ঢাকা শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২২ °সে


বিএনপি-জামায়াত অশুভ শক্তি এখনো চক্রান্ত করে যাচ্ছে :নাসিম

রাজধাহী জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন ৪ ডিসেম্বর
বিএনপি-জামায়াত অশুভ শক্তি এখনো চক্রান্ত  করে যাচ্ছে :নাসিম
গতকাল শুক্রবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের প্রধান কার্যালয়ে রাজশাহী জেলার সভাপতি ও সম্পাদককে নিয়ে সভা করেন মোহাম্মদ নাসিম, ওবায়দুল কাদেরসহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ —ইত্তেফাক

আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র ও খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ নাসিম এমপি বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত অশুভ শক্তি এখনো চক্রান্ত করে যাচ্ছে। অতীতের মতো বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তাদের সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করা হবে। শোষণমুক্ত অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার মূল লক্ষ্য অর্জন না হওয়া পর্যন্ত শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের লড়াই চলবে। চূড়ান্ত বিজয় না হওয়া পর্যন্ত সকল ভেদাভেদ ভুলে সবার ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান তিনি।

গতকাল শুক্রবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতাদের মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ৪ ডিসেম্বর রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সম্মেলন সফল করতে জেলা নেতাদের সঙ্গে সমন্বয়ের দায়িত্ব পালন করবেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য ও রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। এক্ষেত্রে সকল নেতা তাকে সহযোগিতা করার অঙ্গীকার করেন। রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওমর ফারুক ও সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদের মধ্য দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব চলছে। গতকালও দুই জন একে অপরকে দোষারোপ করে বক্তব্য রাখেন। রাজশাহী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় নেতা মোহাম্মদ নাসিমের হস্তক্ষেপে গতকাল তাদের দ্বন্দ্বের অবসান ঘটেছে। এই দুই নেতাসহ রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা সম্মেলন সফল করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের এবারের জাতীয় সম্মেলনকে সামনে রেখে দলের মধ্যে সব তিক্ততার অবসান ঘটবে। কেউ কারো বিরুদ্ধে কাদা ছুড়াছুড়ি করবেন না। দলের মধ্যে প্রতিযোগিতা থাকবে, সুস্থ প্রতিযোগিতা হবে। কোনো অসুস্থ প্রতিযোগিতা হবে না।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নূরুল ইসলাম ঠান্ডু, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওমর ফারুক, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভা পরিচালনা করেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি।

এদিকে রাজশাহী অফিস জানায়, ২০১৪ সালের ৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সম্মেলনে ওমর ফারুক চৌধুরীকে সভাপতি ও আসাদুজ্জামানকে সাধারণ সম্পাদক করে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি ঘোষিত হয়। ফারুক-আসাদের দ্বন্দ্ব ২০১৮ সালের ৬ জুলাই প্রকাশ্যে রূপ নেয়। ঐদিন দলীয় সভায় আসাদ সভাপতি ফারুক চৌধুরীকে ‘রাজাকারের সন্তান’ আখ্যায়িত করেন। গত ১৩ অক্টোবর প্রেসিডিয়াম সদস্য মোহাম্মদ নাসিম এবং সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের উপস্থিতিতে রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত দলের বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় সব জেলার প্রতিনিধিরা বক্তব্য দেন। এদিন রাজশাহী জেলার সভাপতি সম্পাদক উভয়ে বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় উপস্থিত থাকলেও কাউকে বক্তব্যের সুযোগ দেওয়া হয়নি। পরে ব্যাখ্যা দিয়ে কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, দ্বন্দ্বের কারণে রাজশাহীর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে বক্তব্য দিতে দেওয়া হয়নি, তাদের অবিলম্বে ঢাকায় তলব করা হবে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৬ নভেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন