ঢাকা শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ১১ মাঘ ১৪২৭
১৫ °সে

ইউনেস্কোর সম্মেলনে বাংলাদেশকে তুলে ধরলেন প্রফেসর ড. নুরুল হুদা

ইউনেস্কোর সম্মেলনে বাংলাদেশকে তুলে ধরলেন প্রফেসর ড. নুরুল হুদা
ইউনেস্কোর সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করা প্রফেসর ড. নুরুল হুদা। ছবি: সংগৃহীত।

ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের এমএসসিএসই প্রোগ্রামের পরিচালক ও ইজেনারেশনের পরিচালক (এআই অ্যান্ড এনএলপি) প্রফেসর ড. মোহাম্মদ নুরুল হুদা ইউনেস্কো আয়োজিত ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং (এনএলপি) সম্মেলনে বাংলাদেশকে তুলে ধরেছেন।

তিনি দেশের শীর্ষস্থানীয় আইটি কনসাল্টিং ও সফটওয়্যার সল্যুউশনস সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ইজেনারেশনের ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং টিমের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। ড. হুদা মূলত নিউরাল নেটওয়ার্ক, মেশিন লার্নিং, এনএলপি এর মতো বিষয়ে শিক্ষকতা করেন এবং ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির অন্যতম প্রফেসর।

ফ্রান্সের প্যারিসে অবস্থিত ইউনেস্কোর প্রধান কার্যালয়ে ‘ল্যাঙ্গুয়েজ টেকনোলজি ফর অল : অ্যানাবলিং ল্যাঙ্গুয়েস্টিক ডাইভারসিটি অ্যান্ড মাল্টিল্যাঙ্গুয়ালিজম ওয়ার্ল্ডওয়াইড’ শীর্ষক এই সম্মেলন গত ৪ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়ে ৬ ডিসেম্বর শেষ হয়েছে। বিশ্বের ৮৮টি দেশের এনএলপি বিশেষজ্ঞরা এই সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন। মহাসম্মেলনের পৃষ্ঠপোষকতায় রয়েছে গুগল, ফেসবুক, মাইক্রোসফট, আইবিএম রিসার্চ এআই, অ্যামাজন অ্যালেক্সা, মজিলা, সিস্ট্রান ইত্যাদির মতো প্রযুক্তি জায়ান্টগুলো। বাংলাদেশ থেকে একমাত্র আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে এই সম্মেলনে আয়োজিত সেমিনারে আলোচক হিসেবে রয়েছেন ড. হুদা। তিনি ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিংয়ে রুল বেসড অ্যাপ্রোচের পরিবর্তে কীভাবে মেশিন লার্নিং টেকনোলজি ব্যবহার করা যায় সে সম্পর্কে আলোচনা করেছেন।

ইজেনারেশনের এনএলপি টিম এই খাতে তার শীর্ষস্থানীয় অভিজ্ঞতা ও নেতৃত্বের মাধ্যমে বাংলা ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং টুলস তৈরি করছে। ইজেনারেশন ইতিমধ্যেই বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহারের উপযোগী চ্যাটবট তৈরি করেছে, যার মাধ্যমে ফেসবুক, গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট, ভাইবার, টুইটার এবং অন্যান্য ওয়েবভিত্তিক প্লাটফর্ম বা ওয়েবসাইটের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে সোশ্যাল মিডিয়া গ্রাহক সেবা এবং মন্তব্য ব্যবস্থাপনা করা যাবে। ইজেনারেশনের এনএলপি টিম এবং ডাটা সায়েন্স টিম সেন্টিমেন্ট অ্যানালাইটিক্স টুলস তৈরি করেছে যা ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে বহুবিধ ব্যবহার রয়েছে। এছাড়া ইজেনারেশন বিশ্বের অন্যান্য ভাষার সাথে বাংলা ভাষাকে সংযুক্ত করতে বাংলা ইন্টারন্যাশনাল ফোনেটিক অ্যালফাবেট (আইপিএ) তৈরি করছে।

ড. হুদা এবং ইজেনারেশন এনএলপি টিম মূলত মেশিন লার্নিং, স্পিস রিকগনিশন, স্পিস সিনথেসিস, স্পিস অ্যানালাইসিস, স্পিকার রিকগনিশন, কোশ্চেন অ্যান্সারিং সিস্টেম, বাংলা চ্যাটবট, মেশিন ট্রান্সলেশন, সেন্টিমেন্ট অ্যানালাইসিস, বাংলা স্পেল ও গ্রামার চেকার, ইন্টারন্যাশনাল ফোনেটিক অ্যালফাবেট (আইপিএ) কনভার্সেশন, ফন্ট কনভার্টার, বাংলা মোরফোলজি, পজ ট্যাগিং, বাংলা ইউনিভার্সেল নেটওয়ার্ক ল্যাঙ্গুয়েজ (ইউএনএল), বাংলা সিমিলারিটি মেজার, বাংলা ডকুমেন্ট ক্লাসিফিকেশন, আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স, কম্পিউটেশনাল ল্যাঙ্গুস্টিটিক্স, প্যাটার্ন ক্লাসিফিকেশন এবং ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং (এনএলপি) নিয়ে কাজ করছে।

উল্লেখ্য, ড. হুদা জাপানের টোয়োহাসি ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি থেকে অটোমেটিক স্পিচ রিকগনিশনে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানোর ক্ষেত্রে তাঁর ২২ বছরের অধিক অভিজ্ঞতা রয়েছে এবং তিনি বাংলা, জাপানিজ ও ইংরেজিতে টেক্সট ও স্পোকেন ল্যাঙ্গুয়েজ টেকনোলজিতে উচ্চ অভিজ্ঞতাসম্পন্ন। তার বিভিন্ন জার্নালে এনপিএল সম্পর্কিত ১৩০টির অধিক আন্তর্জাতিক রিসার্চ পেপার রয়েছে।

ইত্তেফাক/আরএ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
২৪ জানুয়ারি, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন