খুলনাকে হালকাভাবে নিচ্ছে না চিটাগং

প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

স্পোর্টস রিপোর্টার

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসরে এখন পর্যন্ত তলানীর দল খুলনা টাইটান্স। টানা তিন ম্যাচ হেরে ব্যাটফুটে আছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। আজ নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে চিটাগং ভাইকিংসের বিরুদ্ধে খেলবে খুলনা।

দুই ম্যাচের একটিতে হার ও একটি জয় আছে চিটাগংয়ের। প্রতিপক্ষ খুলনা নড়বড়ে অবস্থায় আছে। চিটাগংয়ের ক্রিকেটার ইয়াসির আলী রাব্বি বলেছেন, তিন ম্যাচ হারলেও খুলনাকে হালকাভাবে নেওয়া যাবে না। আর সব ম্যাচের মতো এই ম্যাচটিও চ্যালেঞ্জিং হবে বলে জানান তরুণ এই ক্রিকেটার। আর জয়ের জন্য দল হিসেবে নিজেদের সেরাটা নিংড়ে দিবে চট্টলার দলটি।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আজ চিটাগং-খুলনা ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর দেড়টায়। দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সের মুখোমুখি হবে ঢাকা ডায়নামাইটস। ম্যাচটি মাঠে গড়াবে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায়।

গতকাল সকালে বিসিবি একাডেমি মাঠে অনুশীলন করেছিল চিটাগং। অনুশীলন শেষে খুলনার বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে ইয়াসির আলী রাব্বি বলেছেন, ‘অবশ্যই প্রত্যেকটি ম্যাচ এখানে চ্যালেঞ্জিং। খুলনা টাইটান্স তিনটি ম্যাচ হেরেছে, কিন্তু অবশ্যই ওদের দল অনেক ভালো। সুতরাং ওদেরকে হালকাভাবে নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই আমাদের। আমরা অবশ্যই চেষ্টা করবো আমাদের শতভাগ দিয়ে খেলে যত ভালোভাবে সম্ভব জেতার।’

সামর্থ্যের সর্বোচ্চটা দিতে চান ইয়াসির আলী রাব্বি। জয় ভিন্ন কিছুই ভাবছে না মুশফিকুর রহিমের দল। তিনি বলেছেন, ‘আমরা ভালো খেলে ম্যাচটি জিততে চাই। ম্যাচ তো কেউ হারতে চায় না অবশ্যই। সুতরাং যতসম্ভব ভালো খেলে, দরকার হলে ১২০ শতাংশ ভালো খেলে আমরা ম্যাচটি জিততে চাই।’

মিরপুরের উইকেটে চলমান বিপিএলে দেশীয় ব্যাটসম্যানরা এখনও সফল হতে পারেননি। বড় ইনিংস নেই কারো। একমাত্র হাফ সেঞ্চুরি করেছেন রাজশাহী কিংসের অধিনায়ক মেহেদী হাসান মিরাজ। দেশীয় ব্যাটসম্যানদের রান পাওয়ার বিষয়টি নেতিবাচকভাবে দেখছেন না ইয়াসির আলী রাব্বি। তার মতে, ঘরোয়া ক্রিকেটে কম খেলায় এই ফরম্যাটে মানিয়ে নিতে সময় লাগছে ব্যাটসম্যানদের।

গতকাল ডানহাতি এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান বলেছেন, ‘আসলে বিষয়টি যদি আপনি নেতিবাচকভাবে দেখেন তাহলে হবে না। কারণ হলো আমরা টি-টোয়েন্টি অনেক কম খেলি। দেখা যাচ্ছে প্রথম দিকে আমাদের সমস্যাটি হয়। তবে যতোই ম্যাচ বাড়তে থাকবে এবং আমরা খেলতে থাকবো ততো আমরা এই বিষয়টি মানিয়ে নিতে পারবো।’

দল হিসেবে সিলেটও ভালো ছন্দে আছে। প্রথম ম্যাচ হারলেও দ্বিতীয়টি জিতেছিল ডেভিড ওয়ার্নারের দল। গতকাল দুপুরের পর বিসিবি একাডেমি মাঠে অনুশীলন করেছিল সিলেট। অনুশীলন শেষে গত ম্যাচে চার উইকেট পাওয়া ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদ বলেছেন, ‘মাশাল্লাহ সবাই ভালো ছন্দে আছে, উপভোগ করছে। আমরা যে প্রথম ম্যাচটি হেরেছিলাম এরপরেও সবাই ভালোই ছিলো। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচ জিতেছি। সবমিলিয়ে ভালো একটি অবস্থানে আছি আমরা, এভাবে থাকলে টুর্নামেন্টে ভালো কিছু হবে বলে আশা করি।’

চোটের ধাক্কা কাটিয়ে পেস বোলার হিসেবে পুরনো ছন্দে ফিরে আসছেন তাসকিন। বোলিংয়ে গতিও নাকি আগের অবস্থানে ফিরে এসেছে। তিনি আত্মবিশ্বাসী পরের ম্যাচগুলোতে আরও ভালো করবেন।