ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে আজ রাজশাহী-চট্টগ্রাম মুখোমুখি 

ফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে আজ রাজশাহী-চট্টগ্রাম মুখোমুখি 
ফাইল ছবি

আগের রাতেই খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে ম্যাচ হেরেছে রাজশাহী রয়্যালস। আবার ঢাকা প্লাটুন্সকে হারিয়েছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। এই জয়-পরাজয় তাদের ফাইনালে পৌঁছে দেয়নি বা টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে দেয়নি। আজ ফাইনাল খেলার আরেকটা সুযোগ পাচ্ছে রাজশাহী ও চট্টগ্রাম। আজ দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে যে দল জিতবে তারা চলে যাবে ফাইনালে।

১৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য ফাইনালে খুলনার মুখোমুখি হবে আজকের জয়ী দল। পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় দল হিসেবে প্রথম কোয়ালিফায়ার খেলেছিল রাজশাহী। অন্য দিকে তৃতীয় দল হিসেবে এলিমিনেটর খেলেছিল চট্টগ্রাম। আজকের ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার আগে দুই দলের পক্ষ থেকেই বলা হলো, তারা ফাইনাল ছাড়া আর কিছু ভাবছেন না।

গ্রুপপর্বে দুইবার মুখোমুখি হয়েছে রাজশাহী ও চট্টগ্রাম। একবার করে জয় পেয়েছে দুই দল। তবে প্রথম কোয়ালিফায়ারে হারটা আশা করেনি রাজশাহী। তাদের ম্যানেজার হান্নান সরকার বলছিলেন, প্রথম কোয়ালিফায়ারের উইকেটটা একটু কঠিন ছিল, ‘কালকের উইকেটটা একটু ডিফারেন্ট ছিল। উইকেট ঢাকা ছিল সারা দিন। আমরা যখন বোলিং করেছি, তখন বোলাররা ফায়দা পেয়েছে। আমির সেটা খুব ভালো কাজে লাগিয়েছে। তবে এটা মানতে হবে, আমরা বাজে ব্যাটিং করেছি। শোয়েব অনেক চেষ্টা করেছে।’

রাজশাহীর একাদশ নিয়ে একটু প্রশ্ন উঠেছে। হান্নান বলছেন, পরাজয়ের পর এই ধরনের প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক, ‘এই স্কোয়াড নিয়ে সাতটা ম্যাচ জিতেই এখানে এসেছি। এই কম্বিনেশন নিয়েই খেলেছি। তখন জিতেছি বলে প্রশ্ন ওঠেনি। হারলে প্রশ্ন উঠবে।’

হান্নান জানালেন, তার দলে কোনো ইনজুরি সমস্যা নেই। সবাই খেলার জন্য তৈরি আছেন, ‘ইনজুরির কারণে আমাদের কোনো সমস্যা নেই। আশা করি, বেস্ট ইলেভেনই নামানো যাবে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার খেলতে পারব।’

আরো পড়ুন : মোবাইল ব্যাংকিং : নভেম্বরে অ্যাকাউন্ট-সংখ্যা ও গড় লেনদেন বেড়েছে

হান্নান মানছেন যে, সর্বশেষ ম্যাচে, এলিমিনেটরে জয় পাওয়ায় চট্টগ্রাম দলটা তাদের চেয়ে একটু বেশি উজ্জীবিত থাকবে, ‘যেভাবে হেরেছি, সেটা হয়তো কিছুটা প্রভাব ফেলতে পারে। কিন্তু তারপরও আমার মনে হয়, টি-টোয়েন্টি নির্দিষ্ট দিনের পারফরম্যান্সের খেলা। হ্যাঁ, চট্টগ্রাম সর্বশেষ ম্যাচে জেতায় বেশি উজ্জীবিত থাকবে। তবে আমরা ভালো খেলতে পারলে, ভালো প্রয়োগ করতে পারলে এটা সমস্যা হবে না।’

এর মধ্যে তাদের আলাদা করে পরিকল্পনা করতে হচ্ছে গেইলকে নিয়ে, ‘গেইল প্রতিপক্ষে থাকা তো সবসময়ই চিন্তার ব্যাপার। তাকে নিয়ে আলাদা করে পরিকল্পনা করতে হয়। আমাদেরও কিছু পরিকল্পনা আছে। সেটা মাঠে করে দেখাতে হবে।’

চট্টগ্রামের অলরাউন্ডার মুক্তার আলী বলছিলেন, আজকের ম্যাচটা খুব চ্যালেঞ্জিং হবে। তবে তিনি তার নিজের শহরের দলের বিপক্ষে জয়ই চান, ‘অবশ্যই চ্যালেঞ্জিং ম্যাচ হবে। আমার শহর রাজশাহী। কিন্তু আমি চট্টগ্রামের খেলোয়াড়। আমি কাল চাইবো রাজশাহীকে হারাতে।’

যদিও গেইল এখনো বলার মতো কিছু করতে পারেননি। তারপরও মুক্তারদের বিশ্বাস আছে, এরকম জরুরি সময়ে গেইল জ্বলে উঠবেন, ‘গেইল থাকাতে আমাদের একটা বিশ্বাস সবসময় থাকে। সে যদিও এখনো খুব ভালো করতে পারেনি। কিন্তু যে ম্যাচে সে শুরু পাবে, আর কাউকে কিছু করতে হবে না। আশা করি, শেষ দুই ম্যাচেই ও সেটা করতে পারবে।’

ইত্তেফাক/ইউবি

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত