ঢাকা শনিবার, ০৪ এপ্রিল ২০২০, ২১ চৈত্র ১৪২৬
৩৫ °সে

নেইমারের লাল কার্ড, পিএসজির নাটকীয় জয়

নেইমারের লাল কার্ড, পিএসজির নাটকীয় জয়
লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়ছেন নেইমার [ছবি: গোলডটকম]

পিছিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত লিগ ওয়ানে বোর্দোর বিপক্ষে ৪-৩ গোলের নাটকীয় জয় তুলে নিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন প্যারিস সেইন্ট-জার্মেই। এই জয়ের মাধ্যমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের কাছে পরাজয়ের পর আবারো জয়ের ধারায় ফিরলো প্যারিসের চ্যাম্পিয়নরা। উরুগুয়ের অভিজ্ঞ অ্যাটাকার এডিনসন কাভানি এই ম্যাচে পিএসজির হয়ে ক্যারিয়ারের ২০০তম গোল করেছেন। ম্যাচটিতে দুই গোল করেছেন ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার মারকুইনহোস। যদিও ম্যাচের একেবারে শেষ মুহূর্তে নেইমারের লাল কার্ড কিছুটা হলেও পিএসজির জয় উৎসবকে ফিকে করে দিয়েছে।

আগের সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ১৬’র প্রথম লেগের লড়াইয়ে বরুসিয়ার কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হয়েছিল পিএসজি। ঐ ম্যাচের মতই কালও পিএসজির রক্ষণভাগের দুর্বলতা ছিল চোখে পড়ার মত । সেই সুযোগে পার্ক ডি প্রিন্সেসে ম্যাচের ১৮ মিনিটে দক্ষিণ কোরিয়ান হুয়াং উই-জো’র গোলে এগিয়ে গিয়েছিল বোর্দো। কাভানি ও কিলিয়ান এমবাপ্পের মাঝে দুই অর্ধে মারকুইনহোসের দুই গোলে পিএসজি শেষ পর্যন্ত জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে। যদিও ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার পাবলো ও রুবেন পারডোর গোলে বোর্দো শেষ পর্যন্ত লড়াই চালিয়ে গেছে।

ইনজুরি টাইমে দ্বিতীয় হলুদ কার্ডের কারণে নেইমারের মাঠ ত্যাগের মধ্য দিয়ে সন্ধ্যাটি শেষ হয়েছে। বোর্দোর ফেঞ্চ মিডফিল্ডার ইয়াসিনে আদলির সাথে বিরোধে লাল কার্ড দেখেন নেইমার।

রক্ষণভাগের দুর্বলতার পাশাপাশি নেইমারের লাল কার্ড এখন কোচ থমাস টাচেলকে দুশ্চিন্তায় ফেলেছে। যদিও তার দল মার্সেইর থেকে ১৩ পয়েন্ট এগিয়ে লিগ ওয়ান টেবিলের শীর্ষে রয়েছে। শনিবার নতের কাছে ৩-১ গোলে পরাজিত হয়ে পয়েন্ট হারিয়েছে মার্সেই।

নেইমারের লাল কার্ড প্রসঙ্গে টাচেল বলেছেন, ‘সেও একজন মানুষ, ঐ মুহূর্তে সে রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি। যে খেলোয়াড় তাকে ফাউল করেছিল তাকে হলুদ কার্ডও দেয়া হয়নি। সে কারণেই বিষয়টি নেইমার মেনে নিতে পারেনি। গত দুটি লিগ ম্যাচে আমরা সাত গোল দেখেছি এবং এটা মোটেই স্বাভাবিক নয়। আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনাটা সত্যিই কঠিন। কিন্তু স্বস্তির বিষয় হচ্ছে আমরা জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছি। এটাই আমাদের সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে।’

আগামী ১১ মার্চ ঘরের মাঠে ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে ফিরতি পর্বে ম্যাচের আগে এই আত্মবিশ্বাসটাও জরুরী ছিল। মঙ্গলবার পরাজয়ের পর টাচেলকে নিয়ে সমালোচনাও কম হয়নি। বৃহস্পতিবার রাতে পুরো দলের কাভানি, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া ও মাউরো ইকার্দির জন্মদিনকে উদযাপনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হবার বিষয়টি ভালভাবে নেননি টাচেল, পরবর্তীতে তিনি সেটা স্বীকার করেছেন।

ইত্তেফাক/এমআর

এই পাতার আরো খবর -
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
icmab
facebook-recent-activity
prayer-time
০৪ এপ্রিল, ২০২০
আর্কাইভ
বেটা
ভার্সন