ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬
৩১ °সে


বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রস্তুতি ২০১৯

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রস্তুতি ২০১৯

মো.মহিউদ্দিন,বিএ (অনার্স), এমএ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

স্বপ্ন যাদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

খ ও ঘ ইউনিট

২০১৯ সালের এইএস.সি পরীক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয় প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। ভর্তি যুদ্ধ শুরু হবে কিছুদিন পর। আজ আমাদের আয়োজন স্বপ্নবিভোর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রত্যাশীদের সাধারণজ্ঞান প্রস্তুতি নিয়ে-

প্রস্তুতি শুরুটা হবে যেভাবে-

প্রথমে বিগত বছরের প্রশ্নগুলো পড়ে প্রশ্নের ধরন সম্পর্কে ধারনা নিতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো অনেক প্রশ্ন রিপিট করে। তাই বিগত বছরের অনেক প্রশ্ন কমন পাওয়ার সম্ভাবনা তো থাকছেই। ভালো ফলাফল করতে চাইলে বিগত কমপক্ষে দশ বছরের প্রশ্ন পড়া উচিত।

সেরা হওয়ার লড়াইটা সামপ্রতিকে বেশি-

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির ক্ষেত্রে সামপ্রতিক বিষয় কোন শিক্ষার্থীকে অনেক দূর এগিয়ে দিতে পারে। একইভাবে প্রস্তুতি না থাকলে কাউকে অনেক দূর পিছিয়ে দিতে পারে। মোট ৫০ টি সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্নের মধ্যে সাধারণভাবে ২০ থেকে ২৫ টি সামপ্রতিক বা সামপ্রতিক বিষয়ের সাথে জড়িত। ধরুন, প্রশ্ন হলো- ওআইসির মোট কতটি শীর্ষ সম্মেলন হয়? ৩১মে, ২০১৯ অনুষ্ঠিত ১৬তম শীর্ষ সম্মেলন সম্পর্কে ধারণা না থাকলে আপনার ওআইসি বিষয়ে পড়া থাকলেও আপনি উত্তর দিতে দিবেন হয়ত ১৫তম ওআইসি সম্মেলনের আদলে বা আলোকে। উদাহরণ স্বরূপ বলা যায় সম্প্রতি ওআইসি সম্মেলন অধিবেশনের সভাপতি কে ছিলেন। আপনি যদি ১৬তম সম্পর্কে আপডেট না থাকেন তবে উত্তর করবেন ১৫ তমের আলোকে ফলে নম্বর তো পাবেনই না বরং ভুল উত্তরের জন্য ০.৫ নম্বর মাইনাস হবে আপনার সঠিক উত্তর থেকে। তাই সামপ্রতিকের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। সামপ্রতিকের জন্য নিয়মিত দৈনিক পত্রিকা পড়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য খাতায় লিখে রাখতে হবে এবং সাথে মাসিক যেকোনো একটি ম্যাগাজিন পড়লে ভালো কাজে আসবে।

যেসকল বিষয় গুরুত্ব দিয়ে পড়তে হবে-

প্রথমে বিগত বছরের প্রশ্নগুলো নিজের মতো বিশ্লেষণ করে যেসকল বিষয় থেকে নিয়মিত প্রশ্ন হয় সেগুলো খাতায় লিখে ফেলুন। গুরুত্ব বিবেচনা করে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোকে ওপরে রেখে অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিচে রাখুন । এভাবে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে বেশি সময় এবং কম গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে অপেক্ষাকৃত কম সময় দিয়ে পড়ুন। কঠিন বিষয়গুলো বেশি বেশি পড়তে হবে। তবে কোনো বিষয়কে অবহেলা করা ঠিক হবে না।

বাংলাদেশ বিষয়: বাংলাদেশ বিষয়ে ভৌগোলিক পরিচিতি, আয়তন ও সীমানা, সংবিধান, সংসদ ও সাংবিধানিক পদসমূহ, গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা ও পদ, প্রাচীন আমল, সুলতানি শাসন,মুঘল শাসন, পাকিস্তান আমল ও মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ে বেশি গুরুত্ব দিতে হবে।

আন্তর্জাতিক: আন্তর্জাতিক বিষয়ে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার বিভিন্ন দিক নিয়ে পড়তে হবে। যুক্তরাষ্ট্র, চীন, রাশিয়া, ভারত, পাকিস্তান, কোরিয়া, জাপান, ব্রিটেন, ফ্রান্স,জার্মানি, ইতালি, ব্রাজিল, দক্ষিণ আফ্রিকা, মালেশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, মিয়ানমার সম্পর্কে ভালো করে পড়াশোনা করতে হবে। বিশ্বের বিভিন্ন যুদ্ধ, বিপ্লব, রিপোর্ট-সমীক্ষা , সম্মেলন, বিশ্বে বৃহত্তম,ক্ষুদ্রতম ,উচ্চতম ইত্যাদি বিষয় গুরুত্ব দিয়ে পড়তে হবে। মনে রাখবে, আন্তর্জাতিক বিষয়ে সামপ্রতিক প্রশ্ন বেশি আসে।

কোন সিরিজের বই পড়বেন-

বাজারে প্রচলিত যেকোনো একটি সিরিজ পড়া যেতে পারে। তবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অথবা ভালো কোনো সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া কারো কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে বই কিনলে অধিক ভালো হবে। কারণ প্রতিটি প্রকাশনীর একটি বা দুটি বই খুবই ভালো থাকে। তাই মিলিয়ে কিনলে বাজারে প্রচলিত সেরা বই কিনতে পারবেন। একাধিক সিরিজ পড়লে যে কোনো দুই সিরিজ নিলেই হবে। এক্ষেত্রে চাপ নিতে সক্ষম ভালো মেধাবী না হলে এধাধিক সিরিজ হিতে-বিপরীত হতে পারে। এ জন্য যথাসময়ে চাই ভালো সিদ্ধান্ত।

পরের অংশ আগামীকাল

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৭ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন