ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬
২৯ °সে


যা আপনার প্রযুক্তি জীবনকে সহজ করবে

যা আপনার প্রযুক্তি জীবনকে সহজ করবে

প্রতিনিয়ত তথ্যপ্রযুক্তির সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে নতুন উদ্ভাবন। নতুন উদ্ভাবনগুলো যুক্ত হওয়াতে আমাদের জীবনযাপন যেমন সহজ হয়েছে, ঠিক তেমনি কোনো কোনো ক্ষেত্রে আবার কঠিনও হয়েছে। প্রযুক্তির দুনিয়ায় আপনি যে ডিজিটাল সেবাগুলো গ্রহণ করছেন তা আরো সহজে গ্রহণ করতে পারবেন, যদি আপনি একটু কৌশলী হোন। পাঠকদের সুবিধার্থে প্রযুক্তির জীবনকে কীভাবে আরো সহজে ভোগ করা যায় সে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে এ লেখায়—

পাসওয়ার্ডকে টেক্সটে পরিবর্তন

আপনি যদি ব্রাউজারে বা অন্য কোনো পাসওয়ার্ড ম্যানেজারে আপনার সব অনলাইন অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড সেভ করে রাখেন, তাহলে বিভিন্ন সাইটের লগিন পেজে আপনার ইমেইল এবং পাসওয়ার্ড আগে থেকেই অটোফিল হয়ে যায়। তবে সেখানে কোনো পাসওয়ার্ড আপনি দেখতে পান না। পাসওয়ার্ডটির জায়গায় পাসওয়ার্ডটিকে ডট-এ পরিবর্তন করে দেখানো হয়। তবে আপনার যদি ডটের পেছনে লুকিয়ে থাকা পাসওয়ার্ডটি দেখার প্রয়োজন হয়, বা আপনি পাসওয়ার্ড ভুলে যান, তাহলে আপনি গুগল ক্রোমের ডেভেলপার টুলের সাহায্যে সহজেই ডট পাসওয়ার্ডটিকে টেক্সট পাসওয়ার্ডে পরিবর্তন করতে পারবেন। আপনাকে জাস্ট ডট পাসওয়ার্ডটির ওপরে মাউস কার্সর নিয়ে গিয়ে রাইট ক্লিক করে ওহংঢ়বপঃ ঊষবসবহঃং অপশনে ক্লিক করতে হবে।

এরপরে ডেভেলপার টুলস ওপেন হলে আবারো রাইট ক্লিক করে Edit as HTML অপশন ক্লিক করে সেখান থেকে খুঁজে বের করতে হবে যে কোথায় type=‘password’ লেখা আছে। সেটা খুঁজে পেলে সেটিকে এডিট করে type=‘text’ করে দেবেন। এরপর ওপরে স্ক্রিনের ডান কোনায় (x) বাটন ক্লিক করে ডেভেলপার অপশন ক্লোজ করে দেবেন। তাহলেই দেখবেন পাসওয়ার্ড ফিল্ডে এবার ডটের জায়গায় টেক্সট ফরম্যাটে অ্যাকচুয়াল পাসওয়ার্ডটি শো করছে। যদি এখনো বুঝতে না পারেন তাহলে নিচের GIF টি লক্ষ্য করুন।

এটি শুধুমাত্র নিজের পাসওয়ার্ড দেখার ক্ষেত্রেই ব্যবহার করবেন। অন্য কারো পাসওয়ার্ড দেখার জন্য অন্য কারো ব্রাউজারে এই ট্রিকটি ব্যবহার করবেন না। আর আপনি এখন জানেন যে, ব্রাউজারে এভাবে সেভ করা পাসওয়ার্ডগুলো একটুও সিকিওর নয়। তাই আপনার ব্রাউজার এবং পিসির অ্যাক্সেস বিশ্বস্ত কাউকে ছাড়া কখনো দেবেন না।

কন্ট্রোল প্যানেল শর্টকাট

আপনি হয়তো জানেন না যে, আপনি আপনার পিসির সব ধরনের কন্ট্রোল প্যানেল সেটিংস শুধু একটি ফোল্ডার থেকেই অ্যাক্সেস করতে পারেন একটি ট্রিক ব্যবহার করে। এটা করলে আপনাকে সব সেটিংস চেঞ্জ করার জন্য বারবার কন্ট্রোল প্যানেল ওপেন করতে হবে না এবং বারবার কন্ট্রোল প্যানেলে ঢুকে আপনার কাঙ্ক্ষিত সেটিংসটি খুঁজে বের করতে হবে না। আপনার কথা জানি না, তবে কনট্রোল প্যানেলে ঢুকে কাঙ্ক্ষিত সেটিংসটি খুঁজে বের করা আমার কাছে অনেক বেশি বিরক্তিকর এবং সময়ের অপচয় মনে হয়।

প্রথমত, আপনাকে যা করতে হবে, উইন্ডোজ ফাইল এক্সপ্লোরারের যেকোনো জায়গায় একটি নিউ ফোল্ডার ক্রিয়েট করুন। হতে পারে সেটি ডেস্কটপে কিংবা আপনার হার্ডড্রাইভের যে কোনো জায়গায়, আপনার সুবিধামতো করলেই হলো। এবার এই ফোল্ডারটির ওপরে রাইট ক্লিক করে ফোল্ডারটি রিনেইম করুন নিচের লাইনটি লিখে- কন্ট্রোল প্যানেল শর্টকাটসে শুধুমাত্র ed7ba470-8e54-465e-825c-99712043e01c লিখবেন। এক্সট্রা কোন ক্যারেক্টার বা স্পেস দেবেন না। এবার রিনেম করে সেভ করে দিন। এবার ফোল্ডারটি ওপেন করলেই আপনি কন্ট্রোল প্যানেলের সব সেটিংসের অনেকগুলো শর্টকাট পেয়ে যাবেন যেগুলো আবার ক্যাটেগরি অনুযায়ী সুন্দর করে সাজানো থাকবে।

এয়ার টিকেট বুকিং

আমাদের অনেকসময়ই দেশের বাইরে যাওয়ার জন্য অনলাইনে এয়ার টিকেট বুক করার দরকার হয়। সবার দরকার না হলেও অনেকেরই প্রায়ই দরকার হয়ে থাকে। যারা অনলাইনে এয়ার টিকেট বুক করে থাকেন, তারা হয়তো জানেন না যে, এয়ার টিকেট বুকিং ওয়েবসাইটগুলো সবসময় আপনাকে একইরকম টিকেটের প্রাইস দেখায় না। আপনি যদি একবার কয়েকটি টিকেট ব্রাউজ করে তারপরে সাইটটি ক্লোজ করে আবার দ্বিতীয়বার টিকেট ব্রাউজ করতে আসেন, তখন সাইটগুলো টিকেটের দাম কিছুটা বাড়িয়ে দেয়। এছাড়া আপনি কোন লোকেশন থেকে টিকেট কাটছেন তার ওপরে ডিপেন্ড করেও তারা টিকেটের দাম কম-বেশি করে থাকে।

তাই আপনার যদি ভবিষ্যতে কখনো অনলাইনে বাইরের কোন দেশে যাওয়ার জন্য এয়ার টিকেট বুক করার দরকার হয়ে থাকে, তাহলে আপনি সবসময়ই ব্রাউজারের ইনকোগনিটো মোডে টিকেট কাটবেন। এর ফলে, সাইটটি আপনার ব্রাউজারের কুকিজের অ্যাক্সেস পাবে না এবং জানতেও পারবে না যে আপনি আগেও টিকেট ব্রাউজ করেছেন কিনা। তাই তারা টিকেটের দামও বাড়াবে না।

এছাড়া আপনি সবসময় চেষ্টা করবেন যে আপনি যেখানে যাচ্ছেন অর্থাত্ আপনার ডেস্টিনেশন থেকে টিকেট কাটতে। তাহলে আপনি অনেক কম দামে টিকেট পেতে পারেন। যেমন- আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে ইউএসএ যান, তাহলে ভিপিএন ব্যাবহার করে ইউএসএ সার্ভারে কানেক্ট করে তারপরে বিডি টু ইউএসএ টিকেট বুক করবেন।

ইউটিউব এজ রেস্ট্রিক্টেড ভিডিও

ইউটিউবে অনেকসময় অনেক ভিডিও প্লে করার সময় আপনি দেখে থাকবেন যে সেটি এজ রেস্ট্রিকটেড করা, অর্থাত্ ভিডিওটি দেখার জন্য আপনাকে আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট দিয়ে সাইন ইন করে প্রমান করতে হবে যে আপনার সবয়স ১৮প্লাস। সাইন ইন না করলে এই ভিডিওগুলো প্লে করা সম্ভব হয় না। ইউটিউবের অ্যালগরিদম অনুযায়ী আপনি একবার আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট দিয়ে সাইন ইন করে ওই ভিডিও দেখলে, ইউটিউব এরপর আপনার হোমপেজ ওই ধরনের সাজেস্টেড ভিডিওগুলো দিয়ে ভরে ফেলবে, যা খুবই বিরক্তিকর।

যখন কোনো এজ রেস্ট্রিকটেড ভিডিও দেখতে যাবেন, তখন আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট সাইন ইন না করে জাস্ট ভিডিওটির ইউআরএল-এর মধ্যে ইউটিউব লেখাটির আগে nsfw যোগ করে দেবেন এবং ইন্টার প্রেস করবেন। যেমন- http://www.nsfwyoutube.com/watch?v=6LZM3_wp2ps। এভাবে করলে আপনাকে আর গুগল অ্যাকাউন্ট সাইন-ইন করতে হবে না।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন