ঢাকা রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৯, ৮ বৈশাখ ১৪২৬
৩৫ °সে

উইন্ডোজ টেন-এর উপযোগী ৫ ফ্রি অ্যাপস

উইন্ডোজ টেন-এর উপযোগী ৫ ফ্রি অ্যাপস
ফাইল ছবি

বর্তমানে যতগুলো উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার হচ্ছে তার মধ্যে জনপ্রিয় হলো উইন্ডোজ ১০। এর আগে বেশ জনপ্রিয় ছিল উইন্ডোজ ৭ ভার্সন। শুধু উইন্ডোজই নয়, বিভিন্ন কাজ সহজে করতে আমরা অনেক অ্যাপ ব্যবহার করে থাকি। অনেক অ্যাপ আবার অর্থ দিয়ে কিনে নিতে হয়। কিছু কিছু অ্যাপ রয়েছে যেগুলো ফ্রিও ব্যবহার করা যায়। আবার অনেক অ্যাপ রয়েছে যেগুলো উইন্ডোজের সব ভার্সনে সমর্থন করে না। এ লেখায় উইন্ডোজ ১০-এ সমর্থন করে এবং ফ্রিতে পাওয়া যায় এমন ৫টি অ্যাপের বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। চলুন অ্যাপগুলো সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক—

অ্যাডোবি ফটোশপ এক্সপ্রেস (Adobe Photoshop Express)

কম্পিউটারে যারা হালকা ফটো এডিটিংয়ের কাজ করতে চান তারা অ্যাডোবি ফটোশপ এক্সপ্রেস ব্যবহার করতে পারেন। হালকা কাজের জন্য অ্যাডোবি ফটোশপের প্রয়োজন নেই। ফটোশপের ফুল ভার্সনের মতো এটিতেও রয়েছে বিভিন্ন ধরনের টুল। ইন্সটাগ্রামের মতো ফিল্টারস, অ্যাসপেক্ট রেশিও কন্ট্রোল, ক্রপ, রোটেট ইত্যাদি তো রয়েছেই, এছাড়াও ইমেজের কন্ট্রাস্ট, হাইলাইট শ্যাডো, কালার, ব্রাইটনেস, ইফেক্ট ইত্যাদিও কন্ট্রোল করার ফিচার রয়েছে এই অ্যাপটিতে। তা ছাড়াও ব্লেমিশ রিমুভারের মতো ফিচারও রয়েছে এই অ্যাপে। এই অ্যাপটি মূলত অ্যাডভান্সড ফটো স্টুডিও সফটওয়্যারের অলটারনেটিভ নয়, তবে উইন্ডোজ পিসির জন্য যদি বেসিক একটি ফটো এডিটরের দরকার হয়, তাহলে অবশ্যই এই অ্যাপটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

ইয়ার ট্রাম্পট (EarTrumpet)

ইয়ার ট্রাম্পট একটি বহুল ব্যবহূত অ্যাপ। এটিকে অ্যাপ না বলে কনভেনিয়েন্ট টুলও বলা যেতে পারে। অ্যাপটি মূলত উইন্ডোজ ১০ এর জন্য একটি সাউন্ড কন্ট্রোলার টুল হিসেবে কাজ করে। উইন্ডোজ ১০ এর টাস্কবারে যে ডিফল্ট সাউন্ড কন্ট্রোলারটি রয়েছে সেটি খুবই স্বাভাবিক লেভেলের। ডিফল্ট সাউন্ড কনট্রোলারটি ব্যবহার করে শুধু পিসির মাস্টার ভলিউমই কনট্রোল করা সম্ভব হয়। পিসিতে ওপেন থাকা প্রত্যেকটি ইন্ডিভিজুয়াল অ্যাপসের ভলিউম কনট্রোল করা সম্ভব হয় না। ইয়ার ট্রাম্পট সিম্পল একটি টুল যা আপনার পিসির টাস্কবারে নতুন সাউন্ড আইকন অ্যাড করবে। সাউন্ড আইকনটি ক্লিক করে আপনি একটি নতুন সাউন্ড কনট্রোলার উইজেট ওপেন করতে পারবেন। শুধু আপনার পিসির মাস্টার সাউন্ড নয়, একই সময় পিসিতে ওপেন থাকা প্রত্যেকটি অ্যাপের সাউন্ড আলাদা আলাদাভাবে কন্ট্রোল করতে পারবেন। এই ফিচারটি ব্যবহারকারীদের সব সময় দরকার না হলেও মাঝে মাঝে বেশ উপকারে আসে।

শেয়ারএক্স (ShareX)

