করোনা ধাক্কার পর মোবাইল ব্যবহারকারী বেড়েছে

করোনা ধাক্কার পর মোবাইল ব্যবহারকারী বেড়েছে
করোনা ধাক্কার পর মোবাইল ব্যবহারকারী বেড়েছে

আগস্টের শেষে বাংলাদেশে মোবাইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৬৬ মিলিয়ন ছাড়িয়েছে। দেশের টেলিকম নিয়ন্ত্রণ সংস্থার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, বছরের প্রথম আট মাসে নতুন মোবাইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় অর্ধ মিলিয়ন।

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি)’র দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ২০২০ সালের আগস্ট মাস পর্যন্ত দেশের মোবাইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৬৬.০২৮ মিলিয়নে পৌঁছেছে। বাংলাদেশে মোট চারটি সেল ফোন অপারেটর কোম্পানি রয়েছে। এর মধ্যে তিনটি কোম্পানিই বিদেশি।

এ মোবাইলফোন অপারেটর কোম্পানিগুলো হলো- গ্রামীণফোন, রবি আজিয়াটা, বাংলালিংক ও টেলিটক। আগস্টের শেষ পর্যন্ত তাদের গ্রাহক সংখ্যা যথাক্রমে, গ্রামীণফোনের ৭৭.০১১ মিলিয়ন, রবি আজিয়াটার ৪৯.৭৮৪ মিলিয়ন, বাংলালিংকের ৩৪.৫৭৮ মিলিয়ন ও টেলিটকের ৪.৬৫৫ মিলিয়ন।

বিটিআরসির দেওয়া তথ্য অনুযায়ী ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত মোবাইল গ্রাহক সংখ্যা ছিল ১৬৫.৫৭২ মিলিয়ন।

এর আগে বিটিআরসি’র সিনিয়র সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন খান সিনহুয়াকে জানিয়েছেন, চলতি বছরের মার্চ থেকে মে মাস পর্যন্ত দেশের লক্ষ লক্ষ মোবাইল ব্যবহাকারী নিষ্ক্রিয় হয়েছে এবং এ সময়েই করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছিল। তিনি জানান, করোনা মহামারী সময়ে যারা একাধিক মোবাইল নম্বর ব্যবহার করছিল তারা কিছু পরিষেবা ব্যবহার থেকে দূরে রয়েছে।

বিটিআরসি’র দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ফেব্রুয়ারি থেকে প্রায় সাড়ে চার মিলিয়ন কমে মে মাসের শেষের দিকে দেশের মোবাইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৬১.৫০৬ মিলিয়ন ছিল।

সূত্র : সিনহুয়ানেট ডটকম

ইত্তেফাক/জেডএইচ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত