অ্যাসোসিও’র আইসিটি এডুকেশন অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করলেন জয়

অ্যাসোসিও’র আইসিটি এডুকেশন অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করলেন জয়
প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের নিকট অ্যাওয়ার্ডটি হস্তান্তর করছেন আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক

আইডিয়া প্রকল্প কর্তৃক অর্জিত অ্যাসোসিও’র আইসিটি এডুকেশন অ্যাওয়ার্ড গ্রহণ করলেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারের সম্মেলনকক্ষে আইসিটি বিভাগ এবং এর আওতাধীন দপ্তর ও সংস্থাসমূহের কার্যক্রম, অর্জন এবং অগ্রগতি বিষয়ক একটি মতবিনিময় সভায় এ অ্যাওয়ার্ড সজীব ওয়াজেদ জয়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়। আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক অ্যাওয়ার্ডটি হস্তান্তর করেন।

গত ১২ নভেম্বর মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত ‘অ্যাসোসিও-পিকম ডিজিটাল ‍সামিট ২০১৯’ অনুষ্ঠানে উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমি প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প আইডিয়াকে এ পুরস্কার দেওয়া হয়। আইসিটি খাতে বিশেষ অবদানের জন্য তথ্যপ্রযুক্তিতে এশিয়ার অন্যতম বৃহত্তম সংগঠন ‘এশিয়ান-ওশেনিয়ান কম্পিউটিং ইন্ডাস্ট্রি অর্গানাইজেশন (অ্যাসোসিও)’ আইসিটি এডুকেশন ক্যাটাগরিতে এই আন্তর্জাতিক অ্যাওয়ার্ড প্রদান করে।

অ্যাওয়ার্ড হস্তান্তর অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম এবং আইডিয়া প্রকল্পের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) সৈয়দ মজিবুল হক উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া আইসিটি বিভাগ এবং এর আওতাধীন দপ্তর ও সংস্থাসমূহের অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ এই অর্জনে আনন্দিত ও উচ্ছ্বসিত হন এবং সকলকে অভিনন্দন জানান। আইসিটি খাতে বিশ্বব্যাপী রোল মডেল হিসেবে বাংলাদেশ যে পরিচিতি পাচ্ছে এই পুরস্কার তারই স্বীকৃতি। এছাড়া বাংলাদেশের আইসিটি খাতকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য উপদেষ্টা বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন। অনুকরণ না করে উদ্ভাবনে মনোযোগী হতে তিনি সকলকে নির্দেশনা দেন। আইসিটি খাতের বিশ্বের সেরা প্র্যাক্টিসগুলো আমাদের গ্রহণ করতে হবে বলে উপদেষ্টা পরামর্শ দেন।

আরো পড়ুন: পরিস্থিতি বদলেছে, আমরা এখন কোনো দাতাকে ডাকি না: প্রধানমন্ত্রী

একই সঙ্গে আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্তিতে সকলকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান। এছাড়া মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনানুযায়ী আইসিটি বিভাগ সম্প্রতি সরকারি সেবাগ্রহীতাদের মতামত পরিক্ষণের জন্য এবং সেবা গ্রহীতাদের মতামতের ভিত্তিতে সেবার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে ‘ডিজিটাল মতামত পরিবীক্ষণ ব্যবস্থা’ চালু করে যা উপদেষ্টা পর্যবেক্ষণ করেন। তিনি বলেন, ‘এই উদ্যোগটি আইসিটি বিভাগের সেবার মান উন্নয়নে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।’ তিনি এই উদ্যোগের ভূয়সী প্রশংসা করেন।

আইডিয়া প্রকল্পের পরিচালক সৈয়দ মজিবুল হক জানান, প্রকল্প থেকে উদ্যোক্তাদের উন্নয়নে গৃহীত নানা পরিকল্পনার মধ্যে দেশের ১০টি জনগুরুত্বপূর্ণ সমস্যা চিহ্নিত করে সেগুলোর সমাধানে তথ্য-প্রযুক্তি ভিত্তিক ইনোভেটিভ সমাধান খুঁজে বের করার লক্ষ্যে আয়োজন স্টার্টআপ বাংলাদেশ-আইডিয়া করছে ‘ন্যাশনাল হ্যাকাথন অন ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজিস’। হ্যাকাথন সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে স্টার্টআপ বাংলাদেশ-আইডিয়া এর ওয়বেসাইট www.startupbangladesh.gov.bd –এ। এছাড়া তিনি অ্যাসোসিও’র আইসিটি এডুকেশন অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্তিতে সকলকে সহযোগিতা করার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার পাশাপাশি আইসিটি খাতে প্রশিক্ষণ ও মেনটরিং এর মাধ্যমে দক্ষ জনবল ও উদ্যোক্তা তৈরিতে কাজ করে যাচ্ছে আইডিয়া প্রকল্প। এছাড়া আইডিয়া প্রকল্প তার ‘স্টার্টআপ বাংলাদেশ’ ব্যানার নিয়ে বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে স্টার্টআপ সংস্কৃতি প্রচার ও প্রসারের পাশাপাশি উদ্যোক্তাদের উন্নয়নের লক্ষ্যে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। এ পুরস্কার প্রাপ্তির ফলে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে সার্বিক কর্মকাণ্ড আরও গতিশীল হবে এবং তরুণদের তাদের উদ্ভাবনী ভাবনাগুলোর সঠিক চর্চার মাধ্যমে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণেও উৎসাহিত করবে।

ইত্তেফাক/এএএম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত