ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬
২১ °সে

জয়ে সাহস বেড়েছে ভারতের

জয়ে সাহস বেড়েছে ভারতের

আজ দ্বিতীয়

টি-২০

g স্পোর্টস ডেস্ক

দীর্ঘ বিমান ভ্রমণের ক্লান্তি তো ছিলই, এর সঙ্গে ছিল নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে কন্ডিশন ও রানের পাহাড় তাড়া করার চ্যালেঞ্জ। ভারত সব চ্যালেঞ্জেই শতভাগ নম্বরসহ পাশ করে গেছে। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে মাত্র দুদিন আগে পা রেখেই গেল শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের ২০৩ রান তাড়া করে এক ওভার ও ছয় উইকেট হাতে রেখেই জিতে গেছে বিরাট কোহলির দল। সিরিজে দারুণ এই সূচনার পর বিরাট এখন আরো সাহসী। তিনি বলেন, ‘জয়টা আমরা উপভোগ করেছি। মাত্র দুদিন আগে এখানে পা রেখে এভাবে জয় পাওয়াটা দারুণ একটা ব্যাপার। সিরিজে আমরা কি করতে পারি, সেটা এই পারফরম্যান্সেই সবার বোঝা হয়ে গেছে। এই ম্যাচটা আমাদের সাহস বাড়িয়ে দিয়েছে।’

পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে এখন ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে ভারত। আজ অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ। খেলা হবে প্রথম ম্যাচের ভেন্যু ইডেনের অকল্যান্ড পার্কে। ভিনদেশের মাটিতে ভক্তদের সমর্থন পেয়ে উচ্ছ্বসিত কোহলি। তিনি বলেন,‘আমাদের মাঠে খেলতে নেমে মনে হয়েছে ৮০ ভাগ সমর্থনই আমাদের জন্য। সমর্থকরা ম্যাচের প্রতিটা মুহূর্ত আমাদের পাশে থেকেছে। সেজন্য আমাদের ২০০ রানের ওপর তাড়া করাটা সহজ হয়েছে। ভ্রমণ ক্লান্তি নিয়ে আমরা একদমই ভাবছিলাম না, কারণ কোনো অজুহাত দেওয়াটা আমাদের পছন্দ নয়।’

নিউজিল্যান্ডে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাস নিয়েই এসেছে ভারত। কারণ কদিন আগেই দেশের মাটিতে তারা ওয়ানডে সিরিজে ২-১ ব্যবধানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে। কোহলি বলেন, ‘আমাদের অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ভালো একটা সিরিজ গেছে। সেই আত্মবিশ্বাসটা আমরা এখানে নিয়ে এসেছি। আমাদের এখানে ভিন্ন ধরনের উইকেটে খেলতে হয়েছে। সেখানে খুব বেশি এগিয়ে থাকার সুযোগ নেই। শুধু জানতাম, মাঝের ওভারগুলোই খেলার ভাগ্য নির্ধারণ করবে।’

কোহলি অবশ্য মনে করেন, এখনো ভারতের ফিল্ডিংয়ে কিছু উন্নতি আনার সুযোগ আছে। তিনি বলেন, ‘ফিল্ডিংই এখন এমন একটা বিষয় যেখানে আমরা চাইলে উন্নতি আনতে পারি। সমস্যা যেটা হচ্ছে সেটা কন্ডিশনের জন্য। আমার ধারণা, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই ব্যাপারটা শুধরে নেওয়া যাবে।’

অন্যদিকে আজই সিরিজে ফিরতে মরিয়া নিউজিল্যান্ড। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন গেল ম্যাচে ২৬ বলে ৫১ রান করেও দলকে জেতাতে পারেননি। তিনি বলেন, ‘আমরা নিজেদের প্ল্যানমাফিকই এগিয়েছি। আর সেটা সফলও হয়েছে অধিকাংশ ক্ষেত্রে। কিন্তু ভারতের মতো দল যখন আপনাকে নিয়মিত চাপে রাখবে তখন আমাদের জন্য পারফরম করা শক্ত হয়ে যায়। আমাদের এর সমাধান দরকার। আশাকরি দ্বিতীয় ম্যাচেই চিত্রটা ভিন্ন হবে।’

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন