ঢাকা সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬
৩৫ °সে

মানসম্পন্ন বই এবং সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা চাই

মানসম্পন্ন বই এবং সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা চাই

১৯৭২ সালে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে প্রয়াত চিত্তরঞ্জন সাহার হাত ধরে যে বইমেলার সূচনা, সেটি ক্রমশ প্রসারিত হয়ে আজ বৃহত্ পরিসর লাভ করেছে। বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ তো বটেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানেও এখন এই বইমেলার বিস্তার ঘটেছে। বাঙালির এই প্রাণের মেলা এখন বেশ নান্দনিকও। স্টলগুলোর বিন্যাস ও সাজসজ্জা চোখে পড়ার মতো। কিন্তু আসল জায়গার গলদটা তো রয়েই গেছে। কুসুমে কীটের মতো নিম্নমানের এবং ক্ষতিকর বইয়ের সংখ্যা দিন দিনই বাড়ছে। যেহেতু দেশে প্রকাশকের সংখ্যা বেড়েছে, সেহেতু প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যাও বেড়েছে। কিন্তু এই হাজার হাজার বইয়ের মধ্যে কয়টি বই মানসম্পন্ন? কয়টি বই পড়ার যোগ্য?

হ্যাঁ, এবারেও নিম্নমানের এবং ভুল বাক্য ও বানানের অজস্র বই প্রকাশিত হয়েছে। এইসব বইয়ের পাঠকদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে কোমলমতি শিশুরা। তাই অন্তত শিশুতোষ গ্রন্থ যেন ভুল বাক্য ও বানানে প্রকাশিত না হয়—এদিকে সংশ্লিষ্টদের নজর দেওয়া দরকার। এ ধরনের বই কিনে সাধারণ পাঠক বিভ্রান্ত হন। কিছু ক্ষেত্রে পাঠকের বইবিমুখ হওয়ার আশঙ্কা থাকে।

কেন নিম্ন মানের, অসম্পাদিত এবং ভুল বাক্য ও বানানের বই প্রকাশিত হচ্ছে? কারণ অধিকাংশ প্রকাশকই যেহেতু খরচ বহন করতে পারেন না, সেহেতু তাদের একটি সম্পাদকীয় বোর্ড নেই; নেই ভালো প্রুফ রিডিং বিভাগ। আর ভালো বই প্রকাশকদের সরকার তেমন পৃষ্ঠপোষকতাও করছে না। প্রতি বছর জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্র এবং পাবলিক লাইব্রেরির মাধ্যমে সরকার যে বই ক্রয় করে থাকে তা মাত্র ৫ কোটি টাকার। অথচ আমাদের পাশের দেশ ভারতের একটি রাজ্য—পশ্চিমবঙ্গেই এই অর্থের পরিমাণ সত্তর থেকে আশি কোটি টাকা।

এছাড়া অমর একুশে গ্রন্থমেলা বাংলা একাডেমি আয়োজন করে থাকে স্টল ভাড়া এবং স্পনসরের মাধ্যমে। এক্ষেত্রে স্টল ভাড়া প্রতি বছর বৃদ্ধি পেতে পেতে বর্তমানে অনেক প্রকাশকের জন্যই তা দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর বিভিন্ন কোম্পানি থেকে স্পনসর পাওয়ায় সেইসব কোম্পানিকে বাংলা একাডেমি কর্তৃপক্ষ নানা ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত সুবিধাও দিয়ে থাকে। এইজন্য বইমেলার নান্দনিকতা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। তাই আমরা চাই, সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা। আর আমাদের এই দাবি অযৌক্তিক নয়। চলচ্চিত্র উত্সব, নাট্য উত্সবসহ দেশে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন উত্সবে যদি সরকার পৃষ্ঠপোষকতা করে থাকে, তাহলে বইমেলার ক্ষেত্রে নয় কেন?

তাই আবারও বলি, মানসম্পন্ন বই এবং সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা চাই।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
৩০ মার্চ, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন