ঢাকা মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
৩৩ °সে

ফিলিপাইনে টাইফুন ফানফোনে নিহত ১৬ , নিখোঁজ বহু

দুর্গতদের দ্রুত ত্রাণ সহায়তা দরকার :রেডক্রস
ফিলিপাইনে টাইফুন ফানফোনে নিহত ১৬ , নিখোঁজ বহু

বড়দিনের মধ্যে ফিলিপাইনের মধ্যাঞ্চলে আঘাত হানা টাইফুন ফানফোনে অন্তত ১৬ জন নিহত ও বহু লোক নিখোঁজ রয়েছে। দেশটির কর্মকর্তারা এ খবর নিশ্চিত করেছেন। গত মঙ্গলবার ঝোড়ো বাতাস, ভারী বর্ষণ ও হঠাত্ বন্যা নিয়ে টাইফুনটি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এ দেশটিতে আঘাত হানে। এতে এখন দুর্গতদের সহায়তায় দ্রুত ত্রাণ-সাহায্য দরকার বলে রেডক্রস জানিয়েছে।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় আগেই ঝড়টির পথে থাকা এলাকা থেকে ৫৮ হাজারেরও বেশি বাসিন্দাকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেওয়া হয়। সতর্কতার অংশ হিসেবে বিভিন্ন বন্দরের অসংখ্য ফেরি চলাচলও বন্ধ করে দেওয়া হয়; বাতিল হয় বিমানের কয়েক ডজন ফ্লাইট। ফিলিপাইনের দুর্যোগ মোকাবিলার দায়িত্বে থাকা সংস্থা মধ্যাঞ্চলীয় কাপিজ, ইলোইলো ও লেইতে প্রদেশে হতাহতের খবর পাওয়া গেছে। নিহতদের মধ্যে ১৩ বছর বয়সি এক বালক বিদ্যুত্স্পৃষ্ট হয়ে, গাছের ডাল পড়ে একজন এবং গাড়ি দুর্ঘটনায় আরেকজন নিহত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন তারা। গত বুধবার রাতেই টাইফুন ফানফোন ফিলিপাইন ছেড়েছে। এটি এখন পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে দক্ষিণ চীন সাগরের দিকে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে দেশটির আবহাওয়া বিভাগ।

ফিলিপাইনে রেডক্রসের চেয়ারম্যান রিচার্ড গর্ডন বলেন, টাইফুনে বহু লোক তাদের ঘরবাড়ি হারিয়েছে। তাদের এখন জরুরি ভিত্তিতে খাদ্য-সহায়তা দরকার। তিনি বলেন, বিভিন্ন এলাকায় পানি ও বিদ্যুতের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। এই পরিস্থিতিতে তাদের এখন এই সেবাগুলো দেওয়া অত্যন্ত জরুরি। তবে সরকারের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পানি ও বিদ্যুতের সংযোগ পুনরায় দিতে হলে তাদের কয়েক সপ্তাহ লেগে যাবে। টাইফুনের কারণে দেশটির জনপ্রিয় পর্যটন দ্বীপ ‘বোরোকেরও অনেকে ক্ষতি হয়েছে। কোরীয় পর্যটক জুং বিয়ং জুন বলেন, বোরোকেতে যেতে কালিয়াবোর যে বিমানবন্দরটি ব্যবহার করা হয়, তারও বেশ ক্ষতি হয়েছে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
০২ জুন, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন