ঢাকা শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২২ °সে


সিরিজ জয়ের আশা ছাড়ছে না বাংলাদেশ

সিরিজ জয়ের আশা  ছাড়ছে না বাংলাদেশ
রাজকোট মিশন শেষ হয়েছে হার দিয়ে। বাংলাদেশ দল এখন চলে এসেছে নাগপুরে — ছবি মোশারফ হোসেন, রাজকোট থেকে

জিতলেই ইতিহাস, সিরিজ জয়ের অনন্য গৌরব। রাজকোটে সুবর্ণ সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি বাংলাদেশ দল। সম্ভাবনা জাগিয়েও ব্যাটিংয়ে প্রত্যাশিত স্কোর তুলতে পারেননি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। বোলিংয়ে নেমে রোহিত শর্মার বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়েন টাইগাররা। বৃহস্পতিবার ভারতের জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে সমতা (১-১) ফিরেছে। নাগপুরে আগামীকাল সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচটি হয়ে পড়েছে অলিখিত ফাইনাল।

রাজকোটে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে হারলেও হতোদ্যম হয়নি বাংলাদেশ। নাগপুরে সিরিজ জয়ের মিশনেই নামবে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। রোহিত শর্মার আগুনে ব্যাটিংয়ে ভড়কে না গিয়ে সিরিজ জেতার আশা নিয়েই নাগপুরে পৌঁছেছে বাংলাদেশ। তৃতীয় ম্যাচে নিজেদের ভুলের পরিমাণ কমাতে চায় সফরকারীরা। গতকাল রাজকোটে টিম হোটেলের সামনে দলের প্রতিনিধি হিসেবে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলা শফিউল ইসলাম বলেছেন, নাগপুরে শক্তভাবে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ।

গতকাল দুপুরে নাগপুরে পৌঁছেছে মাহমুদউল্লাহ বাহিনী। যদিও রাজকোট থেকে নির্ধারিত সময়ে বিমানে চড়া হয়নি ক্রিকেটারদের। ফ্লাইট এক ঘণ্টা বিলম্ব ছিল। অপেক্ষার সময়টুকু বিমানবন্দরে না থেকে হোটেলে ফিরে আসে গোটা দল।

নাগপুরে সিরিজ জয়ের লক্ষ্যেই খেলতে নামবে বাংলাদেশ। গতকাল শফিউল ইসলাম বলেছেন, ‘অবশ্যই, আমাদের এখনো সুযোগ আছে (সিরিজ জয়ের), যদি আমরা ভালো ক্রিকেট খেলি। প্রথম ম্যাচটা যে রকম খেলেছি, সে রকম যদি খেলতে পারি। আর এই ম্যাচে কিছু ছোটো ছোটো ভুল ছিল। যদি আমরা সামনের ম্যাচে এই ভুলগুলো না করি, অবশ্যই আমাদের সিরিজ জেতা সম্ভব। আশা করি, আমরা দৃঢ়ভাবে ঘুরে দাঁড়াব। আমরা সিরিজ জেতার জন্যই খেলব।’

ব্যাটিংয়ে দলগত সংগ্রহটা বড়ো হয়নি। ৬ উইকেটে ১৫৩ রান করেছিল বাংলাদেশ। পরে রোহিত শর্মার ব্যাটিংই ভারতকে সহজ জয় এনে দেয়। ৪৩ বলে ৮৫ রানের ইনিংস খেলেছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক। ছয়টি চার ও ছয়টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশের প্রায় সব বোলারই রোহিতের ব্যাটের তোপে পড়েছিলেন। শফিউলরা অবশ্য রাজকোটে রোহিতের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে ভড়কে যাচ্ছেন না। মানসিকভাবে দুর্বল হয়েও পড়ছেন না।

ডানহাতি এই পেসার বলেছেন, ‘রোহিতের ভালো একটা দিন গিয়েছে। একজন খেলোয়াড়ের যখন ভালো দিন যায়, তখন মানসিকভাবে আসলে আমাদের দুর্বল হয়ে যাওয়ার কিছু নাই। কারো এমন দিন গেলে যেকোনো দলকে হারানো সম্ভব। আমরা সবাই শক্ত আছি, এখনো একটা সুযোগ আছে। আমরা খুব ভালোভাবে ঘুরে দাঁড়াব।’

রাজকোটে দিনটা রোহিতের ছিল। ব্যাটিং উইকেটের ফায়দা নিয়েছেন ভারতীয় ওপেনার। শফিউল বলেছেন, ‘উইকেটটা খুব সুন্দর ছিল ব্যাটিংয়ের জন্য। ফ্ল্যাট উইকেট ছিল, আমার মনে হয়েছে। রোহিত খুব সুন্দর ব্যাটিং করছে। ওর ভালো দিন গিয়েছে কাল (বৃহস্পতিবার), যা চেষ্টা করেছে, সেটাই পেরেছে।’

দ্বিতীয় ম্যাচে করা ভুলগুলো শোধরাতে আজ রাজকোটের অনুশীলনে কাজ করবে বাংলাদেশ দল। সিরিজ জয়ের প্রথম সুযোগ হারিয়ে মন খারাপ হয়েছে ক্রিকেটারদের। আবার মন থেকে তাড়াও আছে নাগপুরে ভালো কিছু করার।

শফিউল বলেছেন, ‘হারলে তো মন খারাপ লাগবেই। একটা বড়ো সুযোগ ছিল। এক ম্যাচ আগে যদি আমরা সিরিজ জিততে পারতাম, তাহলে অবশ্যই ভালো লাগত। হারার পর তো অবশ্যই মন খারাপ থাকবে। কিন্তু আসলে কীভাবে শক্তভাবে ঘুরে দাঁড়াতে পারব এটাই হচ্ছে মূল বিষয়।’

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৬ নভেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন