ঢাকা সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬
২৯ °সে


মরিয়া চেষ্টা চালাবেন লিওনেল মেসি

মরিয়া চেষ্টা চালাবেন লিওনেল মেসি

স্পোর্টস ডেস্ক

গোড়ালির ইনজুরির কারণে ব্রাজিল দলে নেইমারের অনুপস্থিতির মধ্যেই লিওনেল মেসি মূল আকর্ষণ হিসেবেই কোপা আমেরিকা জয়ে মাঠে নামতে যাচ্ছেন। বাংলাদেশ সময় আগামী শনিবার শুরু হবে দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলোর এই ফুটবল আসর।

লিওনেল মেসি ও আর্জেন্টিনার জন্য আসরটি হলো এক দশকের শিরোপা প্রতীক্ষা গুছানোর মরিয়া প্রয়াস। পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মেসি ক্লাব ফুটবলে অনেক ট্রফি জিতেছেন। কিন্তু মূল জাতীয় দলের হয়ে তার প্রাপ্তি শূন্য। বার্সেলোনার হয়ে চারবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ১০টি লা লিগা জিতেছেন তিনি। অথচ আর্জেন্টিনার হয়ে কোনো সাফল্য নেই।

মেসি জানেন জাতীয় দলের হয়ে তার সময়ও ফুরিয়ে আসছে। ৩১ বছরের ফুটবলারটি তাই গেল সপ্তাহে ফক্স স্পোর্টসকে বলেন, ‘আমি জাতীয় দলের হয়ে কিছু একটা জিতে ক্যারিয়ারের সমাপ্তি টানতে চাই। অথবা যতটা সম্ভব বেশি কিছু জয়ের।’

আর্জেন্টিনার হয়ে চারটি ফাইনাল খেললেও প্রতিবারই জুটেছে হার। এর মধ্যে আছে গত দুটি কোপা আমেরিকা যাতে চিলির কাছে পেনাল্টিতে হূদয় ক্ষতবিক্ষত হয়েছে মেসিদের। এসবের চাইতে বেশি হূদয় বিদারক ছিল ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনাল যাতে জার্মানির কাছে বিখ্যাত মারাকানায় হারতে হয়েছিল তাদের। এ কারণেই ব্রাজিলে শুরু হতে যাওয়া এবারের কোপা আমেরিকায় ৭ জুলাইয়ের ফাইনালটি জিততে মরিয়া মেসি।

জার্মানির কাছে হারটি দিয়েই শুরু হয়েছিল টানা তিন বছর ফাইনালে পরাস্ত হওয়ার পালা। কোপা আমেরিকায় সর্বশেষ হারটির পর মেসি জানিয়ে দিয়েছিলেন আর খেলবেন না। তিনি এবং তার সতীর্থদের অনেক গালমন্দ ও সমালোচনা শুনতে হয়েছিল। সে প্রসঙ্গ মনে করিয়ে মেসি বলেন, ‘লোকজন আমাদের সবদিক থেকেই আক্রমণ করেছিল।’

তবে তার অবসর টিকেছিল ছয় সপ্তাহ। এরপর ফিরে আসা মেসি ইকুয়েডরের বিরুদ্ধে বাছাই পর্বে হ্যাটট্রিক করেই গত বছরের রাশিয়া বিশ্বকাপে তুলে এনেছিলেন দলকে। কিন্তু মেসি কিছুতেই তার বার্সেলোনা ফর্মকে জাতীয় দলে ফেরাতে পারেননি। তাই আর্জেন্টিনাকেও ২০১৮ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকেই বিদায় নিতে হয়েছিল।

এরপর মেসি আর্জেন্টিনার হয়ে ছয় খেলায় অনুপস্থিত থাকেন। সেগুলো ছিল প্রীতি ম্যাচ এবং এ দফায় মেসি আর অবসরের কথা বলেননি। বরং ফক্সকে মেসি জানান, ছেলে থিয়াগো তার ‘জাতীয় দলে খেলা পছন্দ করেন’।

কোপা আমেরিকায় নামার আগে মেসির মরিয়া ইচ্ছে ট্রফি জয়। তিনি গত সপ্তাহে টিওয়াইসি স্পোর্টসকে বলেন, ‘আমরা বরাবরের মতোই একই আশা ও ইচ্ছে নিয়েই সেখানে যাচ্ছি। আর্জেন্টিনা তরুণ ও নতুনদের নিয়ে একটা পরিবর্তনের মধ্য দিয়েই যাচ্ছে। অনেকের জন্যই এটা হবে প্রথম টুর্নামেন্ট। কিন্তু সেটি আর্জেন্টিনার এ প্রতিযোগিতা জয়ে বাধা হয়ে দাঁড়াবে না।’

শেষ পাঁচটি ফাইনালের মধ্যে চারটিতে উপস্থিতির পরও আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকা জিতেছিল ২৬ বছর আগে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন