ঢাকা শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৭
২৪ °সে

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চোখ ভারতের

প্রতিপক্ষকে সমীহ করছে ক্যারিবিয়ানরা
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চোখ ভারতের

ক্রিকেট বিশ্ব সেই ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর থেকেই এক অর্থে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপমুখী ভাবনাই ভাবছে। দ্বিপাক্ষিক সিরিজগুলোতেও তাই বেশি প্রাধান্য পাচ্ছে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট। সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে ভারত।

আজই যেমন নিজেদের মাটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু করতে যাচ্ছে ভারত। আর সেই সিরিজ শুরুর আগেই বিরাট কোহলি জানিয়ে দিলেন, তাদের ভাবনার পুরোটা জুড়েই এখন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।

কোহলি জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপকে সামনে রেখে তিনি মোটামুটি দল গুছিয়ে ফেলেছেন। শুধু, ফাস্ট বোলারদের মধ্যে একটা জায়গা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। আজ হায়দরাবাদে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। এর আগে গতকাল কোহলি বলেন, ‘দলে এখন একটা জায়গা নিয়ে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে। আমি মনে করি ফাস্ট বোলিং বিভাগে তিন জন এরই মধ্যে জায়গা নিশ্চিত করে ফেলেছে। আমরা বাকি একজনের জন্য অপেক্ষায় আছি। দলে এখন দারুণ একটা প্রতিযোগিতা চলছে। এটা সবাই উপভোগ করছে।’

পেস বোলিংয়ে ভারতের হাতে এখন অনেক রকম বিকল্প আছে। দলের বাইরে আছেন ভূবনেশ্বর কুমার ও জাসপ্রিত বুমরাহর মতো বোলার। পেস বোলারদের এই মিছিলকে ইতিবাচক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখেন কোহলি। তিনি বলেন, ‘এটা ওদের বা আমাদের—কারো জন্যই বড়ো কোনো সমস্যা নয়। আমি মনে করি ভূবি বা বুমরাহ দুজনই খুব অভিজ্ঞ বোলার। টি-টোয়েন্টিতে ওরা খুবই অভিজ্ঞ। এর বাদে সাম্প্রতিক সময়ে দীপক চাহার খুবই ভালো করছে।’

বেশ অনেকদিন ধরেই ভারতে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল। কারণ, লখনৌতে তারা আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে ব্যস্ত ছিল। ফলে, কন্ডিশনটা মোটামুটি কাইরেন পোলার্ডের দলের আয়ত্তে চলে এসেছে।

আশাবাদী অধিনায়ক কাইরেন পোলার্ড তাই বলেন, ‘আমরা ভারতে অনেক ক্রিকেট খেলেছি। তাই এখানে শুধু নিজেদের অভিজ্ঞতাটা কাজে লাগাতে হবে, যাতে করে ম্যাচ জেতা যায়। বড়ো ব্যাপার হলো আমরা তো এখানে খেলতেই এসেছি। আমাদের প্রস্তুতি ভালো হয়েছে, আশা করি ভালো পারফরম করতে পারব।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ভারত সফরে এসেছে দুই তুরুপের তাস সুনিল নারাইন ও আন্দ্রে রাসেলকে ছাড়া এই অবস্থায় পোলার্ড তাকিয়ে আছেন দলের প্রতিভাবান তরুণদের দিকে। প্রথম টি-টোয়েন্টির আগে হায়দরাবাদের রাজিব গান্ধী স্টেডিয়ামে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের দলের তরুণ প্রতিভাবানদের প্রতি আমাদের ভরসা রাখতে হবে। আমাদের এমন প্রতিভার কমতি নেই যারা আন্তর্জাতিক মঞ্চে ভালো করতে পারে।

গেল আগস্টেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে গিয়ে তিন ফরম্যাটেই স্বাগতিকদের হোয়াইটওয়াশ করে এসেছে ভারত। এর ওপর, টেস্ট ম্যাচে জিতলেও এই ভারতের মাটিতেই আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১-২ ব্যবধানে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হেরে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাই এই অবস্থায় ভারতের প্রতি সমীহের কোনো কমতি নেই পোলার্ডদের।

তিনি বলেন, ‘ভারতের পেস আক্রমণ এখন দারুণ করছে। আর ভারত এখন বিশ্বের এক নম্বর দল। আমাদের জন্য বিশ্বের এক নম্বর দলের বিপক্ষে মুখোমুখি হওয়াই আমাদের জন্য একটা চ্যালেঞ্জ। এটা নিয়ে আমাদের কিছু করার নেই। কিন্তু, আমাদের নিজেদের কাজটা ঠিকঠাক মতো করতে হবে। ওদের মোকাবিলা করার কৌশল খুঁজতে হবে। আলাদা কোনো খেলোয়াড় নয়, আমাদের লড়াইটা পুরো ভারতীয় দলের বিপক্ষে।’

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৪ জানুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন