বেটা ভার্সন
আজকের পত্রিকাই-পেপার ঢাকা শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭
৩১ °সে

মোস্তাফিজের দাপুটে বোলিংয়ে জিতল রংপুর

মোস্তাফিজের দাপুটে বোলিংয়ে জিতল রংপুর
মাত্র ১০ রানে ৩ উইকেট নিয়ে নেন মোস্তাফিজ। ছবি- সংগৃহীত

বাংলাদেশের কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমান পুরো বছরটাই নিজেকে হারিয়ে খুঁজেছিলেন। বোলিংয়ে আগের সেই ধার খুঁজে পেতে বড়ো মঞ্চ বিপিএলকে বেছে নিলেও শুরুটা হয় বাজে ভাবেই। রব উঠে মুস্তাফিজের ধার শেষ। তবে গত দুই ম্যাচ ভালো করে ফেরার ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন তিনি। সোমবার সিলেটের বিরুদ্ধে মাত্র ১০ রানে ৩ উইকেট নিয়ে দলকে জিতিয়ে জানান দিলেন ‘দ্য ফিজ’ ফুরিয়ে যান নি।

সোমবার দিনের প্রথম ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় রংপুর র‌্যাঞ্জার্স। সিলেট থান্ডারের ড্যাশিং ব্যাটসম্যান আন্দ্রে ফ্লেচারকে শূন্য রানে ফিরিয়ে প্রথম ধাক্কাটা দেন আরাফাত সানি। ম্যাচের চতুর্থ ওভারে জনসন চার্লসের উইকেট হারিয়ে চাপের মুখে পড়ে সিলেট। এরপর মিঠুনের সঙ্গে জুটি গড়তে ক্রিজে আসেন মোসাদ্দেক। দুজনের ৫৭ রানের জুটি ভালো কিছুর ইঙ্গিত দিলেও মোসাদ্দেক রান আউট হয়ে ফিরে গেলে বিপর্যয়ে পড়ে সিলেট। বাকী ব্যাটসম্যানরা ছিলেন আসা যাওয়ার মিছিলে। তবে দলের অন্য ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ হলেও একপ্রান্ত আগলে রেখে রানের চাকা সচল রাখেন মিঠুন। তার ৪৭ বলে ৬২ রানের ইনিংসের সুবাদে শেষ পর্যন্ত ১৩৩ রান তুলতে সমর্থ হয় সিলেট।

আরও পড়ুন: হাতিরঝিলে ‘মানব কুকুর’, পুলিশের কাছে শিল্পীদের দুঃখ প্রকাশ

১৩৪ রানের মামুলি টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরুতেই অধিনায়ক শেইন ওয়াটসনের উইকেট হারায় রংপুর। তিন নম্বরে নেমে ক্যামেরুন দেলপোর্ট রীতিমতো ঝড় তুলেন। নাইমকে সঙ্গে নিয়ে ৯৯ রানের জুটি গড়ার পথে খেলেন ২৮ বলে ৬৩ রানের ইনিংস। দলীয় ১০৪ রানে নাভিন-উল হকের বলে দেলপোর্ট আউট হয়ে ফিরে গেলে পরের কাজটা সারেন নাইম-নবী জুটি। নাইম ৩৮ ও নবী ১৮ রানে অপরাজিত থাকেন। বোলিংয়ে সিলেটের হয়ে ১৩ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন নাভিন।

এই জয়ে ৭ ম্যাচে ২ জয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ষষ্ঠ অবস্থানে রংপুর র‌্যাঞ্জার্স। অন্যদিকে ৮ ম্যাচের মধ্যে ৭ ম্যাচ হেরে পয়েন্ট তালিকার তলানিতে সিলেট।

ইত্তেফাক/এসইউ

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত