তরুণদের দক্ষ করার লক্ষ্যে কাজ করছে সিকেএইচ নেটওয়ার্ক

দক্ষ তারুণ্য গড়তে কাজ করছে সিকেএইচ নেটওয়ার্ক
তরুণদের দক্ষ করার লক্ষ্যে কাজ করছে সিকেএইচ নেটওয়ার্ক

বাজারে চাকরি নেই, যেগুলো আছে সেগুলোর রিকোয়ারমেন্ট সিভি’র সাথেও যাচ্ছেনা। এমন ঘটনা ঘটে হরহামেশাই। মোদ্দা কথা, আপনি দক্ষ নন, তাই গোল্লায় যান। এমন বাস্তবতার কথা ভেবেই দীর্ঘদিন ধরে তরুণদের দক্ষ করার লক্ষ্যে প্রাণপণ কাজ করে চলেছেন কোচ কামরুল হাসান। ২০১৯ সালে সিকেএইচ নেটওয়ার্ক নামে তরুণদের সমস্যা, সমাধান ও সুযোগ তৈরি করার লক্ষ্যে একটা কমিউনিটি প্ল্যাটফর্মের যাত্রা শুরু করেছিলেন তিনি।

লিডারশিপের গুরু হিসেবে যাদের ধরা হয় তাদের মধ্যে অন্যতম জন ক্যালভিন ম্যাক্সওয়েল। ম্যাক্সওয়েল টিম থেকে সার্টিফাইড স্পিকার, ট্রেইনার ও কোচ হিসেবে স্বীকৃতি পান সিকেএইচ নেটওয়ার্কের প্রতিষ্ঠাতা কামরুল হাসান। বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ও রিলেশনশিপ ম্যানেজমেন্ট নিয়ে দীর্ঘ ১৬ বছরের অভিজ্ঞতা অর্জনের পর কামরুল হাসান উপলব্ধি করেন তরুণদের দক্ষ করার সুযোগ রয়েছে তার অভিজ্ঞতা দিয়েই। সে ভাবনা থেকে ২০১৯ সালে প্রতিষ্ঠা করেন তারুণ্যনির্ভর প্লাটফর্ম সিকেএইচ নেটওয়ার্ক। এটি মূলত একটি পরিপূর্ণ এডুকেশনাল প্ল্যাটফর্ম, এক কথায় বলা যায় ওয়ানস্টপ সল্যুশন।

নানা অঙ্গনের বিভিন্ন কোচ, ট্রেইনার, ইন্ডাস্ট্রি এক্সপার্টদের মাধ্যমে সিকেএইচ নেটওয়ার্ক একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে বিশ্বমানের দক্ষ হিসেবে গড়ে তোলার জন্য কাজ করছে। দেশের ৫০টির অধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্কিল ডেভেলপমেন্ট বিষয়ের উপর কর্মশালা আয়োজন করেছে ইতোমধ্যেই। উদ্যোক্তা হতে চাই, এই কথাটা এখন সচরাচর শোনা যায়, তবে একজন উদ্যোক্তা হয়ে ওঠার জন্য অবশ্যই নানা বিষয়ে দক্ষ হওয়া প্রয়োজন। দক্ষ প্রশিক্ষকের দ্বারা সেসব বিষয়ে স্পষ্ট ধারণা দেওয়া হয় একজন শিক্ষার্থীকে। পাশাপাশি দেশব্যাপী গ্লোবাল সার্টিফিকেশন কোর্স পরিচালনা করছে সিকেএইচ নেটওয়ার্ক।

এবার জেনে নেওয়া যাক সিকেএইচ নেটওয়ার্ক-এর কিছু উদ্যোগের কথা। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে বিশ্বমানের সফট স্কিল কোর্স করার সুযোগ করে দিয়েছে এই প্ল্যাটফর্ম। বিশ্বমানের স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রশিক্ষণ দেওয়ার মধ্য দিয়ে ছাত্রছাত্রীদের জব মার্কেটের জন্য তৈরি করে নেক্সট জেন লিডার প্রোগ্রামের মাধ্যমে৷ ১০টি মডিউলের উপর ভিত্তি করে ১৪৭টি লেসনের উপর শিক্ষার্থীদের জন্য ‘21st Century Employability Skill Development Course’ তৈরি করা হয়েছে, পাশাপাশি কমিউনিকেশন স্কিল, প্রবলেম-সলভিং, কাস্টমার ম্যানেজমেন্ট, ক্রিয়েটিভিটি, ক্রিটিক্যাল থিংকিং, সেলফ ম্যানেজমেন্ট, ডিজিটাল লিটারেসি টিমওয়ার্ক, এটিচ্যুড অ্যান্ড বিহেভিয়ার, এন্ট্রাপ্রেনার মাইন্ডসেট ইত্যাদি বিষয়ে সম্পূর্ণ ফ্রি জানার সুযোগ পায় শিক্ষার্থীরা।

কোর্সটি ইতোমধ্যে দেড় শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে সাত হাজার শিক্ষার্থী সম্পূর্ণ করেছে। এটি করার পর ‘হাই পারফর্মিং গ্র্যাজুয়েট সার্টিফিকেট’ পাবার সুযোগ রয়েছে। পাঁচটি পরীক্ষার মাধ্যমে ‘হাই পারফর্মিং গ্র্যাজুয়েট সার্টিফিকেট প্রোগ্রাম’ সম্পূর্ণ করতে পারবে শিক্ষার্থীরা। ইতোমধ্যে এক হাজার গ্র্যাজুয়েট তৈরি হয়েছে এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে। তারুণ্যের প্ল্যাটফর্ম সিকেএইচ নেটওয়ার্কে সারাদেশ থেকে এক শতাধিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে যুক্ত রয়েছে ৩০০ প্রতিনিধি। বাংলাদেশের আট বিভাগে রয়েছে বিভাগীয় টিম। শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজন করা হয় ভিন্নধর্মী আয়োজন।

ভবিষ্যত পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাইলে কামরুল হাসান জানান, বিশ্বসেরা ট্রেইনারদের মাধ্যমে বাংলাদেশের তরুণদের বিশ্ববাজারের জন্য গড়ে তোলার লক্ষ্যে সিকেএইচ নেটওয়ার্ক যুক্ত হয়েছে বিশ্বের কিছু নামকরা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক ওয়াধানি ফাউন্ডেশন, নেদারল্যান্ডসের জাম্প মুভমেন্ট, দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে কে-আই লিডারশিপ ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশের সেনসেই উইজডম, ইংলিশ অলিম্পিয়াড। ২০২১ সালের মাঝে সিকেএইচ নেটওয়ার্কের লক্ষ্য, পুরো দেশের তরুণদের বিশ্বমানের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আগামী দিনের চাকরির বাজার ও উদ্যোক্তা হিসেবে যোগ্য করে গড়ে তোলা।

ইত্তেফাক/এসটিএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x