ঢাকা সোমবার, ০১ জুন ২০২০, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
২৬ °সে

পোশাক শ্রমিকদের জন্য চালু হলো আরএমজি ডিজিটাল ওয়ালেট

পোশাক শ্রমিকদের জন্য চালু হলো আরএমজি ডিজিটাল ওয়ালেট

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

‘আরএমজি ডিজিটাল ওয়ালেট’ (ইথওয়ালেট)-এর মাধ্যমে পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের ডিজিটাল পদ্ধতিতে মজুরি প্রদান ও শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়ন করার লক্ষ্যে বিজিএমইএ-এর উত্তরার কার্যালয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং বিজিএমইএ-এর মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয় ।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এতে সভাপতিত্ব করেন বিজিএমই-এর সভাপতি ডক্টর রুবানা হক। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ এবং বিজিএমই-এর পরিচালকবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব ও বিজিএমই-এর সচিব আব্দুর রাজ্জাক উক্ত সমঝোতা স্মারকে নিজে নিজে পক্ষে স্বাক্ষর করেন।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘গার্মেন্টস শিল্প শ্রমিকরা দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়নে ব্যাপক অবদান রেখে চলেছে। এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের মাধ্যমে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ের সঙ্গে যুক্ত হলো—একটি বড় উদ্যোগ পোশাক শিল্প শ্রমিকদের জন্য ডিজিটাল ওয়ালেট ।’ তিনি আরো বলেন, ‘তারুণ্যের শক্তিকে কাজে লাগানোর ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি অবদান রাখছে তৈরি পোশাক শিল্প খাত, যা বর্তমান সরকারের অন্যতম লক্ষ্য। তাই পোশাক শিল্পকে সকল ধরনের সহযোগিতা প্রদান করতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ সবসময় সচেষ্ট রয়েছে।’ আগামী তিন মাসের মধ্যে স্বল্পপরিসরে পোশাক শিল্পে ই ওয়ালেট চালু বিষয় একটি পাইলট প্রকল্প নেওয়া হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্যপ্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদের তত্ত্বাবধানে ডিজিটাল প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ২০২১ সালের মধ্যে ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় সরকার কাজ করে যাচ্ছে। সরকারের গৃহীত কার্যকরী উদ্যোগের ফলে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন পৌরসভা ও ইউনিয়ন ইউনিয়নে ৫ হাজারের বেশি ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে, যার মাধ্যমে জনগণ ২০০ রকমের সেবা পাচ্ছে।’ ডিজিটাল পদ্ধতিতে বেতন প্রদান করা হলে পোশাক শিল্প শ্রমিকদের বেতন প্রদানের স্বচ্ছতা কেনাকাটাসহ আর্থিক লেনদেন সহজ হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

বিজিএমইএ সভাপতি ড. রুবানা হক বলেন, ‘এই ডিজিটাল ওয়ালেটের ফলে পোশাক শিল্পের শ্রমিক ভাইবোনরা অর্থ নিরাপত্তা পাবেন, তাঁদের অর্থ সাশ্রয় হবে, তাঁরা অনলাইনে কেনাকাটা করতে পারবেন, বিদ্যুত্সহ সকল সেবার বিল সহজেই পরিশোধ করতে পারবেন। সবচেয়ে বড় বিষয় হলো—শ্রমিকদের ক্রেডিট প্রোফাইল তৈরি হবে, ফলে তাঁরা যে কোনো সমস্যায় ঋণ গ্রহণ করতে পারবেন।’

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
০১ জুন, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন