ঢাকা শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬
২৯ °সে


শেখ হাসিনা যুব উন্নয়ন কেন্দ্রে শুরু ‘জাতীয় স্টার্টআপ ক্যাম্প ২.০’

শেখ হাসিনা যুব উন্নয়ন কেন্দ্রে শুরু ‘জাতীয় স্টার্টআপ ক্যাম্প ২.০’
ছবি: সংগৃহীত।

দেশ সেরা শীর্ষ ৭৫ স্টার্টআপকে নিয়ে শুরু হলো ‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ: চেপ্টার ২’ এর ‘জাতীয় স্টার্টআপ ক্যাম্প ২.০’। বৃহস্পতিবার সাভারের শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটে সকালে উদ্বোধন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তিনদিন ব্যাপী এ কার্যক্রম শুরু হয়।

‘স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ: চ্যাপ্টার টু’ এর জাতীয় স্টার্টআপ ক্যাম্পের উদ্বোধন ঘোষণার সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে আমরা অনেকদূর এগিয়েছি। এখন একটি 'কোয়ালিটিফুল ডিজিটাল বাংলাদেশ' নির্মাণের পথে হাঁটছি আমরা। আর সেই লক্ষ্য বাস্তবায়নে চারটি স্তম্ভ নিয়ে কাজ করছে সরকার। তার মধ্যে একটি হচ্ছে সক্ষমতা বৃদ্ধি। “উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প” (আইডিয়া) প্রকল্প সৃষ্টির মূল লক্ষ্য এই সক্ষমতা বৃদ্ধি। আপনাদের মত তরুণদের স্টার্টআপের উপর ভর করেই আগামী দিনের বাংলাদেশ গড়ে উঠবে। আমরা সকলের কাছে ডিজিটাল বাংলাদেশের সেবা পৌঁছে দিতে চাই।’

অনুষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ‘উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প’ (আইডিয়া) এর পরিচালক (যুগ্ম-সচিব) সৈয়দ মজিবুল হক বলেন, ‘আমাদের মূল লক্ষ্য আগামীর প্রজন্মকে প্রস্তুত করা। আর সে কারণেই সামনে স্কুল পর্যায়ে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করব। আমাদের প্রকল্পের মাধ্যমে আসা অধিকাংশ স্টার্টআপগুলো ভালো করছে। এখন পর্যন্ত আমাদের মাধ্যমে আসা স্টার্টআপগুলোর টিকে থাকার হার প্রায় ৯০ ভাগ। যা বিশ্বের অন্য যে কোন দেশের তুলনায়।’

আরো পড়ুন: গোপন তথ্য ফাঁস করার দায়ে মার্কিন বিশেষজ্ঞ গ্রেফতার

উদ্বোধন অধিবেশন শেষে অংশগ্রহণকারীদের জন্য সেশন পরিচালনা করেন স্টুডেন্ট টু স্টার্টআপ এর কো-অর্ডিনেটর আশিকুর রহমান রূপক। দিন ব্যাপী এই সেশনে তাদেরকে স্টার্টআপ গঠন ও টিকিয়ে রাখার বিভিন্ন কৌশলের পাশাপাশি একটি স্টার্টআপকে সকলের কাছে উপস্থাপনের প্রকিয়া সম্পর্কিত তথ্য প্রদান করা হবে এবং পরবর্তী পিচিং এর জন্য প্রস্তুত করা হবে।

শিক্ষার্থীদের নিয়ে উদ্ভাবনী ভাবনা ও উদ্যোক্তা খোঁজার এই আয়োজনটি গত ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ আইসিটি টাওয়ারে এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে যেখানে আইসিটি ডিভিশনের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক এমপি দেশের সকল শিক্ষার্থীদের এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে আহ্বান জানান।

প্রায় ২৫০০ স্টার্টআপ তাদের উদ্ভাবনী আইডিয়া নিয়ে এই প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণ করে। এদের মধ্য থেকে ২৪ ভেন্যু থেকে ৭৫ স্টার্টআপ বাছাই করা হয়। পরবর্তীতে নির্বাচিত স্টার্টআপদের “জাতীয় স্টার্টআপ ক্যাম্প”- এ আমন্ত্রণ জানান হয়।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতায় বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল এর অধীনে “উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্প” (আইডিয়া) দ্বিতীয় বারের মত প্রতিযোগিতাটি আয়োজন করছে।

ইত্তেফাক/বিএএফ

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৮ অক্টোবর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন