ওয়েবসাইটের ভিউয়ার বাড়ায় মাকসুদের যে সফটওয়্যার

ওয়েবসাইটের ভিউয়ার বাড়ায় মাকসুদের যে সফটওয়্যার
ছবি: ইত্তেফাক

এসইও অডিট এজেন্সির ফাউন্ডার এবং সিইও মাকসুদ রহমান। ১৯ বছর ধরে তিনি ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে কাজ করছেন, তার মধ্যে ১৫ বছর নিউইয়র্কে এবং প্রায় ৪ বছর ধরে বাংলাদেশে কাজ করে যাচ্ছেন। সেই কাজের সূত্র ধরে এসইও অডিট এজেন্সি নিয়ে এসেছে বাংলাদেশের প্রথম এসইও কাজ সম্পাদনকারী সফটওয়্যার ‘এসইও অডিট সফটওয়্যার’, যা সাহায্য করে ওয়েবসাইটের উইকনেসগুলো ফিক্স করে গুগল র‍্যাঙ্কিং-এ নিয়ে আসতে।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমাদের এই ডিজিটাল পথে সঙ্গী হিসেবে যুক্ত হয়েছে এসইও অডিট সফটওয়্যার। এই এসইও সফটওয়্যারটি ওয়েবসাইটের বিভিন্ন উইকনেসগুলো খুঁজে বের করে সেগুলো ফিক্স করতে এবং ওয়েবসাইটের পারফর্মমেন্স ইমপ্রুভ করতে সাহায্য করে। ফ্রিল্যান্সার, ওয়েবসাইট ডেভেলপার এবং মার্কেটিং এজেন্সিকে গুগল গাইডলাইন অনুসরণ করে সার্চ ইঞ্জিন রেজাল্ট পেজের র‍্যাঙ্কিংয়ে নিয়ে আসাই এই সফটওয়্যারের প্রধান কাজ।

তিনি দৈনিক ইত্তেফাকের প্রজন্ম টিমকে জানান, সার্চ ইন্জিন অপটিমাইজেশন সংক্ষেপে এসইও নামে পরিচিত। এটি আপনার ওয়েবসাইট বা ওয়েবপেইজকে সার্চ ইঞ্জিন রেজাল্ট পেজ এর প্রথম পাতায় র‍্যাঙ্কিংয়ে আসতে সহায়তা করে।

জানা যায়, এসইও এর মাধ্যমে এখন খুব সহজেই প্রোডাক্ট এবং সার্ভিস টার্গেট ক্লায়েন্টের সামনে সঠিক সময়ে সঠিক ডিভাইসে তুলে ধরা যায়। এতে করে ব্র্যান্ড রেপুটেশন বাড়ার পাশাপাশি দ্বিগুণ হারে বাড়ে ব্যবসার সেলসও।

এসইও অডিট এজেন্সির ক্লায়েন্ট লিস্টে লোকাল ক্লায়েন্টের পাশাপাশি আছে ইন্টারন্যাশনাল ক্লায়েন্ট। ইতোমধ্যে তাদের ক্লায়েন্ট পোর্টফোলিওতে যুক্ত হয়েছে ইউএসএ, ইউকে, কানাডা, নেদারল্যান্ড, সুইডেন এবং জার্মানি থেকে আগত বিভিন্ন ক্লায়েন্টের সাকসেসফুল প্রজেক্ট। নানাবিধ ডিজিটাল সেবা দিয়ে দেশ ঘুরে বিদেশের মাটিতেও তারা সাকসেসফুলি ছড়িয়ে দিয়েছে বিভিন্ন ডিজিটাল মার্কেটিং সেবা।

স্টার্টআপসহ উদ্যোক্তাদের ওয়েবসাইটের ভুল-ত্রুটিগুলো খুঁজে বের করে র‍্যাঙ্কিং ইমপ্রুভ করার পাশাপাশি সার্চের প্রথম পাতায় আসার মতো এত ইনভেস্টমেন্ট থাকেনা। আর এদিকে কম্পিটিটর থেকে এগিয়ে থাকতে দরকার একটি পরিপূর্ণ এসইও স্ট্রাটেজি এবং সঙ্গে পাওয়ারফুল এসইও টুল।

তরুণ উদ্যোক্তাদের এই অনলাইন প্রতিযোগিতায় টিকিয়ে রাখতে বাংলাদেশের প্রথম এসইও সফটওয়্যার। এরকম কোনো এসইও টুল ব্যবহার করতে দরকার পরে অনেক ইনভেস্টমেন্টের। কিন্তু এই সফটওয়্যার দিচ্ছে ১৪ দিনের ফ্রি ট্রায়ালের সুবিধা যেখানে গ্রাহকরা পাবে বিনামূল্যে পাওয়ারফুল সব এসইও ফিচার ব্যবহার করার পূর্ণ স্বাধীনতা। এছাড়াও রয়েছে লাইফটাইম ফ্রি ভার্সন ব্যবহার করার সুযোগ। এই ফ্রি ভার্সন ব্যবহার করে উদ্যোক্তারা পাচ্ছে প্রতি মাসে ৫০টি কিওয়ার্ড পজিশন ট্র্যাকিং এর সুবিধা, পাশাপাশি ৩ জন কম্পিটিটর র‍্যাঙ্কিং কম্পেয়ার করতে পারবে আর সঙ্গে পাবে ১০০ বার টেকনিক্যাল এসইও অডিট চালানোর সুযোগ। আরও বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন: https://seoaudit.software

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x