পিসিতে কাজ করার সময় আমাদের বিভিন্ন ডকুমেন্টস এর ছবি ডাউনলোড করার প্রয়োজন হয়। অনেক সময় অনেক ছবি ডাউনলোড করা সম্ভব হয় না। তখন আমরা ওই ডকুমেন্টস এর স্ক্রিনশট নিয়ে থাকি। উইন্ডোজ ১০ এ সমর্থন করে এমন একটি ফ্রি স্ক্রিনশট অ্যাপ হলো শেয়ার এক্স। এটি একটি পাওয়ারফুল স্ক্রিনশট টুল। অনেকে আবার এটিকে স্ক্রিনশট সুইচও বলে থাকেন। ফুলস্ক্রিন স্ক্রিনশট, উইন্ডো স্ক্রিনশট, রিজিয়ন ক্যাপচার থেকে শুরু করে স্ক্রিন রেকর্ড এবং ইভেন স্ক্রিন রেকর্ড করে সেটা থেকে জিআইএফ তৈরি করা পর্যন্ত যত ধরনের ফিচার আপনার দরকার হতে পারে, তার সবগুলোই আছে এই অ্যাপটিতে। এটি দিয়ে স্ক্রিনশট ক্যাপচার করার পর ক্লাউড ড্রাইভে অটোমেটিক আপলোড করতে পারবেন। স্ক্রিনশট এডিট করার জন্য অ্যাপটিতে রয়েছে বেশ কয়েকটি বিল্টইন টুল।

পিয়াজিপ (PeaZip)

মেইলে বা বিভিন্ন মাধ্যমে তথ্য আদান-প্রদানের জন্য আমরা ফাইল জিপ করে আদান-প্রদান করে থাকি। উইন্ডোজ ১০ এর জন্য শতভাগ উপযোগী ও ফ্রি উইনরার টুল হলো পিয়াজিপ। অনেকেই সেভেন জিপার ও উইনরার ব্যবহার করেছেন। এটিও উইনরারের মতোই একটি টুল। এটি দিয়েও ফাইল কম্প্রেস ও আনজিপ করা যায়। অ্যাপটি সম্পূর্ণ ফ্রি হওয়াতে উইনরারের মতো বার বার ট্রায়াল ভার্সন চালানোর বিড়ম্বনায় পড়তে হয় না ব্যবহারকারীদের। যাই হোক, পিয়াজিপ দিয়ে অনেকগুলো ফরমেট এর তথ্য কম্প্রেস করা সম্ভব। আপনি যদি ঝামেলাহীন একটি কম্প্রেস টুলের সন্ধান করে থাকেন তাহালে নিশ্চিন্তে পিয়াজিপ অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন।

ইউলি (Ueli)

এটাও যথেষ্ট কনভেনিয়েন্ট একটি অ্যাপ বা টুল। আপনি যদি কখনো ম্যাক বা ম্যাকবুক ব্যবহার করে থাকেন, তাহলে আপনি অবশ্যই ম্যাকের স্পটলাইট সার্চ ফিচারটি ব্যবহার করেছেন। ম্যাক ওএসের অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি ফিচার হচ্ছে এই স্পটলাইট সার্চ। এই সার্চবারটি ওপেন করে ডেস্কটপ থেকেই সম্পূর্ণ পিসির সবকিছু সার্চ করা এবং ইনস্ট্যান্ট সার্চ রেজাল্ট পাওয়া যায় এবং সার্চ রেজাল্টগুলোর সঙ্গে যেকোনো রকম অ্যাকশন নেওয়া যায়। উইলি অ্যাপটি উইন্ডোজেও অনেকটা স্পটলাইট সার্চ ফিচারটি এনে দেয়। এই অ্যাপটির সাহায্যে আপনি শর্টকাট কি ব্যবহার করে যেকোনো সময় একটি সার্চ বার পপআপ পাবেন সেখানে আপনি যেকোনো কিছু সার্চ করতে পারবেন। হতে পারে সেটি আপনার পিসির কোনো সেটিংস ইন্সটল করা অ্যাপ, কোনো একটি ফোল্ডার বা ফাইল এক্সপ্লোরার ইত্যাদি। আপনি চাইলে সরাসরি উইলি এর স্পটলাইট সার্চ বারটি ওপেন করে ছোট ছোট ক্যালকুলেশনও সেরে ফেলতে পারবেন। এছাড়া আরেকটি কনভেনিয়েন্ট ফিচার হচ্ছে, এই সার্চ বারে আপনি যেকোনো ওয়েব অ্যাড্রেস টাইপ করে সরাসরি আপনার ডিফল্ট ব্রাউজার ব্যবহার করে ওয়েবসাইটটি ভিজিট করতে পারবেন। অ্যাপটির ইউজার ইন্টারফেসও যথেষ্ট ক্লিন এবং সহজ। তা ছাড়া এটির শর্টকাট এবং সেটিংস নিজের ইচ্ছামতো কাস্টোমাইজ করার সুবিধাও ভোগ করতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।

ইত্তেফাক/আরকেজি

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
২১ এপ্রিল, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন