ঢাকা সোমবার, ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২৩ চৈত্র ১৪২৬
৩৮ °সে

লকডাউনে খালি পেটে হাঁটলেন ১৩৫ কিমি

যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞার মধ্যে বাড়ি ফিরতে হেঁটে এ পথ পাড়ি দেন ২৬ বছর বয়সি এক ভারতীয় দিনমজুর
লকডাউনে খালি পেটে  হাঁটলেন ১৩৫ কিমি

মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে ভারত জুড়ে দেওয়া লকডাউনে যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞার মধ্যে বাড়ি ফিরতে খালি পেটে ১৩৫ কিলোমিটার পথ হাঁটতে হয়েছে মহারাষ্ট্রের ২৬ বছর বয়সি এক দিনমজুরকে। নরেন্দ্র শেলকে নামের ঐ যুবক পুনেতে কাজ করতেন। লকডাউনে কাজের অনিশ্চয়তা দেখা দেওয়ায় গ্রামের বাড়ি চন্দ্রপুরের সাওলি এলাকার জাম্ব গ্রামের নিজ বাড়িতেই ফেরার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। রেল যোগাযোগ বন্ধ হওয়ার আগে শেষ ট্রেন ধরে পুনে থেকে নাগপুরে পৌঁছেছিলেন। কিন্তু এর পরই পড়েন বিপাকে।

কোনো উপায় না দেখে শেলকে শেষ পর্যন্ত নাগপুর-নাগবিদ সড়ক ধরেই বাড়ির পথে হাঁটা শুরু করেন। টানা দুই দিন কেবল পানি খেয়ে ১৩৫ কিলোমিটার হাঁটার পর এ যুবক বুধবার রাতে মহারাষ্ট্রের সিন্ধেওয়াহি এলাকার শিবাজি স্কয়ারে পুলিশের টহল দলের সামনে পড়েন। পুলিশ সিন্ধেওয়াহি থানার সহকারী পরিদর্শক নিশিকান্ত রামতেকে জানান, টহল দলের সদস্যরা শেলকের কাছে কারফিউ ভঙ্গের কারণ জানতে চাইলে চন্দ্রপুরের এ বাসিন্দা তার দুর্দশার কথা জানান। বাড়ি ফিরতে তিনি যে দুই দিন ধরে খালি পেটে হাঁটছেন, সেটাও জানান। খবর এনডিটিভির।

শেলকেকে তাত্ক্ষণিক কাছাকাছি একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে পুলিশের এক উপপরিদর্শক বাড়ি থেকে তার (শেলকে) জন্য খাবারও নিয়ে আসেন। চিকিত্সকের অনুমতি পাওয়ার পর পুলিশ একটি গাড়ি করে শেলকেকে সিন্ধেওয়াহি থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে জাম্ব গ্রামে দিয়ে আসে। সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে ২৬ বছর বয়সি এ যুবককেও বাড়িতে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে, বলেছেন রামতেকে।

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
০৬ এপ্রিল, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন