ঢাকা সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬
২৬ °সে


ব্যাটিং উইকেটই চান রোহিত

ব্যাটিং উইকেটই চান রোহিত
ছবি-সংগৃহীত

রাজকোটের মতো নাগপুরেও ব্যাটিং উইকেটের দাবি জানিয়ে রাখলেন ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মা। রোহিত মনে করেন, রাজকোটে পছন্দের উইকেট পেয়েছে বলেই এমন জ্বলে উঠতে পেরেছে ভারত।

রোহিত বলেন, ‘যদি আমাদের এই ব্যাটিং লাইনআপের দিকে তাকান, সবাই দারুণ প্রতিভাবান, প্রথম বল থেকে ওরা আগ্রাসী ক্রিকেট খেলতে পছন্দ করে। দিল্লিতে শুরু থেকেই মাঝ ব্যাটে খেলা সহজ ছিল না। কিন্তু এ ধরনের উইকেটে আশা করা যায়, ভারত শুরু থেকে চড়াও হবে।’

টসে ভাগ্যবান ছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক। তবে বাংলাদেশকে কমের মধ্যে আটকে ফেলার কৃতিত্বটা ভারতীয় বোলারদের। যদিও বাংলাদেশের প্রশংসাই করলেন রোহিত। তিনি বলেন, ‘টসের ব্যাপারে আমরা ভাগ্যবান ছিলাম। অবশ্যই আমরা প্রথমে বোলিং করতে চেয়েছিলাম। ভেবেছিলাম, ওদের ১৬০ রানের আশপাশে থামিয়ে রাখতে পারলে সেটা হবে আমাদের জন্য ভালো কিছু। ওরা খুব ভালো ব্যাটিং করেছে। আমরা ভেবেছিলাম এই ম্যাচে স্পিনারদের ভূমিকা হবে গুরুত্বপূর্ণ। বলে গতি না রাখা ছিল খুব গুরুত্বপূর্ণ। আর মাঝের ওভারগুলোতে আমরা খুব ভালো কাজ করেছি।’

রাজকোটে বিশ্বের দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে শততম ম্যাচ খেলার মাইলফলক স্পর্শ করলেন রোহিত। এতে নিজেও অনেক বেশি উচ্ছ্বসিত তিনি। গর্বিত এই ক্রিকেটার বলেন, ‘দেশের হয়ে ১০০ ম্যাচ খেলতে পারাটা গর্বের ব্যাপার। আমি কোনো দিনও ভাবিনি এতগুলো ম্যাচ খেলার সুযোগ পাব। এই সুযোগ পাওয়ার জন্য আমি কৃতজ্ঞ।’

নিজের শততম ম্যাচে চমক দেখিয়েছেন রোহিত। ৪৩ বলে ৮৫ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন তিনি। তার ব্যাটিং তাণ্ডবে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশকে ৮ উইকেটে হারায় ভারত। আর তাতেই সিরিজে সমতা আনতে পারে ভারত। সিরিজের প্রথম ম্যাচ হেরেছিল ভারত। ব্যাটিং তাণ্ডব দিয়ে ভারতকে সিরিজে ফেরালেন রোহিত।

রাজকোটের উইকেটের কারণে নিজের প্রতি আত্মবিশ্বাস ছিল রোহিতের। তাই ব্যাট হাতে বড়ো ইনিংস খেলা সহজ হয়েছে বলে জানান তিনি, ‘রাজকোটের পিচে রান আসে। এটিও জানতাম, এই পিচে দ্বিতীয় ইনিংসে বোলাররা সমস্যায় পড়বে। আমরা সেই সুবিধা নিতে পেরেছি। আর পাওয়া-প্লের কল্যাণে কাজ সহজ হয়ে যায়। ব্যাট হাতে নামলে নিজের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করি। পরিস্থিতি আমার পক্ষেই ছিল। তাই বল উড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্য ছিল আমার।’

এটাই কি রোহিতের সেরা ইনিংস? এমন প্রশ্নের জবাবে ভারতীয় অধিনায়ক বলেন, ‘একটি ইনিংসকে বেছে নিতে পারব না। আমার সব ইনিংসকেই ভালোবাসি। আরো অনেক দুর্দান্ত ইনিংস খেলার জন্য মুখিয়ে আছি।’

ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের শুরুটা মন্দ ছিল না। তবে স্বাগতিকদের ম্যাচে ফিরিয়েছেন দুই স্পিনার যুজবেন্দ্র চাহাল ও ওয়াশিংটন সুন্দর। এই দুজনের প্রশংসা করে রোহিত বলেন, ‘চাহাল-সুন্দর দারুণ বল করেছে। কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে বল করেছে চাহাল। প্রতিপক্ষের উইকেট তুলে নিয়ে রান তোলার গতি টেনে ধরে সে। এটিই তার আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেয়। সুন্দর আমাদের নতুন বলের বোলার। তবে এই ম্যাচে তাকে পরের দিকে ব্যবহার করার পরিকল্পনা করি।’

ইত্তেফাক/এসআর

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
prayer-time
১৮ নভেম্বর, ২০১৯
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন