জনি বেয়ারস্টো। এরপর অপর ওপেনার জেসন রয় বিতর্কিতভাবে আউট হয়ে যান ৮৫ রানে। ব্যাস অস্ট্রেলীয় বোলারদের চেষ্টা এখানেই থেমে যায়। বাকি সময় অবিচ্ছিন্ন থেকে জো রুট (৪৯) ও অধিনায়ক ইয়ন মর্গান (৪৫) ইংল্যান্ডকে প্রথম শিরোপা জয়ের স্বপ্নে ভাসান।

বেয়ারস্টোকে আউট করার ভেতর দিয়ে এবারের আসরে ২৭ উইকেট শিকার হলো মিশেল স্টার্কের। এর ভেতর দিয়ে গ্লেন ম্যাকগ্রাকে ছাড়িয়ে এক আসরের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী হলেন স্টার্ক।

অস্ট্রেলিয়া এদিন ইনিংসের শুরুতেই মহাবিপদে পড়ে। মাত্র ১৪ রানে হারিয়ে ফেলে তারা ৩ উইকেট। এরপর অ্যালেক্স ক্যারিকে নিয়ে পাল্টা লড়াই করেন সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। বল লেগে ভাঙা চোয়াল নিয়ে ৭০ বলে ৪৬ রান করে আউট হন ক্যারি। পরপরই স্টয়নিসের উইকেটও তুলে নেন আদিল রশীদ। এরপর ম্যাক্সওয়েলকে নিয়ে আরেকটা জুটি করে আক্রমণের চেষ্টা চালিয়েছিলেন স্মিথ।

ম্যাক্সওয়েল ২৩ বলে ২২ রান করে ফিরে আসেন। এরপর ছয় রান করে আউট হন প্যাট কামিন্স। ৪৮তম ওভারে এসে অষ্টম ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন স্মিথ। রান আউট হওয়ার আগে ১১৯ বলে ৮৫ রানের ইনিংস খেলেন এক সময়ের এই বিশ্বসেরা ব্যাটসম্যান। পরের বলেই ২৯ রান করে ফিরে আসেন মিশেল স্টার্ক।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৯ আগস্ট, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন