ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬
২৯ °সে


এক্সট্রা অ্যাপে গিফট দেওয়ার সহজ সমাধান

এক্সট্রা অ্যাপে গিফট দেওয়ার সহজ সমাধান
ছবিঃ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে।

সম্প্রতি বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো আত্মপ্রকাশ করল বিটুবি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম এক্সট্রা (Xtra)। এই অ্যাপের মাধ্যমে যে কোনো কোম্পানি তাদের ক্লায়েন্ট, ডিস্ট্রিবিউটর ও এমপ্লয়িদের আকর্ষণীয় রি-ওয়ার্ড, গিফট, ডিসকাউন্ট কিংবা অফার দিতে পারবে সহজে।

বর্তমানে সবাই চায় সব কাজ সহজে এবং দ্রুত করতে। এক্সট্রার স্লোগানই হচ্ছে ‘সব অফার সহজে’। অর্থাৎ এর মাধ্যমে যে কোনো সময় যে কোনো ধরনের রিওয়ার্ড কিংবা গিফট কোনো রকমের ঝামেলা ছাড়াই প্রদান করা যাবে। এ রকম একটি উদ্ভাবনী প্ল্যাটফর্ম বাংলাদেশের মানুষের জন্য প্রথমবারের মতো নিয়ে এসেছে এ্যাপলেকট্রাম সলিউশনস লিমিটেড।

বড়-ছোট প্রতিষ্ঠানসমূহ যাদের অফার দিতে চায়, তাদের ফোন নম্বর এক্সট্রা অ্যাপে এন্ট্রি করার পর অফার সিলেক্ট করে পাঠিয়ে দিতে পারবেন মুহূর্তের মধ্যে। ব্যবহারকারীদের ফোনে এক্সট্রা অ্যাপ থাকলেই যে কোনো সময় অফার গ্রহণ করা যাবে, বহন করতে হবে না কোনো গিফট ভাউচার, খুঁজতে হবে না কোনো কুপন কোড। এভাবে রিওয়ার্ড দেওয়ার মাধ্যমে কোম্পানির ক্লায়েন্ট, ডিস্ট্রিবিউটর ও এমপ্লয়িদের সন্তুষ্ট রাখা এখন হাতের মুঠোয়।

এক্সট্রার প্রতিষ্ঠাতা মঞ্জুরুল আলম মামুন জানান, ‘আপনার প্রতিষ্ঠানের সেরা এমপ্লয়িকে রি-ওয়ার্ড প্রদান, ডিস্ট্রিবিউটরদের গিফট, ক্লায়েন্টদের বিশেষ অফার ডিসকাউন্টসহ আরো কত কিছুই তো করছেন! কিন্তু সেই পুরানো পদ্ধতিতে গিফট বিতরণ, প্যাকেজিংয়ে বাড়তি খরচ, মেসেজ বা মেইল অফার দেওয়া। এসব করতে গিয়ে অর্থের সঙ্গে মূল্যবান সময়ও নষ্ট হচ্ছে। তাছাড়া এত কষ্ট করে দেয়া গিফট বা অফারের সঠিক ব্যবহার হলো কিনা তা জানার কোন ব্যবস্থা নেই। এসব কথা বিবেচনা করেই এই ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মটি করা। যাতে যে কোনো কোম্পানি যে কোনো সময় যে কাউকে উপহার দিতে পারেন।’

তিনি জানান, ‘তিনি মাঝে মধ্যেই বিভিন্ন কোম্পানি থেকে গিফট ভাউচার পেতেন। ভাউচারগুলো সব সময় নিজের সঙ্গে রাখা হতো না বলে অব্যবহৃত থেকে যেত। এ সমস্যার সমাধান বের করার চিন্তাভাবনা থেকেই এই ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের পরিকল্পনা করেন। এই পরিকল্পনা থেকেই লঞ্চ হল এক্সট্রা। যার মাধ্যমে এখন যে কোনো কোম্পানি যে কাউকে যে কোনো সময় উপহার দিতে পারবে। এছাড়াও, অল্প সময়ে এক্সট্রার সঙ্গে ১০০টি কোম্পানি যুক্ত হয়েছে এবং এক্সট্রা আশা করছে খুব শিগগিরই এটির পরিমান কয়েকশ ছাড়িয়ে যাবে। এক্সট্রা তাদের প্রযুক্তিগত দক্ষতার মাধ্যমে অফার আর ডিসকাউন্ট বাজারে একটি কাঠামোগত ইকোসিস্টেম তৈরি করার জন্য কাজ করছে।’

আরও পড়ুনঃ লালপুরে কৃষকদের মাঝে কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ

বিস্তারিত আরো জানা যাবে এক্সট্রার ওয়েবসাইটে

ইত্তেফাক/নূহু

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন