ওইসিএস এর 'সাসটেইনেবল ডেভলপমেন্ট মুভমেন্ট' সম্মেলন

বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন মাসুম রানা

এসডিএম সম্মেলনে দেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন মাসুম রানা
মাসুম রানা

আগামী ২২-২৩ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘সাসটেইনেবল ডেভলপমেন্ট মুভমেন্ট (এসডিএম)’-এর সম্মেলন। এ সম্মেলনের জন্য অর্গানাইজেশন অব ইস্টার্ন ক্যারিবিয়ান স্টেটস (ওইসিএস) এবার আন্তর্জাতিক আবেদনকারীদের মধ্য থেকে ২৭ জন অ্যাম্বাসেডর নির্বাচন করেছে। এদের 'সাসটেইনেবল ডেভলপমেন্ট মুভমেন্ট অ্যাম্বাসেডর' বলা হয়। এই ২৭ জনের মধ্যে রয়েছেন বাংলাদেশি তরুণ মাসুম রানা।

মাধ্যমিক পর্যন্ত মাসুমের ছেলেবেলা কেটেছে কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার মহালক্ষ্মীপাড়া গ্রামে। ঢাকায় এসে উচ্চমাধ্যমিকের পর মতিঝিল টিএন্ডটি কলেজ থেকে ব্যবসায় প্রশাসনে স্নাতক সম্পন্ন করেন। ড্যাফোডিল আইটি থেকে নেন 'ওয়েব এন্ড ই-কমার্স' এ ডিপ্লোমা। ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিক থেকে এমবিএ করেছেন৷ তবে একজন পেশাদার কর্মী হলেও স্কুলজীবন থেকেই ভালোবাসতেন স্বেচ্ছাসেবা। যেকোনো সংগঠনের হয়ে সেবামূলক কাজের সুযোগ পেলে কখনোই হাতছাড়া করেননি তা।

টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) নিয়ে বেশ আগ্রহ ছিল মাসুমের। কিছুটা ঘাটাঘাটি করতে একসময় জানতে পারেন অর্গানাইজেশন অব ইস্টার্ন ক্যারিবিয়ান স্টেটস (ওইসিএস) এর কার্যক্রম সম্পর্কে। সংস্থাটি মূলত 'সাসটেইনেবল ডেভলপমেন্ট মুভমেন্ট' নিয়ে কাজ করছে। সেখানে অনুষ্ঠিতব্য একটি সামিটে অংশ নেয়ার জন্য আবেদন করে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবে অংশগ্রহণের সুযোগ পান।

মাসুম রানা বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশের তরুণরা বিশ্বমঞ্চ থেকে সুনামের সাথে অনেক বড় বড় অর্জন বয়ে আনছে। তরুণদের অনন্য অর্জন দেখে গর্ব হয়, নিজের ভেতরেও আলোড়ন অনুভব করি। এসডিএম প্ল্যাটফর্মটিতে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পেয়ে ভালো লেগেছে, কারণ আমিও চাই দেশের জন্য ভালো কিছু করতে। ওইসিএস এর সাথে এসডিজি নিয়ে কাজের মাধ্যমে যে অভিজ্ঞতা হবে, সেটির দ্বারা আরও বড় পরিসরে কাজের সুযোগ পেলে দেশের প্রান্তিক পর্যায়ে কিছু করব।

বর্তমানে মাসুম একটি বহুজাতিক কোম্পানির ডিজিটাল মিডিয়া কোর্ডিনেটর হিসেবে কাজ করছেন, পাশাপাশি ডিজাইন, ডিজিটাল মার্কেটিং স্ট্র্যাটেজি ও কন্টেন্ট ক্রিয়েশন নিয়ে কাজ করে থাকেন তিনি৷ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় থেকেই মাসুমের একটা ছোট্ট টিম আছে, যার নাম 'ওয়েবকক্স'। এই টিমের কাজের প্রধান বৈশিষ্ট্য হল ভার্চুয়াল অ্যাজেন্সি হিসেবে প্রোজেক্ট কমপ্লিট করা। সব কাজ ভার্চুয়াল কমিনিকেশনের মাধ্যমেই করা হয়।

চাকরি, প্রফেশনাল ও ছোট ব্যবসায়িক কাজের মাঝেও কিছু সামাজিক সংগঠনের সাথে কাজ করছেন মাসুম। 'ওয়াক টু সেরেনিটি', 'ফরএম টিভি ইউএসএ' এর সাথে মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে কাজ করছেন। আর নিজ এলাকার জন্য তৈরি করছেন 'বেটার মহালক্ষ্মীপাড়া', যার মাধ্যমে এলাকার মানুষের জীবনমান উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে চান তিনি।

ইত্তেফাক/এসটিএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
আরও
আরও
x